শিরোনামঃ-


» অমেরুমিলন কোন সম্পর্কের জের

প্রকাশিত: ৩১. জানুয়ারি. ২০১৯ | বৃহস্পতিবার

নাজমীন মর্তুজা

তাকে টের পাই নির্বিশেষে ঊষার ভেতরে
লাল আলো হয়ে কুয়াশার মধ্যে
কাতরতা আনন্দ আদরে
ঢেউয়ের পর ঢেউ ভেঙ্গে
উঁকি দেওয়া মাস্তুলে ।
উদ্বোধিত জন্ম মৃত্যুর হাহাকারে
বিষন্ন শিশিরের ঠাণ্ডা শবদেহের
ওজন স্বর্বস্ব শরীরে ।
সে-ও একপ্রকার জীবন আমার
শেষ হবে এ সময় অনন্ত নয় কিনা
তাও সঠিক জানি না ,
উদয়ের ডানা ভাসিয়ে হয়ত ফিরবে পাখি
দেখাবে প্রভাতের বিস্তার
ছুঁয়ে দেবে আমার খিন্ন হাত , অমলিন ধবল আঙুলে
শিল্পের পরিধিতে ।
ধেয়ে – ধেয়ে যাওয়া নৌকা ,দূর জলে আবছা হলে
বুকের পলিমাটির দ্বীপচরে
আলুথালু বাতাসের দু:খ বুকে নিয়ে
মর্মতলের কাঁটা তুলবার কান্না..
অব্যক্ত প্রোণোদনার বেদনায় কেঁদেছি অনেকটা সময়
স্বজ্ঞানে নিয়েছি মেনে বুক উজার করে ।
আমার জন্য হা পিত্যেশ চেয়ে আছে
আইবুডো় খেড়ো চালের ঘর – মাচা
এক্কা – দোক্কা খেলার শক্ত ভরাট পা
জানি কিছু স্নেহ পেছনে পরে আছে
গেলে পাবো, শীতের কুকুর কুন্ডলী রাতের আদর
কিছু প্রেম জড়িয়ে আছে
দূরবিনে দেখা কুয়োর জলে
প্রতি পদে প্রতি পথে বাতাসের রণপায়
ওড়নার ভাঁজে একটু ছাপ রিক্ত বিছানায়
গেলে পাবো চেতনায় আচ্ছন্ন শূন্যতা
লেখবার খাতায় আজ সামান্যই রেখে গেলাম
ফেলে আসা অন্যরকম অন্যকিছুর টান
পোকার কামড় ভয় ত্রাস যন্ত্রনা
সুগভীর অভিমানে সুষম সাবলীল
বেহালার ব্যাকুল কণ্ঠে বেজে যায়
গোপন আঙুলে দীর্ঘশ্বাস বাতাসে ভাসিয়ে ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৩১ বার

Share Button