শিরোনামঃ-


» কক্সবাজারকে মাদক মুক্ত করে ছাড়ব : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০২. জানুয়ারি. ২০১৬ | শনিবার

এসবিএন ডেস্ক: দেশের একপ্রান্ত কক্সবাজার থেকেই শুরু হয়েছে দেশব্যাপী মাদক বিরোধী অভিযান ও প্রচারণা কর্মসূচি। নতুন বছরের দ্বিতীয় দিন আজ শনিবার আনুষ্ঠানিকভাবে মাস ব্যাপী এই কর্মসূচি শুরু করা হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল কর্মসুচি উদ্বোধন করে বলেন- ‘দ্রুত বদলে যাচ্ছে কক্সবাজার। আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর হচ্ছে এখানে। কক্সবাজারই হচ্ছে আন্তর্জাতিক মানের একটি ট্যুরিজম শহর। তাই মাদকমুক্ত এলাকা ঘোষণার জন্যই এই সীমান্ত শহর কক্সবাজার থেকে মাস ব্যাপী মাদক বিরোধী অভিযান শুরু করা হচ্ছে। এই কক্সবাজারকে মাদক মুক্ত করে ছাড়ব।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশে বর্তমানে ব্যাপকভাবে প্রচলিত মাদকের সর্বশেষ ব্রান্ড ‘ইয়াবা’র চালান সবচেয়ে বেশী পাচার হয়ে আসছে মিয়ানমার থেকে এটা সবারই জানা। এর আগে ইয়াবা পাচার রোধে কক্সবাজার সীমান্তে কঠোর পদক্ষেপও নেয়া হয়েছিল। এরকম পদক্ষেপ নেয়ার পর কিছুদিন পরিস্থিতির উন্নতি হলেও পরবর্তীতে আবারো একই অবস্থার সৃষ্টি হয়।

তাই এবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, মাদক পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপের পাশাপাশি সারাদেশে মাদকের কুফল নিয়ে গণসচেতনতাও সৃষ্টি করা হবে।

স্কুল শিক্ষক এবং মসজিদের ইমাম সহ সমাজের সকল শ্রেণীর লোকদেরই এগিয়ে আসতে হবে মাদক বিরোধী প্রচারণায়।

মাদকের কুফল প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, ঐশির মত অনেক মাদকাসক্ত সন্তানের ভুক্তভোগি অভিভাবক আমাকে অনুরোধ করেন সন্তানদের সেভ কাষ্টডিতে রাখার জন্য। আমি বলি, সেভ কাষ্টডিতে সন্তানদের রাখা কোন সমাধান হতে পারে না।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশে অর্ধশতাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগটন মাদকাসক্তদের পূণর্বাসন কেন্দ্র নিয়ে কাজ করছে। তিনি সরকারি-বেসরকারি এসব কেন্দ্রে সেবা দিয়ে মাদকাসক্তদের বদভ্যাস ছাড়তে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

কক্সবাজার বিয়াম মিলনায়তনে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর আয়োজিত এ অনুষ্টানে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন সভাপতিত্ব করেন।

সভায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমান, চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিচালক ফজলুর রহমান, কক্সবাজার জেলা পরিষদ প্রশাসক মোসতাক আহমদ চৌধুরী, কোষ্টগার্ড চট্টগ্রাম জোনাল কমান্ডার এম শহিদুল ইসলাম, কক্সবাজারের ৪ জন এমপি যথাক্রমে মোহাম্মদ ইলিয়াছ, আশেক উল্লাহ রফিক, সাইমুম সরওয়ার কমল ও আবদুর রহমান বদি এবং কক্সবাজারের পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ বক্তৃতা করেন।

এর আগে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে মাদক বিরোধী এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। র‌্যালীতে নেতৃত্ব দেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমান।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৯২ বার

Share Button