» নিজে চাঁদাবাজি করি না, কাউকে চাঁদা দিইও না ঃ ডিএনসিসির মেয়র

প্রকাশিত: ২৬. অক্টোবর. ২০১৯ | শনিবার

কোনো কাউন্সিলরের অপকর্মের দায় সিটি করপোরেশন নেবে না বলে জানিয়েছেন
ডিএনসিসির মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ।

আজ কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে র সরকারি তিতুমীর কলেজের আয়োজিত সুধী সমাবেশে একথা বলেন মেয়র।

অবৈধ ক্যাসিনো পরিচালনায় ঢাকা দক্ষিণের এক কাউন্সিলরের নাম আসার পর র‌্যাবের অভিযানে নানা অভিযোগে উত্তরের দুজন কাউন্সিলর ধরা পড়েন। অভিযানের মুখে গা ঢাকা দিয়েছেন আরও কয়েকজন কাউন্সিলর।

মেয়র আতিক বলেন, কিছু কাউন্সিলরের নানা অপকর্মের জন্য তার ‘দুঃখ হয়’।

আমি নিজে চাঁদাবাজি করি না, কাউকে চাঁদা দিইও না। কেউ যদি মাদক ব্যবসা করে, চাঁদাবাজি করে, দখলদারী করে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। এখানে ডিএনসিসির কিছু বলার নেই। অপকর্মের দায় যার যার ।

ফুটপাত উচ্ছেদ করতে গেলে ৯৯ ভাগ লোক ‘খুশি’ হলেও ১ ভাগ লোক ‘অখুশি’ হয় বলে মন্তব্য করেন মেয়র আতিক।

এক ভাগের কম লোক তাতে অখুশি হয়। তারা ফুটপাতে ব্যবসা করে, চাঁদাবাজি করে। সবচেয়ে দুঃখ লাগে দখল করতে তারা কারও কারও ছবি-ব্যানার টানিয়ে নেয়। আমাদের অবস্থান পরিস্কার, আমরা ফুটপাত দখলকারীদের প্রশ্রয় দেব না।

নারীদের অভিযোগ জানাতে ডিএনসিসির পক্ষ থেকে অভিযোগ বাক্স বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানান মেয়র।

তাদের নাম ঠিকানা আমরা গোপন রাখব। পরে তাদের অভিযোগ খতিয়ে দেখতে পুলিশের কাছে পাঠাব। পুলিশ তাদের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

অপরাধ, জঙ্গিবাদ, মাদকের ব্যবহার কমিয়ে আনতে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের গুরুত্ব তুলে ধরে এক্ষেত্রে সহায়তা করতে নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানান আতিক।

কমিউনিটি পুলিশিং দিবস উপলক্ষে সুধী সমাবেশের আয়োজন করে ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগ।

সভায় ডিএনসিসির ১৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাকির হোসেন গুলশান ও আশপাশের এলাকার সড়কে সিসি ক্যামেরা বসানোর আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, “বাড্ডা, ভাটারা, কালাচাঁদপুর, মহাখালী এলাকার সড়কে সিসি ক্যামেরা নেই। এসব এলাকায় সিসি ক্যামেরা বসালে চুরি, ছিনতাই ও মাদক নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হবে।”

সুধী সমাবেশে ঢাকা-১১ আসনের সাংসদ এ কে এম রহমতুল্লাহ, ঢাকা-১৭ আসনের সাংসদ আকবর হোসেন খান পাঠান ফারুক, ঢাকা মহানগর পুলিশের যুগ্ম কমিশনার শেখ নাজমুল আলম, সরকারি তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ আশরাফ আলম, পুলিশের ডিপ্লোম্যাটিক সিকিউরিটি বিভাগের উপকমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী, সঙ্গীত শিল্পী শুভ্র দেব, চিত্রনায়ক রিয়াজ উপস্থিত ছিলেন।

সুধী সমাবেশের আগে গুলশান ১ নম্বর সার্কেল থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়ে সরকারি তিতুমীর কলেজে এসে শেষ হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২০১ বার

Share Button

Calendar

October 2020
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031