শিরোনামঃ-


» চন্দনকৃষ্ণ পাল এর গুচ্ছ কবিতা

প্রকাশিত: ০৭. ডিসেম্বর. ২০১৯ | শনিবার

এক সন্ধ্যা থেকে অন্য সন্ধ্যায়

আমাদের দিন ছিলো স্বর্ণ রঙিন, আজ ভাবি
তামাবিল রোড ছিলো সত্যি মধুময়
মুলিবাঁশ বনে ছিলো ধূয়োর কুন্ডলী
তার মাঝে তুমি ছিলে তীব্র কুয়াশা।

কুয়াশাই বলি আজ, রহস্য তো ছিলো সেই কালে
আমিও বেকুব এ জড়িয়ে নিয়েছি তোমায়
উপভোগ তুমিই করেছো আর আমি শুধু সায় দিয়ে গেছি
আজ তাকালে দেখি অভিনয়ে সত্যি তুমি সেরা।

আমি দর্শকমাত্র সে নাটকে, কুশীলব আরে কেউ কেউ
তারা আড়ালে ছিলো, ঝোঁপ শুধু নড়ে গেছে একা
নিজের আনন্দে মেতেছি আমি আর কারে পাইনি তো দেখা
চাইনিও, বিশ্বাসে মিলিয়ে গেছে সেই সব দিন, আজ-

বিপন্ন বসতিতে তোমার ছায়াও নেই, সন্ধ্যে নামে
ধীর পায়ে, প্রদীপ জ্বলেনা আজ, তুলসীতলা একা
দীর্ঘশ্বাস ছাড়ে শুধু আর বলে এমন হতেই পারে-
তাই বলে খোলা মাঠে বসে বসে সন্ধ্যে দেখবে তুমি.

আমি নিরব থাকি, উত্তর দেবার ইচ্ছে উবে যায় গাঢ় আঁধারে।

ভবঘুরে বয়ান

মাত্র একটা চৌকোনা আলো দেখে বুঝে ফেলি
ওখানে বসতি নেই, উদ্বোধন আছে আরো বাকি

বড় মানুষেরা খুব ব্যস্ত থাকে, আমি তো ভবঘুরে
আমার ব্যস্ততা নেই, পার্কের বেঞ্চিতে চিৎ হয়ে
শুয়ে থেকে আকাশ দেখার মজা দিব্যি নিতে পারি
কিংবা পূর্ণ চন্দ্রালোকে আকাশের রুপ দেখা
ভাগ্যে জোটে যার, তার একজন এই আমি, -আমাকে
ভাগ্যবান বলবেনা তুমি?

তোমার নিটোল মুখশ্রী, আর টোলপড়া হাসি থেকে
কতজন ভবঘুরে হলো সে হিসেব রাখনি জেনেও
অভিশাপ দেইনি আমি অদ্যাবধিও
কিছু কিছু ভবঘুরে হিসেব করে শুধু টোলপড়া হাসি
বাঁকা দাঁত আর গভীর চোখের চাহনী-
এই তথ্য কখনোই জানবে না তুমি!

ভালবাসা?

টোলপড়া গাল আর হাসি
ভালবাসি শুধু ভালবাসি
টানাটানা চোখে দুট আর
জোড়া ভুরু, নাকে নথ তার।
দেখলেই মন খুলে হাসে
দাঁতের ঝিলিক সেই ক্ষণে
ভালবাসা আছে তার মনে?

তোমার কৃষ্ণচূড়া দিন

তোমার শশীলজের দিন নেই,
শ্বেতপাথরেরর ঘাটলায় পা ডুবানো দিন নেই
ব্রহ্মপুত্রের জলে দীঘল চোখের এই ক্লান্তিহীন চাহনীও নেই।

যুগল কৃষ্ণচূড়ার ডালে এখনও কলকাকলীতে মাতে পাখি
তোমাদের কলকাকলী হারিয়ে গিয়েছে জানি দূরে
গ্যাসের চুলো থেকে কেরোসিন স্টোভ পর্যন্ত
চলাচলে দিনের সময়টুকু কাটে,
সন্তানে স্কুল ড্রেস, হোমওয়ার্ক, অনলাইন ব্যাংক কাউন্টারে
মাসের বেতন নিয়ে ছুটোছুটি
পরিবার সঞ্চয়পত্রের সুদের হিসাব-
পোষ্টমাষ্টারের পঞ্চাশ একশ টাকার আবদারও
হাসিমুখে মেনে নিতে হয়….।

মেনে নিতে নিতে শশীলজ এর মুর্তিটা আবছা হয়ে যায়
ঘাটলার মার্বেলের শ্যাওলায় জমজমাট দিন
যুগল কৃষ্ণচূড়ায় বার্ধক্যের হাতছানি
সাথে তোমার দুচোখে ক্লান্তির ঘুম…।

তোমার দিনরাত্রি,আমার ভাবনায়
চন্দনকৃষ্ণ পাল
না, আজকাল ওসব ভাবি না আর…।

অস্থির সূর্যাস্তের লাল আলো অন্ধকারে পর্যবসিত হবে
নবীণেরা ভাবে না তোÑ ভাবে না।
পূর্ণিমার পরই অমাবস্যা তার অন্ধকার জিভ নিয়ে আসে
চেটে নেয় সব আলো, সব-
শকুন শিশুর কান্না তখন বেড়েই চলে
আর ভয়াল ছবির ধারা চিত্র ক্রমশ নিস্ব করে তারার আলোকে।

না, আজকাল ও সব ভাবি না আর,
তুমি তো দুগ্ধফেননিভ শয্যায় শুয়েই আছো,
তোমার দিন-রাত্রি আজ আর আমিময় নয়!
অতএব….।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৬৩ বার

Share Button

Calendar

September 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930