» দৃঢ় প্রত্যয়ী আবদুল মোমেন অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর জোর দেবেন

প্রকাশিত: ০৮. জানুয়ারি. ২০১৯ | মঙ্গলবার

সৌমিত্র দেব

২০১৯ সালে গঠিত শেখ হাসিনা সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আবদুল কালাম আবদুল মোমেন একজন দৃঢ় প্রত্যয়ী মানুষ । তার সঙ্গে আমার প্রথম দেখা হয়েছিল সিলেট শহরে তার পৈতৃক নিবাস হাফিজ কমপ্লেক্সে । রেডটাইমসের জন্য দীর্ঘ সাক্ষাতকার নিয়েছিলাম তার ।তিনি বলেছিলেন সিলেটের সোনালী অতীত ও জাতিসংঘে তার সাফল্য নিয়ে । বিশেষ করে আন্তর্জাতিক অঙ্গণে ইতিবাচক বাংলাদেশকে তুলে ধরতে চান তিনি । মনে হয়েছিল , পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলে ভাল কাজ দেখাতে পারবেন তিনি। তাকে বলেছিলাম ও সেকথা । মৃদু হেসে তিনি বলেছেন, নেত্রী চাইলে তা সম্ভব ও হতে পারে । তার কিছুদিন পর অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ঘোষনা দিলেন ,তিনি আর সিলেট থেকে নির্বাচন করবেন না । ছোটভাই আবদুল মোমেনের জন্য ছেড়ে দেবেন আসন । তখন বুঝলাম,গন্তব্যের দিকে অনেকখানি এগিয়ে গেছেন মোমেন । এরপর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঠিক আগের রাতে তার সঙ্গে দেখা করতে হাফিজ কমপ্লেক্সে গেলাম । আমার সঙ্গে ছিলেন সিলেট মিডিয়ার প্রতিষ্ঠাতা আহমেদ বকুল ও পরাশর দেব । গিয়ে দেখলাম, সেখানে প্রচন্ড ভিড় ।আবদুল মোমেন সাহেব বললেন , তিনি জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী । মন্ত্রী হবার পরপরই সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ভাই অর্থনৈতিক কূটনীতির কথা বলেছেন । বলেছেন, ২০২১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে এবং ২০৩০ সাল নাগাদ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নের জন্য তিনি অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর জোর দেবেন।
এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ২০২১ সাল নাগাদ বাংলাদেশকে একটি উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করা এবং ২০৩০ সাল নাগাদ সকল উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করাসহ প্রধানমন্ত্রীর আকাঙ্খা অনুযায়ী বিভিন্ন ভিশন বাস্তবায়ন এবং এর কাজ ত্বরান্বিত করতে অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর বেশি জোর দেয়াই হবে আমার মূল লক্ষ্য । এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে বঙ্গবন্ধু সরকারের আমলে আব্দুস সামাদ আজাদ এই অর্থনৈতিক কূটনীতির কথা বলেছিলেন । অর্থনীতিতে পিএইচডি ডিগ্রিধারী ড. মোমেন সেখানে আরো বেশী সাফল্য দেখাতে পারবেন এই আশাবাদ তো রাখতেই পারি ।
নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন ২০৪০ সাল নাগাদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে এবং পরবর্তী একশ’ বছরে ডেল্টাপ্লান বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যাশার কথাই তুলে ধরেছেন।
আলোচিত রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে তিনি ভাবছেন । তিনি বলেন, ‘এটা একটা বড় বিষয়। এই সংকট নিরসনের উপায় খুঁজে বের করতে প্রথমে আমাকে সমস্যাটা বুঝতে হবে।’
ড. আবদুল কালাম আবদুল মোমেন নিউইয়র্কে জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত এবং বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। একই সঙ্গে তিনি চিলি ও পেরুর রাষ্ট্রদূতের দায়িত্বও পালন করেন।
ড. মোমেন বোস্টনে নর্থওয়েস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে পিএইচডি এবং ব্যবসায় প্রশাসনে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় (কেমব্রিজ) থেকে জনপ্রশাসন, জননীতি ও আন্তর্জাতিক অর্থনীতি বিষয়ে এমপিএ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি, ডেভেলপমেন্ট ইকোনমিতে এমএ ও বিএ (অনার্স) ডিগ্রি লাভ করেন।
ড. মোমেন মেরিম্যাক কলেজ, সালেম স্টেট কলেজ, নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুসেটস এবং হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির কনেডি স্কুল অফ গভর্নমেন্ট-এ অর্থনীতি এবং ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে শিক্ষকতা করেন।
তিনি ২০১০ সালে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ইউনিসেফের নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৬৭ তম অধিবেশনে ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট ছিলেন।
ড. মোমেন ২০১৪ সালে দক্ষিণ-দক্ষিণ সহযোগিতা বিষয়ে জাতিসংঘের উচ্চ পর্যায়ের কমিটির সভাপতি ছিলেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৩৭ বার

Share Button

Calendar

March 2019
S M T W T F S
« Feb    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31