» আবার কথিত বন্দুকযুদ্ধ নিহত ৩

প্রকাশিত: ০৩. আগস্ট. ২০১৯ | শনিবার

পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় ৩ জন ডাকাত নিহত হয়েছে।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, টেকনাফের নুরউল্লাহ ঘোনা পাহাড়ি এলাকায় শনিবার ভোর ৩টার দিকে গোলাগুলির ওই ঘটনা ঘটে।

নিহত মোহাম্মদ জুনায়েদ, মোহাম্মদ আয়ুব ও মেহেদী হাসান ‘চিহ্নিত ডাকাত’ এবং তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে কক্সবাজারের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

অন্যদিকে প্রতিপক্ষের গুলিতে ইমরান মোল্লা (২৭) নামে এক মাদক বিক্রেতা নিহত হয়েছে বলে পুলিশ জনিয়েছে।

ইমরান মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলার গিয়ারকুল এলাকার জহিরুল মোল্লার ছেলে।

ওসি প্রদীপ বলেন, টেকনাফের নুরউল্লাহ পাহাড়ি এলাকায় তালিকাভুক্ত শীর্ষ ডাকাত আব্দুল হাকিমসহ আরও ১০/১৫ জন ডাকাত ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় ডাকাতরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

এক পর্যায়ে জুনায়েদ, আয়ুব, মেহেদী ও মোস্তাককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মোস্তাক বাদে বাকিদের মৃত ঘোষণা করেন।

গোলাগুলির সময় পুলিশের চার সদস্য সদস্য আহত হয়। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে সাতটি দেশীয় বন্দুক, ২৫ টি গুলি ও পাঁচটি কিরিচ উদ্ধারের কথাও জানান ওসি।

এদিকে শনিবার ভোরে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের দরগাহ পাড়া এলাকায় ইয়াবা ব্যবসার লেনদেনের বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের গুলিতে ইমরান মোল্লা নিহত হন বলে ওসি প্রদীপ জানান।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থলের অদূরে পুলিশ সদস্যরা একটি অটোরিকশা দেখতে পেয়ে এগিয়ে যায়। এ সময় দুইজন লোক একজনকে গুলি করে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ ধাওয়া দিয়ে তাদের আটক করে। পরে গুলিবিদ্ধ ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতলে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় আটকরা হলেন- নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার পশ্চিম এনায়েতপুর এলাকার মোখলেছুর রহমানের ছেলে সাইফুদ্দিন খালেদ (৩৮) ও কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হাতিয়ার ঘোনা এলাকার মো. বাঁচা মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ সিদ্দিক (২৭)।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫০ বার

Share Button

Calendar

August 2019
S M T W T F S
« Jul    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031