শিরোনামঃ-


» দীঘা সমুদ্র সৈকতে সি সাইড আর্ট ক্যাম্প

প্রকাশিত: ২৭. জানুয়ারি. ২০১৯ | রবিবার

২৩শে জনুয়ারি । প্রথমবারের মত পশ্চিমবঙ্গের দীঘা সমুদ্র সৈকতে বি এম ফাইন আর্ট এর পরিচালনায় শুরু হলো ইন্টারন্যাশনাল সি সাইড আর্ট ক্যাম্প। রাশিয়া, বাংলাদেশ, নেপাল থেকে বহুু শিল্পীরা সেখানে অংশগ্রহণ করে ।

এছাড়াও মুম্বাই, জামশেদপুর, কলকাতার মত নানান জায়গা থেকে আসে চিত্রশিল্পীরা। অনুষ্ঠানের সূচনা করেন জেলা প্রশাসক ড: রস্মি কমল । প্রদীপ প্রজ্বলন এর মাধ্যমে বক্তব্যে বলেন, দীঘায় ক্যাম্প করায় সাধারণ মানুষ যেমন খুশি তেমনি আগত পর্যটক সহ শিল্পীরাও খুব খুশি।

আগামীদিনে যাতে এই কর্মসূচিকে আরো বড় করা যায় তার জন্য অবশ্যই প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাহায্য করবেন। সেই সঙ্গে বিষ্ণু মাইতি কে এই কর্মসূচির আয়োজন করার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান এবং নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বোসের একটি মূর্তি উন্মোচন করেন। এরপর বিদেশি শিল্পীরা নিজেদের বক্তব্য রাখেন। প্রত্যেকের বক্তব্যে বলেন ভারতের এসে এই বাংলায় সবার খুব ভালো লেগেছে এবং নিজ দেশে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। এই অনুষ্ঠানে আসা প্রত্যেক শিল্পিকেই সম্বর্ধনা জানানো হয়।

তিন দিনের এই আর্ট ক্যাম্পে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ছাড়াও ছিল আর্টের ওপর বিশেষ প্রশিক্ষণের ব্যবস্থাও। প্রশিক্ষণ দিতে উপস্থিত ছিলেন ভিটালি ভাসিলিভ (রাশিয়া), নার্গিস সোমা (বাংলাদেশ), ইরিনা দেসিভকায়া (রাশিয়া), শ্রেয়াংসী মানু (জয়পুর), শ্যামসুন্দর যাদব (নেপাল), অরুন কুমার চক্রবর্তী (কলকাতা),পৃথ্বীরাজ সেনের মতো বিখ্যাত আর্ট শিল্পীরা।

তিন দিনের এই আর্ট প্রশিক্ষণে প্রায় ৭০ জন অংশগ্রহণ করেন। আর্ট প্রশিক্ষণ, এগজিবিশন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সব মিলিয়ে তিন দিনের এই ইন্টারন্যাশনাল সি সাইড আর্ট ক্যাম্পে জমজমাট হয়ে ওঠে সমগ্র ওল্ড দিঘার সি বিচ চত্বর। জলরং, তৈলচিত্র প্রভৃতির মতো নানা ধরনের বিশেষ বিশেষ চিত্র নিয়ে এখানকার এই ক্যাম্পে সুদূর বাংলাদেশ,রাশিয়া থেকে আর্ট শিল্পীরা অংশগ্রহণ করেন।

সমগ্র এই ইন্টারন‍্যাশনাল সি ইসাইড আর্ট ক্যাম্পের আয়োজন করে স্থানীয় বি এম ফাইন আর্ট এন্ড কালচার নামক এক বেসরকারি সংস্থা। সংস্থার কর্ণধার বিষ্ণু মাইতি জানান, আমাদের এই তিন দিনের ক্যাম্পে স্থানীয় মানুষ ও পর্যটকদের মধ্যে ব‍্যাপক সাড়া পেয়েছি। আগামী দিনে আমাদের কাঁথি মহকুমার মধ্যে একটি আর্ট কলেজ তৈরি করার চিন্তাও রয়েছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬১৮ বার

Share Button