আনসারী ও হুজুগে বাঙ্গালি..?

প্রকাশিত: ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৯, ২০২০

আনসারী ও হুজুগে বাঙ্গালি..?


মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী

আনসারী সাহেব, আপনি একজন বিশিষ্ট আলেম ছিলেন। আপনাকে পেয়ে আমরা অনেক কিছু শিখেছিলাম জেনেছিলাম। এজন্য শুকরিয়া। আপনি মহান আল্লাহর ডাকে সাড়া দিয়ে রবের সান্নিধ্য নিয়েছেন। আল্লাহ আপনাকে ক্ষমা করে জান্নাতের উচ্চ মাকাম দান করুন। আমিন ।

আপনি হয়তো দেখতে পেয়েছেন আজ আপনার জানাযার নামাজে কারা অংশ নিয়েছে। কিন্তু আপনি তাদের উদ্দেশ্যে কিছু বলতে পারেন নি। কারণ আপনার সব কিছু বন্ধ হয়ে গেছে। আপ্নি এখন দুনিয়াদারির বাইরে ।

বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে জাতি আজ অসহায় অবস্থায় রয়েছে। জীবনের ঝুকি নিয়ে সরকারের নির্দেশে প্রশাসন, পুলিশ, সশস্ত্রবাহিনী, ডাক্তার, নার্স, সাংবাদিক, সেচ্ছাসেবী, মানবাধিকার কর্মীসহ সবাই কাজ করে যাচ্ছে কিভাবে এই করোনা ভাইরাস থেকে দেশের মানুষকে নিরাপদ রাখা যায়। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে লকডাউনসহ নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়ে কাজ করছে। কাজ করতে গিয়ে জীবন দিয়েছেন জাতির বীর সন্তানেরা। আক্রান্ত হয়েছেন দেশের অসংখ্য ডাক্তার, নার্স, পুলিশ, সাংবাদিকসহ অনেকে।

অথচ আজ মাওলানা আনসারী সাহেবের জানাযায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আনসারী ভক্ত নামক মানুষের লেবাসে ধর্মের নামধারী্রা ব্রাহ্মণ্যবাড়িয়ায় একত্রিত হয়ে জাতিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিল। এই মানুষদের কুলাঙ্গার বলায় অনেকে বিরূপ ধারণা নিতে পারেন তবে আমার কষ্ট লাগছে এর চেয়ে আরো খারাপ শব্দ ব্যবহার করতে পারছিনা বলে।

মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে দেশের মানুষকে নিরাপদ রাখতে বারবার বলা হচ্ছে ঘরে থাকার জন্য। দেয়া হয়েছে অনেক নির্দেশনা, মসজিদে নামাজ আদায়ে সীমাবদ্ধতা করা হয়েছে। পবিত্র রজনী (শবে বরাত) এও কোন জনসমাগম করতে দেয়া হয়নি কারণ নিজের জীবন ও দেশের কোটি কোটি মানুষের জীবনকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিতে ইসলাম সমর্থন করে না।

ইসলাম শান্তির ধর্ম, মানবতার ধর্ম যার মধ্যে সব কিছুর সমাধান রয়েছে। অথচ মাওলানা জুবায়ের আহমদ আনসারী সাহেবের জানাযায় যারা অংশগ্রহণ করে দেশকে বিপদের দিকে ঠেলে দিল তাদের কি বলবো ভেবে পাচ্ছি না।

আজকের এই জনসমাগম জানিনা কত মানুষের জীবন কেড়ে নিবে। অনেককে দেখলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খুব আনন্দিত হয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন লকডাউনও আটকাতে পারেনি। ইত্যাদি ইত্যাদি

আবার অনেকে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন কেন জনসমাগম টেকাতে পারলো না। পুলিশ প্রশাসন তাদের ব্যর্থতা স্বীকার করেছেন। যারা পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন তাদের কাছে প্রশ্ন করতে ইচ্ছে করছে যদি এমন হতো পুলিশ কঠোর অবস্থান নিত, প্রয়োজনে র‍্যাব, সশস্ত্রবাহিনীর সহযোগিতা নিয়ে জানাযায় একত্রিত হতে বাধা দিতে গিয়ে কিছু গুলি, কিছু টিয়ারশেল ব্যবহার করতো, লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করতো তখন আপনি কি বলতেন? এই জবাব গুলো থাকলে দিয়ে যাবেন।

আর যারা আজ জাতিকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিলেন তাদের এখন কি করা উচিত, কি করলে সংক্রমণ এড়ানো যাবে তাও জানিয়ে একটু লিখবেন।

পরিশেষে নিরাপদ নই, নিরাপদ থাকতে ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখুন।

Calendar

December 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

http://jugapath.com