শিরোনামঃ-


» উত্তরায় সাংবাদিক- মিডিয়া কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত: ২৭. জুলাই. ২০২০ | সোমবার


রাজধানীর উত্তরায় বিজিএমই এর সাবেক সভাপতি, এফবিসিসিআইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট বিশিষ্ট সমাজসেবক ও স্ট্যালিন ও লায়লা গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ সিদ্দিকুর রহমান এর পক্ষে সাংবাদিক-মিডিয়া কর্মীদের সাথে এক মতবিনিময় সভা ও ঈদ উপহার প্রদান করা হয়। উত্তরা মিডিয়া ক্লাবের উদ্যোগে ও উত্তরা প্রেস ক্লাবের সমন্বিত ব্যবস্থাপনায় ছিল এই আয়োজন।
রবিবার সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় উত্তরা প্রেসক্লাব প্রাংগণে উত্তরার সাংবাদিক-মিডিয়া কর্মীদের সাথে বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমই) সাবেক সভাপতি, এফবিসিসিআইয়ের বর্তমান ভাইস প্রেসিডেন্ট সিদ্দিকুর রহমান এর পক্ষে এক মতবিনিময় সভা ও ঈদ উপহার প্রদান করা হয়। উত্তরা মিডিয়া ক্লাবের উদ্যোগে ও উত্তরা প্রেস ক্লাবের সমন্বিত ব্যবস্থাপনায় ছিল এই আয়োজন। মতবিনিময় সভায় উত্তরা প্রেসক্লাবের সভাপতি সেলিম কবির এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উত্তরা মিডিয়া ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. শরিফুল ইসলাম খান ।মোঃ সিদ্দিকুর রহমান এর পক্ষ থেকে সাংবাদিক-মিডিয়া কর্মীদের সাথে মতবিনিময় করেন গোলাম মাকসুদ ও মন্টু সাহা। সাংবাদিক এইচ আর হাবিব এর সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বক্তব্য বক্তব্য রাখেন, উত্তরা মিডিয়া ক্লাবের পক্ষে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এসোসিয়েশনের নির্বাহী সভাপতি সাংবাদিক সৌমিত্র দেব। শরিফুল ইসলাম খান বলেন, এমন মহত্ত্ব সবাই দেখাতে পারে না। যা সিদ্দিক সাহেব দেখিয়েছেন। তিনি মিডিয়া কর্মীদের জন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন। তার কারণে আমরা একত্রিত হয়েছি।

গোলাম মাকসুদ বলেন, জনাব সিদ্দিকুর রহমানের সমাজ সেবার নানান দৃষ্টান্ত তুলে ধরেন। একেবারেই প্রচার বিমূখ মানুষ জনাব সিদ্দিকুর রহমান। তিনি আপনাদের কলমের সাথে পরিচিত হ’তে চান। তিনি মনে করেন, মানুষ মানুষের কল্যাণে না এলে হয় কি করে। আমাদের প্রত্যাকটি মানুষের একটি দায় আছে অন্যের প্রতি দ্বায়িত্ব পালনে। সেই কাজটি করে যেতে চান তিনি। এবং ইতিমধ্যে তা করেও যাচ্ছেন। মন্টু সাহা বলেন,” আমাদের এই মত বিনিময়ের কোন উদ্দেশ্য নেই, শুধু সিদ্দিকুর রহমান সাহেবের পক্ষে শুভেচ্ছা বিনিময় ছাড়া অন্য কিছু নয় “। সংবাদ কর্মীদের মধ্যে একটু গুঞ্জন শুরু হয়, সিদ্দিক সাহেব ঢাকা ১৮ আসনে সংসদ নির্বাচন করবেন কি না। তার প্রতিনিধিরা তা ভবিষ্যতের উপর ছেড়ে দেন। তারা বলেন আজ আমরা এসেছি শুভেচ্ছে বিনিময়ের জন্য। এখানে প্রচার প্রচারণা কোন উদ্দেশ্য নয়। উল্লেখ্য যে, আওয়ামী লীগ সভাপতিম-লীর সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে শূন্য হয়েছে ঢাকা-১৮ আসন। নির্বাচনের দিন-তারিখ নির্ধারণ না হলেও থেমে নেই নির্বাচনী প্রচার। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ইতোমধ্যে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের অনুসারীরা নানাভাবে প্রচার চালাচ্ছেন। কেউ কেউ প্রার্থিতা জানান দিতে নানা ইস্যুতে পোস্টার প্রদর্শন করে যাচ্ছেন নির্বাচনী এলাকায়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৪৯ বার

Share Button