শিরোনামঃ-


» ‘জনরায়’ প্র‌তিষ্ঠায় জাতীয় ঐ‌ক্যে গ‌ড়ে তোলার আহ্বান: ফখরুল

প্রকাশিত: ১৭. ডিসেম্বর. ২০১৭ | রবিবার

রোববার বিকেলে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত বিজয় র‌্যালীর উ‌দ্বোধনকালে, নিরপেক্ষ সরকা‌রের অধী‌নে নির্বাচ‌নে ‘জনরায়’ প্র‌তিষ্ঠায় জাতীয় ঐ‌ক্যে গ‌ড়ে তোলার বিএন‌পি মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত র‌্যালীটি রাজধানীর নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে র‌বিবার বি‌কেল ৩ টায় শুরু করে বিএনপি। বিজয় র‌্যালিতে অন্যদের মধ্যে অংশ নেন ‌বিএন‌পির স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গ‌য়েশ্বর চন্দ্র রায়, খান,‌ আ‌মির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, অ্যাড‌ভো‌কেট আহমদ আযম খান, ‌চেয়ারপারসন খা‌লেদা জিয়ার উপ‌দেষ্টা প‌রিষদ সদস্য আমান উল্লাহ আমান,‌ হা‌বিবুর রহমান হা‌বিব, আব্দুস সালাম, সি‌নিয়র যুগ্ম মহাস‌চিব রুহুল ক‌বির রিজভী, যুগ্ম মহাস‌চিব সৈয়দ মোয়া‌জ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল ক‌বির খোকন, হা‌বিব উন নবী খান সো‌হেল।

তি‌নি বলেন, ‘স্বাধীনতার ৪৭ বছ‌রেও আমা‌দের মু‌ক্তিযু‌দ্ধের অ‌ভিষ্ট স্বপ্ন পূরণ হয়‌নি। এখ‌নো গণতা‌ন্ত্রিক আ‌ন্দোলন করতে গিয়ে প্রাণ দিতে হচ্ছে। গুম করে দেয়া হ‌চ্ছে। মিথ্যা মামলা দি‌য়ে নানানভাবে হয়রা‌নি করা হ‌চ্ছে। তাই বিজয় র‌্যালিতে আহ্বান জানা‌চ্ছি, আসুন বর্তমান ক্ষমতাসীন ফ্যা‌সিস্ট সরকারের বিদায় ঘ‌টিয়ে এক‌টি নিরপক্ষে সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনরায় প্র‌তিষ্ঠায় জাতীয় ঐক্যের সৃ‌ষ্টি করে রুখে দাড়াই, প্র‌তিরোধ গড়ে তুু‌লি। বিজয় র‌্যালির মাধ্যমে গণতন্ত্রের দা‌বিকে আরো বেগমান ক‌রি।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বাংলাদেশ‌কে এক‌টি কারাগারে প‌রিণত করা হয়েছে। তাই গণতন্ত্র ও দে‌শের মানুষকে মুক্ত করতে আমাদেরকে কারাগার ভাঙতে হবে। আমরা চাই আগামী প্রজন্ম যাতে এক‌টি গণতা‌ন্ত্রিক প‌রিবেশে বেড়ে উঠে। কারণ বর্তমান সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে একদলীয় শাসন কায়েম করতে প্র‌ক্রিয়া প্রায় সম্পূর্ণ করেছে। তারা আমা‌দের পদদ‌লিত কর‌তে চায়। দৃঢ়তার সা‌থে এক‌টি কথা উচ্চারণ কর‌ছি, বাংলাদে‌শের মানুষ‌কে পদদ‌লিত ক‌রে ধা‌বি‌য়ে রাখা যা‌বে না।’

‌তি‌নি ব‌লেন, ক্ষমতাসীনরা মিথ্যা মামলা দি‌য়ে বিএন‌পির চেয়ারপারসন খা‌লেদা জিয়া‌কে হয়রা‌নি কর‌ছে। দ‌লের সি‌নিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তা‌রেক রহমান‌কে নির্বা‌সিত করা হ‌য়ে‌ছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩০০ বার

Share Button