» দেশে ঢুকেছে পচা পেঁয়াজ

প্রকাশিত: ২১. সেপ্টেম্বর. ২০২০ | সোমবার

বিশেষ প্রতিনিধি

দেশে ঢুকেছে পচা পেঁয়াজ । সীমান্তের ওপারে টানা ৪ দিন আটকে থাকা আগের এলসির ভারতীয় পেঁয়াজ নিয়ে কিছু ট্রাক দেশে এলেও তার ‘বেশিরভাগই পচা’ বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

শনিবার ভারত থেকে হিলি ও ভোমরা বন্দর দিয়ে এই ৪২ ট্রাক পেঁয়াজই এসেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

নিজেদের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভারত সরকার গত সোমবার আকস্মিকভাবে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয়। ওই ঘোষণার পর সীমান্তে বাংলাদেশ অভিমুখী পেঁয়াজের ট্রাকগুলোও আটকে দেয় ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

দিনাজপুরের হিলি স্থল বন্দর আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন অর রশীদ বলেন, ওই বন্দর দিয়ে শনিবার ভারত থেকে আসা ১১ ট্রাক পেঁয়াজের ‘প্রায় পুরোটাই’ পচে গেছে।

সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিমও একই অভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, শনিবার ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে আসা ৩১ ট্রাক পেঁয়াজের বেশির ভাগই নষ্ট হয়ে গেছে। এতে আমরা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।

 

ব্যবসায়ীদের হিসাব অনুযায়ী তিন স্থলবন্দর মিলিয়ে পাঁচশর বেশি ট্রাক সীমান্তের ওপারে আগের এলসির পেঁয়াজ নিয়ে আটকে থাকে চারদিন। ফলে রোদ-বৃষ্টি, গরমে পেঁয়াজে পচন ধরে।

এরপর ভারত সরকারের বিশেষ উদ্যোগে বিলম্ব রপ্তানি আদেশ (লেইট এক্সপোর্ট অর্ডার) নিয়ে কিছু ট্রাক হিলি ও ভোমরা দিয়ে শনিবার বাংলাদেশে ঢুকলেও বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে কোনো পেঁয়াজ আসতে পারেনি বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

হারুন অর রশীদ বলেন, “পেঁয়াজগুলো আসছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, মহারাষ্ট্র প্রদেশ থেকে। সেখান থেকে পেঁয়াজের ট্রাক বাংলাদেশে আসতে সময় লাগে ছয় দিন। তারপর ঘরে তিন দিন পর্যন্ত রাখা যায়। এরপর পচতে থাকে।

“এলসি করা পেঁয়াজ গত ৭ সেপ্টেম্বরে রওনা হয়। ১২ দিনের মাথায় ১১ ট্রাক পেঁয়াজ হিলি হয়ে এসেছে। তাহলে বুঝতেই পারেন পেঁয়াজ কেমন থাকবে।”

হিলি বন্দর দিয়ে আসার অপেক্ষায় আরও চার শতাধিক ভারতীয় ট্রাক সীমান্তের ওপারে আটকা পড়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “আমরা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। আশা করি জট খুলবে। রোববার ভারতে সাপ্তাহিক ছুটি। সোমবার যদি বিষয়টি নিয়ে তারা বসেন এবং সিদ্ধান্ত হয়, তাহলে আরও তিন দিন। তাহলে ভাবুন বিষয়টি।

“এখানে দুই দেশেরই ব্যাবসায়িক স্বার্থ আছে। তাই উচ্চপর্যায় ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবে বলে আশা করছি।”

দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার ব্যবসায়ী মোনোয়ার চৌধুরীর কয়েক ট্রাক পেঁয়াজ শনিবার হিলি হয়ে দেশে পৌঁছেছে।

তিনি বলেন, “আমার ১২৬ টন পেঁয়াজের মধ্যে ৬০ শতাংশ পচে গেছে। আরও আসতে বাকি রয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় পাঠাচ্ছি। যদি কিছু টাকা পাওয়া যায়। এই পেঁয়াজ চট্টগ্রামসহ দূরে যেতে আরও পচন ধরবে। বলতে পারেন প্রায় সবই পচা পেঁয়াজ।

বগুড়া রাজাবাজার সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমদানিকারক পরিমল প্রসাদ বলেন, তার ১২০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজের এলসি খোলা আছে।

“কিছু ট্রাক ভারতের রাস্তায় আটকা আছে। এখনও জানি না কী অবস্থা হয়েছে। তবে অভিজ্ঞতা থেকে ভাবছি অধিকাংশই পচে যাওয়ার কথা। হাইব্রিড জাতের এই পেঁয়াজ বেশি দিন রাখা যায় না। আবার কোনো বস্তার কিছু পেঁয়াজ পচে গেলে অন্যগুলোও দ্রুত পচতে শুরু করে।”

তিনি বলেন, দীর্ঘদিনের ব্যবসা। তাই পচলেও পেঁয়াজ নিতে হবে। সেক্ষেত্রে লোকসান দুই পক্ষকেই নিতে হবে এমন সমঝোতার কথা চলছে।

ভারতের এই পেঁয়াজের ‘স্টোরেজ কোয়ালিটি নেই’ বলে জানালেন বাংলাদেশ মশলা গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক হামিম রেজা।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, “ভারত থেকে আমদানি করা এসব পেঁয়াজ ওপেন পলিনেটেড ভ্যারাইটি। এই পেঁয়াজ সর্বাধিক দুই সপ্তাহ রাখা যায়। এসব পেঁয়াজের স্টোরেজ কোয়ালিটি নেই। আর গাদাগাদি করে রাখলে দ্রুত পচতে শুরু করে।”

এদিকে পেঁয়াজ পচতে শুরু করায় ভারতে ট্রাক থেকে নামিয়ে স্থানীয়ভাবে বিক্রির খবর মিলেছে।

দিনাজপুরের হিলি স্থল বন্দরের ওপারে টানা চার দিন আটকে থাকার পর ভারতীয় যে পেঁয়াজ রোববার এসেছে, তার বেশির ভাগই পচা বলে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম বলেন, “ভারতের ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে এখনও দুই শতাধিক পেঁয়াজবাহী ট্রাক আটকে রয়েছে। এর মধ্যে কিছু পেঁয়াজ ফিরে যাচ্ছে। আর কিছু পেঁয়াজ সেখানে আনলোড করে স্থানীয়ভাবে বিক্রি করে ফেলছেন সেখানকার ব্যবসায়ীরা।”
শনিবার ৪২ টাকে মোট ৯৬৭ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আসার খবর দিয়েছেন দুই বন্দরের ব্যবসায়ী ও বন্দর কর্মকর্তারা।

হিলি স্থল বন্দর আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি মো. হারুন অর রশীদ বলেন, শনিবার ১১ ট্রাকে মোট ২৪৬ মেট্রিকটন পেঁয়াজ এসেছে।”

আর ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে ৩১ ট্রাকে ৭২১ মেট্রিকটন পেঁয়াজ এসেছে বলে জানিয়েছেন বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন।

রোববার সন্ধ্যায় ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে আরও পাঁচ ট্রাক পেঁয়াজ এসেছে বলে জানিয়েছেন স্থল বন্দর সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম।

রাজস্ব কর্মকর্তা মহসিন হোসেন বলেন, এই নিয়ে গত দুই দিনে ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে মোট ৩৬ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ ভোমরা স্থল বন্দর দিয়ে প্রবেশ করল।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০৫ বার

Share Button

Calendar

October 2020
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031