» অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সেরা ৫টি ওয়েব ব্রাউজার

প্রকাশিত: ২৩. ডিসেম্বর. ২০১৫ | বুধবার

এসবিএন ডেস্ক:
মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে। বিশেষ করে যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তারা তো ইন্টারনেট ছাড়া মোবাইল ব্যবহারের কথা ভাবতেই পারেন না। তবে মোবাইলে ইন্টারনেটের জন্য অনেক ব্রাউজার রয়েছে। এর মধ্য থেকে আপনার মোবাইলের জন্য সবচেয়ে সুবিধাজনকটিই বেছে নিতে হবে। নিচে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমযুক্ত মোবাইলের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় পাঁচটি ব্রাউজার নিয়ে আলোচনা করা হলো :

অপেরা : অনেকদিন ধরেই মোবাইল ব্রাউজার হিসেবে শীর্ষে আছে অপেরা । কম ডাটা খরচের জন্য অপেরা মিনি তুমুল জনপ্রিয়। অনেক ব্রাউজারে ডাটা সেভিং সুবিধা থাকলেও অপেরা এক্ষেত্রে শীর্ষে। বিভিন্ন মোবাইল কম্পানিও অপেরা মিনিকে কেন্দ্র করে নানা রকম ব্রাউজিং সুবিধা প্রদান করে থাকে। বর্তমানে অপেরা মিনির নতুন ভার্সনটিতে ‘High’ এবং ‘Extream’ নামে দুটি ডাটা সেভিং মুড রয়েছে। মোবাইল ভিউ ব্রাউজিং এর জন্য অপেরার অপর একটি সংস্করণ প্লে স্টোরে উন্মুক্ত করা হয়েছে।

ইউসি ব্রাউজার : দ্রুতগতির ব্রাউজিংয়ের জন্য দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ইউসি ব্রাউজার। যেকোন সাইজের ফাইল ডাউনলোডের জন্য ইউসি ব্রাউজারই সেরা। এই ব্রাউজারটিতে মোবাইল ভিউয়ের পাশাপাশি ডাটা সেভিং মুড যুক্ত আছে। যার দ্বারা ডাটা খরচ কমিয়ে আরও দ্রুত ওয়েবসাইট ব্রাউজ করা যায়। পাশাপাশি শুধু ফেসবুকের জন্যও স্পীড অপটিমাইজেশনের ব্যবস্থা আছে। ইউসি ব্রাউজারের একটি এইচডি ভার্সন আছে, যার ইন্টারফেস অনেকটা কম্পিউটারের মতই। আছে বেশ কিছু এডঅন ব্যবহারের সুবিধা। অনলাইন ভিডিও প্লেইংয়ের ক্ষেত্রে বেস্ট চয়েজ হলো ইউসি ব্রাউজার।

গুগল ক্রোম : কম্পিউটারের ব্রাউজার হিসেবে জনপ্রিয়তার শীর্ষস্থান দখল করলেও স্মার্টফোনের জগতে ক্রোম একটু পিছিয়ে। যার কারণ এর ব্রাউজিং স্পীড। আশ্চর্যজনকভাবে ক্রোম ব্রাউজারটির গতি অপেরা কিংবা ইউসি ব্রাউজারের তুলনায় কম। এর ইন্টারফেসও সুবিধাজনক নয়। তার মানে কিন্তু এই নয় যে গুগল ক্রোম একটি জঘন্য ব্রাউজার। পিসির ভার্সনটির মতই এর মোবাইল ভার্সনে বুকমার্ক সিঞ্চ্রোনাইজেশনের ব্যবস্থা আছে, যার দ্বারা আপনার বুকমার্কগুলি যেকোন ডিভাইসেই ব্যবহার করতে পারবেন। আছে ওয়েবপেইজকে পিডিএফ হিসেবে ডাউনলোড করার সুবিধা। একটি ডাটা সেভিং মুড আছে, তবে তা খুব বেশী ডাটা সেভ করতে পারে না।

ফায়ারফক্স : মজিলা কর্পোরেশনের ফায়ারফক্স ব্রাউজারটিরও একটি এন্ড্রয়েড ভার্সন রয়েছে। প্রায় ৫০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী মোবাইলে ফায়ারফক্স ব্যবহার করে। যদিও অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণে পিসি সংস্করণের মত সুনাম নেই মজিলার। কারণ যথারীতি ধীর সেই ব্রাউজিং গতি। সিঞ্চ্রোনাইজেশন ব্যবস্থা আছে। আছে পিডিএফ তৈরির ব্যবস্থাও। কোন ডাটা সেভিং মুড নেই।

ডলফিন ব্রাউজার : স্মার্টফোনের জগতে ডলফিন ব্রাউজারও সমান জনপ্রিয়। এই ব্রাউজারটির ফিচার, ইন্টারফেস খুবই সুন্দর। সেই সাথে আছে গ্রেসার্স কন্ট্রোল সুবিধা। ডলফিন ব্রাউজারের আরেকটি সুবিধা হলো এটি পুরাতান ফ্লাশ সফটওয়্যারও সাপোর্ট করে। সুতরাং যেসব সাইট তাদের ফ্লাশ কন্টেন্ট আপগ্রেড করে না সেই সব সাইটে ভিডিও দেখতে বা ফ্লাশ কন্টেন্ট দেখতে কোন অসুবিধা হবে না। এর ব্রাউজিং স্পীডও তেমন খারাপ নয়। তাই ডলফিন ব্রাউজারও হতে পারে আপনার পছন্দের একটি ব্রাউজার।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬৬০ বার

Share Button

Calendar

December 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031