» দেশজুড়ে শুরু হয়ে গেছে সেনাবাহিনী মোতায়েন

প্রকাশিত: ২৪. মার্চ. ২০২০ | মঙ্গলবার

দেশজুড়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন শুরু হয়ে গেছে ।
নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা করতে মঙ্গলবার সকাল থেকে কাজে নেমেছেন তারা ।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পরিচালক আব্দুল্লাহ ইবনে জায়েদ জানিয়েছেন , সেনা মোতায়েন শুরু হয়েছে। আজ কোনো কোনো জায়গায় হচ্ছে। আগামীকাল (বুধবার) কোনো কোনো জায়গায় মোতায়েন হবে।

স্থানীয় প্রশাসনকে সহয়োগিতায় মঙ্গলবার বিভিন্ন জেলায়-উপজেলায় ‘রেকি’ করা হবে। কী কী প্রয়োজন এবং কীভাবে সমন্বয় করা হবে তা নির্ণয় করা হবে? কোথায়ও ক্যাম্প স্থাপন করার দরকার হলে তা স্থাপন করা হবে।

বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ে প্রয়োজনে মেডিকেল সহায়তাও সেনাবাহিনী দেবে বলে তিনি জানান।

মঙ্গলবার থেকে বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে প্রশাসনকে সহায়তার জন্য সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্তের কথা আগের সংবাদ সম্মেলনে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে সামাজিক দূরত্ব ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুবিধার্থে সেনাবাহিনী প্রশাসনকে সহায়তায় নিয়োজিত হবে। জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের সমন্বয়ে তারা জেলা ও বিভাগীয় করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা, সন্দেহজনক ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা পর্যালোচনা করবে।

সেনাবাহিনী বিশেষ করে বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের কেউ নির্ধারিত কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক সময় পালনে ত্রুটি বা অবহেলা করছে কি না, তা পর্যালোচনা করবে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে ফরিদপুরের প্রশাসনের সহায়তায় ঢাকার সাভার সেনানিবাস থেকে সেনাবাহিনীর একটি দল ফরিদপুরে পৌঁছেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে পৌঁছেই দলটির নেতা সাভার সেনানিবাসের ২৮ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাসুদ পারভেজ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জরুরি সভায় যোগ দেন।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার, সিভিল সার্জন ডা. সিদ্দিকুর রহমান, পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামানসহ স্বাস্থ্য বিভাগ, ফায়ার সার্ভিস ও অন্যান্য দ্বায়িত্বশীল কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

ফরিদপুরে হাট-বাজারসহ জনসমাগমস্থলে জনচলাচল সীমিত করার জন্য জেলা প্রশাসন থেকে গণবিজ্ঞপ্তি জারির পর জনচলাচল কমে গেছে। অফিস-আদালত পাড়ায় সাধারণ মানুষের উপস্থিতি কমে গেছে। রাস্তাঘাটে অন্যান্য সময়ের তুলনায় সাধারণ মানুষের উপস্থিতি কমে গেছে।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ফরিদপুরে বিদেশফেরতের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৫ হাজার ৭৭৩ জন। এর মধ্যে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ২ হাজার ৫২৩ জনের বিষয়ে খোঁজ নিয়েছেন তারা।

পুলিশ সুপার বলেন, এখন ১ হাজার ২৭০ জন হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। হোম কোয়ারেন্টিনের নির্ধারিত সময় পার করেছেন ২ হাজার ৩১৬ জন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২১০ বার

Share Button

Calendar

September 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930