শিরোনামঃ-


» অপরাজিতা সংগীতা ও তার ‘পুরুষাতঙ্ক

প্রকাশিত: ১৬. জুন. ২০১৯ | রবিবার

জান্নাতুল ফেরদৌস

অপরাজিতা সংগীতা । বাংলাদেশের একজন তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতা । সম্প্রতি তার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘পুরুষাতঙ্ক’ পশ্চিমবঙ্গের চলচ্চিত্র প্রেমীদের আয়োজন ‘ডিজিটাল ওয়ান্ডারল্যান্ড ফিল্ম ফেস্টিভ্যল’-এ পেয়েছে বেস্ট সিনেমাটোগ্রাফি এওয়ার্ড।
সারা বিশ্বে প্রতিনিয়ত বাড়ছে নারী নির্যাতন। কোথাও না কোথাও অহরহ ঘটছে নারী নির্যাতনের ভয়াবহ ঘটনা। এই পরিস্থিতিতে একজন নারী কিভাবে বেঁচে থাকে বা বেঁচে থাকার সংগ্রাম করে পুরুষতান্ত্রিক সমাজে, প্রতিনিয়ত নির্যাতিত হবার ভয়ে নারী কিভাবে ভুগতে থাকে পুরুষের আক্রমণের আতঙ্কে- সেই গল্পটাই স্বল্প পরিসরে বলার চেষ্টা করা হয়েছে একটি চলচ্চিত্রে । নাম ‘পুরুষাতঙ্ক’।

ক্রিয়েটিভ প্রমোশনসের ব্যানারে নির্মিত পুরুষাতঙ্ক চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন লুৎফর রহমান জর্জ, নুসরাত জাহান খান নিপা, সৈয়দ জামাল, মামুনুর রশিদ, শুভ হাসান, সিকদার ডায়মন্ড।

‘পুরুষাতঙ্ক’ চলচ্চিত্রের নির্মাণ প্রসঙ্গে পরিচালক অপরাজিতা সংগীতা বলেন, একজন নারী নির্মাতা হিসেবে আমি কেবল আমার নারী সত্তার কিছু অনুভূতিকে এখানে তুলে ধরতে চেয়েছি। নারী কেবল মাংসপিন্ড নয়। নারীও পুরুষের সমান একজন মানুষ। এবং একজন মানুষের নিরাপদে বেঁচে থাকা তার মৌলিক অধিকার। এই নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায় রাষ্ট্র ও তার নারী পুরুষ সকল নাগরিকের।
নারী পুরুষের একটি মানবিক, সহানুভূতিশীল ও সমতার সমাজের দাবির গল্পই হচ্ছে ‘পুরুষাতঙ্ক’।

অপরাজিতা সংগীতা পরিচালিত ‘পুরুষাতঙ্ক’ চলচ্চিত্রটি ইতোমধ্যে দেশে-বিদেশে অনেকগুলো ফেস্টিভ্যালে প্রদর্শিত হয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো – ইংল্যান্ডের ‘দ্য লিফট অফ সেশন’ । ‘দ্য লিফট অফ সেশন’ নামের এই গ্লোবাল প্ল্যাটফর্মে ‘পুরুষাতঙ্ক’ চলচ্চিত্রটি ফেব্রুয়ারি এবং মার্চ, ২০১৯-এ দুই সপ্তাহব্যাপী অনলাইনে স্ক্রিনিং হয়েছে। এছাড়াও লিফট অফ গ্লোবাল নেটওয়ার্কেও ফার্স্ট টাইম ফিল্ম মেকার সেশনে এ ও এক সপ্তাহব্যাপী অনলাইনে স্ক্রিনিং হয় ‘পুরুষাতঙ্ক’ চলচ্চিত্রের।

অপরাজিতা সংগীতার পরবর্তী স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘রিভোল্ট (দ্রোহ)’ নির্মাণাধীন আছে।

নারী ও তার যাপিত জীবনের বাকস্বাধীনতাহীন বাস্তবতার গল্প ‘রিভোল্ট’। পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নারীর জীবন ও কণ্ঠকে সীমাবদ্ধ করে দেয়ার একটা চেষ্টা চলে এসেছে হাজার বছর ধরেই। এই যে বারবার আরোপ করা হচ্ছে বিধিনিষেধ সেটা করছে পুরুষতান্ত্রিক মানসিকতা লালন করা যুবক, চাকরী ক্ষেত্রে পুরুষ বস থেকে একজন শ্রমজীবী বাসচালক, ধর্মের নামে পবিত্রতার বানী বিতরণ করা ধার্মিক থেকে পুলিশ, চলচ্চিত্র নির্মাতা, মুখোশধারী রাজনীতিবিদ প্রমুখ। তারা ধাপে ধাপে অবরোধ তৈরি করছে নারীর অগ্রগতিতে, চেপে ধরছে নারীর কণ্ঠস্বর। এমন একটা বাস্তবতায় যখন নারীর চলার পথ রুদ্ধ হয়ে যায়, যখন নারী বৃত্তবন্দী হয়ে পরে, তখন বৃত্তটাকে ভেঙ্গে ঘুরে দাঁড়ানোর কোনও বিকল্প থাকে না। নারীর ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প নিয়েই নির্মিত হয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘রিভোল্ট’।

রিভোল্ট চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন সানজিদা প্রীতি। সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন অপু রোজারিও।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৯ বার

Share Button

Calendar

July 2019
S M T W T F S
« Jun    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031