» ঢাকা সিটি নির্বাচন নিয়ে ‘জনগণের মধ্যেও’ সংশয় আছে ঃ বিএনপি

প্রকাশিত: ২৭. ডিসেম্বর. ২০১৯ | শুক্রবার

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে ‘জনগণের মধ্যেও’ সংশয় আছে বলে মনে করেন
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ।
তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের ওপর শুধু আমাদের নয়, এদেশের কোনো মানুষের আস্থা নাই। এরপরও আমরা জেনেশুনে বিষ পান করছি।
শুক্রবার শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর এ কথা বলেন গয়েশ্বর ।
এর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেন, আমরা নির্বাচনে গেলেও সামালোচনা হয়, আবার না গেলেও সমালোচনা হয়। তাই সবাই অপেক্ষা করেন নির্বাচন কমিশনের শেষ পদক্ষেপের জন্য। আর একটা সময় আসবে যখন এই নির্বাচন কমিশনের দিক থেকে আপনার মুখ ফিরিয়ে নেবেন, তখন আমরাও মুখ ফিরিয়ে নেব এবং কোনো নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না।

সিটি নির্বাচনের আবহাওয়া কেমন দেখছেন জানতে চাইলে গয়েশ্বর বলেন, সিটি করপোরেশনের নির্বাচন নিয়ে কোনো আবহাওয়া তৈরি হয় নাই। ফরম বিক্রি, জমা দেওয়ার জন্য বিএনপি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটা আবহাওয়া তৈরি হতে পারে। সাধারণ মানুষের মধ্যে কোনো আগ্রহ ফিরে আসে নাই।
যেহেতু জনগণ ভোট দিতে পারে না, সেই কারণে কোনো নির্বাচনে তাদের আগ্রহ দেখা যায় না। জনগণের মধ্যে যদি কোনো আগ্রহ না থাকে, তাহলে সেই নির্বাচন আর নির্বাচন হয় না।

নির্বাচন থেকে বিএনপির প্রত্যাশা কী- এ প্রশ্নে গয়েশ্বর বলেন, আমরা এই নির্বাচনে কী আশা করছি? আমরা নিকট অতীতে যা দেখেছি, তার প্রতিচ্ছবি দেখব। নির্বাচনে জনগণ স্বতস্ফূর্থভাবে উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে ভোট দেবে- সেটা আশা করা যাচ্ছে না।

তাহলে কেন বিএনপি নির্বাচনে যাচ্ছে? এর জবাবে গয়েশ্বর বলেন, গণমাধ্যমের মনতুষ্টির জন্য নির্বাচনে যাচ্ছি।
আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোটের দিন রেখে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে জানিয়েছে, সবকেন্দ্রেই ভোটগ্রহণ হবে ইভিএমে।

বরাবরই ইভিএম নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসা বিএনপি নেতাদের সন্দেহ, যন্ত্রে ভোটগ্রহণ হলে ‘ম্যানিপুলেট’ করার এবং ফলাফল ‘নিয়ন্ত্রণ’ করার সুযোগ থেকে যাবে। তবে নির্বাচন কমিশন বরাবরই বলে এসেছে, ইভিএমে বরং কারচুপির সুযোগ কমবে।

এ বিষয়ে এক প্রশ্নে গয়েশ্বর বলেন, সাধারণ মানুষ ও ভোটারদের ইভিএমের প্রতি কোনো আগ্রহ নাই। কারণ তথ্য প্রযুক্তির বিষয়ে মানুষের ধারণা নাই। প্রধান নির্বাচন কমিশনার জেদ করেছেন জনগণকে ইভিএম গেলাবেন।

জনগণের বাইরে যখন নির্বাচন কমিশন কোনো কিছু জেদ করে চাপাইয়া দেয়, তখন বুঝতে হবে, এই ইভিএমেরে পেছনে অনেক রহস্য আছে।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের অধীনে এবারের সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলে মনে করেন কি না- এই প্রশ্নে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, এটাকে তো নির্বাচন কমিশনই বলা যায় না। এটা হল সরকারের ইচ্ছা বাস্তবায়নের একটি প্রতিষ্ঠান। তাই এটাকে নির্বাচন কমিশন বলা হলে নির্বাচন কমিশনের প্রতি বিদ্রুপ করা হবে।

বিএনপির সাংস্কৃতিক সংগঠন জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা জাসাসের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এদিন সংগঠনটির নেতাকর্মীদের নিয়ে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, জাসাসের সভাপতি অধ্যাপক মামুন আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক হেলাল খানসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৩৩ বার

Share Button

Calendar

April 2020
S M T W T F S
« Mar    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930