শিরোনামঃ-


» নবদম্পতি খুন না কী আত্মহত্যা ?

প্রকাশিত: ২৬. ফেব্রুয়ারি. ২০১৯ | মঙ্গলবার


সাদ্দাম হোসেন

প্রেমের সম্পর্কের জেরে গত তিন দিন আগে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুর থানার সালানচর গ্রামের মোহাম্মদ আলী (২২) ও রুমি খাতুন (১৬)। রুমি খাতুন স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। স্বামী মোহাম্মদ আলী একটি কলেজে পড়াশোনা করতেন।

সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুরের হরিণধরা এলাকার বজলুর রহমানের বাড়ি থেকে একই দড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় তাদের লাশ উদ্ধার করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেলে হেমায়েতপুর হরিণধরা এলাকার নিজ ভাড়া ঘরের আড়ার সঙ্গে এক রশিতে ঝুলন্ত অবস্থায় দম্পতির লাশ দেখতে পায় বাড়ির অন্য ভাড়াটিয়ারা। পরে সাভার মডেল থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
গত তিন দিন আগে ওই দম্পতির বিয়ে হয়েছে বলে জানান ভাড়াটিয়ারা।

এলাকাবাসী জানান, দম্পতি প্রেম করে বিয়ে করায় দুই পরিবারের সদস্যরা তাদের বিয়ে মেনে না নেয়ায় তারা আত্মহত্যা করেছেন।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অখিল খন্দকার বলেন, নিহত দম্পতির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৫৫ বার

Share Button