জনগণের সেবা করতে চান গাজী নাছরীন আক্তার নাজ

প্রকাশিত: ১২:৫২ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯

জনগণের সেবা করতে চান গাজী নাছরীন আক্তার নাজ


ওমর ফারুক ঃ
গায়ে কালো রংয়ের গাউন, হাতে মক্কেলদের কাগজের ফাইল, চোখে মুখে মানব সেবার ছাপ। বাংলাদেশ সুপ্রীপ কোর্ট থেকে শুরু করে আইনের যুক্তি তর্কের মাধ্যমে যিনি প্রতিনিয়ত লড়াই করছেন মানুষের জন্য। তিনি এবার জাতীয় সংসদের আইন প্রনেতাদের দলের একজন সদস্য হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করতে চান। তিনি আর কেউ নন। গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়ার হরিনাহাটি গ্রামের মেয়ে গাজী নাছরিন আক্তার (নাজ) স্বামী, মাতা-পিতা ও নিজের পেশাগত কারনে বসবাস এখন ঢাকার আশুলিয়ায়। শিক্ষার্থী থাকাবস্থায়ই রাজনীতিতে পদার্পন হলেও প্রচার বিমূখ এই নারী থেকেছেন সর্বদাই লোক চোখের আড়ালে। শিক্ষাজীবনের সম্পন্ন করেই আইন পেশাকে বেচে নেন। আইন পেশার পাশাপাশি জাতির পিতার আদর্শে গড়া আওয়ামীলীগের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। সক্রিয় হয়ে ওঠেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবি পরিষদ ও মহিলা আওয়ামী আইনজীবি পরিষদের একজন কর্মী হিসাবে। আওয়ামীলীগের বিভিন্ন কর্মসূচীসহ জাতীয় দিবসে জাতীয় রাজনীতিবিদদের সাথে সামিল হয়ে পালন করেন এসব কর্মসূচী। দেশের সুবিধা বঞ্চিত নারীদের নিয়ে কাজ করার মানসে একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের একজন প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্তির আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

গাজী নাছরিন আক্তার নাজ এই প্রতিবেদককে বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে নিজেকে একজন প্রার্থী হিসাবে ঘোষনার কারন জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যা মানবতার নেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শকে বুকে লালন করেই উন্নত বাংলাদেশ গড়ার একজন কর্মী হতে চাই। আমি আমার কর্মজীবন থেকে শুরু করে ব্যাক্তি জীবনেও আওয়ামীলীগের আদর্শের বাইরে কোন কাজ করিনি। স্বাধীনতার পক্ষের সকলকে আমি সম্মান ও শ্রদ্ধা করি।
আইন পেশায় থেকেও তো দেশ ও জনগনের সেবা করা যায়, এমপি হতে চাইছেন কেন এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, আপনারা জানেন কিনা আমি জানি না। আমি শুধু একজন আইনজীবি নই। আমার লেখা ১৯৯৭ সালে ‘মেঘের অড়ালে’ ও ২০০৯ সালে ‘এতোদিন কোথায় ছিলাম, কোথায় ছিলে’ এই দুটি কবিতা প্রকাশিত হয়েছে।
এছাড়াও ২০১০ সালে ‘লুকিয়ে থাকার এক রাত’ নামে একটি কিশোর গল্পের বই প্রকাশিত হয়েছে। আইনজীবি ও লেখক হয়ে মানুষের সেবা করা যায় সত্যি, একজন সংসদ সদস্য হয়ে আইন প্রনয়নকারী দলের সদস্য হতে পারলে আইনের মাধ্যমে দেশ ও দেশের মানুষের সেবা করার ক্ষেত্র আরো সুপরিসর করা যায়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

December 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

http://jugapath.com