» দেশে নারী ধর্ষণ ‘মহামারি আকার’ নিয়েছে ঃ কামাল হোসেন

প্রকাশিত: ১১. জানুয়ারি. ২০২০ | শনিবার

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা কামাল হোসেন বলেন,
দেশে নারী ধর্ষণ ‘মহামারি আকার’ নিয়েছে । আর এর জন্য দায়ী আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি।

শনিবার এক মানববন্ধনে তিনি বলেন, সরকারকে আমরা বিশেষ করে বলতে চাই, তাদের তো একটা ন্যূনতম দায়িত্ববোধ আছে।সরকারের এক নম্বর দায়িত্ব দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করা। নারী ধর্ষণ মহামারি আকার ধারণ করবে- এটা কল্পনা করা যায় না।

প্রায় প্রতিদিন সকালেই পত্রিকার পাতায় ঢাকা-চট্টগ্রামের মতো শহরগুলো ছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলায় ধর্ষণের খবর আসছে জানিয়ে কামাল হোসেন বলেন, এটা মহামারি আকার ধারণ করেছে- এই শব্দ অবশ্যই ব্যবহার করা যায়।

ধর্ষণ বৃদ্ধির জন্য আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থার ব্যর্থতাকে দায়ী করে তিনি বলেন, কেন এই বৃদ্ধি? কেন যে, আমাদের আইনশৃঙ্খলার যে ব্যবস্থা এটাতে যে ঘাটতি দেখা যাচ্ছে- এটা সত্যি আমাদের গভীর উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সংবিধানে স্বীকৃত- দেশে আইনের শাসন থাকবে, দেশে জানমালের নিরাপত্তা থাকবে। আপনি যদি জনমত যাচাই করেন দেখবেন সবার এক নম্বর দাবি থাকবে- জানমালের নিরাপত্তা। এটা কেন হবে না?

আমরা চাই- এটা বন্ধ হোক, এটা দ্রুত বন্ধ হোক, এটার বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হোক। নইলে সরকার বলবে যে, পারি না, পারলাম না। জনগণের কাছে আপনারা সুযোগ দেন যে, যোগ্য সরকার গঠন করতে পারে, তাদেরকে দিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে সমাজকে সন্ত্রাস থেকে মুক্ত করুক।

তবে ধর্ষণের বিরুদ্ধে মানুষের সম্মিলিত প্রতিরোধকে আশাব্যঞ্জক হিসেবে দেখছেন কামাল হোসেন।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীসহ সারা দেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে এই মানববন্ধন হয়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির আবদুল মঈন খান বলেন, আজকে আমরা বাংলাদেশে আছি নাকি আফ্রিকার জঙ্গলে বাস করছি- আমি সেই প্রশ্ন সরকারের সামনে তুলে ধরতে চাই। একটু আগে একজন বক্তা বলেছেন, এ দেশটা নাকি রোল মডেল। এই দেশ কি সম্ভ্রমহানির রোল মডেল? সেই প্রশ্ন আজকে সরকারকে করতে হবে ।

সম্প্রতি প্রকাশিত আইন ও সালিশ কেন্দ্রের বার্ষিক প্রতিবেদনে গত বছর বাংলাদেশে ধর্ষণের সংখ্যা আগের বছরের তুলনায় বেড়ে দ্বিগুণ হওয়ার যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, তা তুলে ধরেন তিনি।

মঈন খান বলেন, একজন বক্তা স্পষ্টভাষায় বলেছেন, এটা শুধু রেকর্ডের হিসাব। যেগুলো আপনারা সংবাদপত্রে লিখতে পারেন না, যেগুলো আপনারা টিভিতে রিপোর্ট করতে পারেন না সে রকম কত হাজার সম্ভ্রমহানি হয়েছে- আমরা কি তার হিসাব রেখেছি? আজকে আমরা কোথায় বসবাস করছি, আজকে বিদেশিদের কাছে আমরা কী বলে মুখ দেখাব?

গণফোরামের মোশতাক আহমেদের পরিচালনায় আরো বক্তব্য রাখেন মানববন্ধনে বিএনপির আবদুস সালাম, শাহিনুল ইসলাম লায়লা, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিক, বিকল্পধারার নুরুল আমিন ব্যাপারী, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, মোমিনুল ইসলাম, শহীদুল্লাহ কায়সার, জেএসডির সানোয়ার হোসেন তালুকদার, জাতীয় ঐক্য প্রচেষ্টার নুরুল হুদা মিলু চৌধুরী প্রমুখ ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০৯ বার

Share Button