» ফুলেল শ্রদ্ধায় সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানকে স্মরণ

প্রকাশিত: ০৫. সেপ্টেম্বর. ২০১৯ | বৃহস্পতিবার


মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মৌলভীবাজার:
মৌলভীবাজারে নানা আয়োজন,ফুলেল শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় পালিত হয়েছে দেশ বরণ্য অর্থনীতিবীদ, মৌলভীবাজার তথা সিলেট বিভাগের উন্নয়নের মহানয়ক, সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনামন্ত্রী,বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য প্রয়াত এম সাইফুর রহমান এর দশম মৃত্যুবার্ষিকী ।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই প্রয়াত এই নেতার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গ্রামের বাড়ি সদর উপজেলার বাহারমর্দনে কোরআন খতম, কবর জিয়ারত ,মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও শিরনী বিতরণ করা হয়। এ ছাড়াও সিলেট বিভাগের বিভিন্ন স্থান থেকে নেতাকর্মীরা জড়ো হন গ্রামের বাড়ী বাহারমর্দনে কিংবদন্তী এই নেতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে।


সকালে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জের সাবেক মেয়র জি কে গউছ প্রয়াত মন্ত্রীর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্বা জানান। এর পরে একে একে এম সাইফুর রহমান স্মৃতী পরিষদ, মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগটনের নেতাকর্মীরা মরহুমের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

দুপুরে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে তাঁর বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন নিয়ে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ূনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান মিজানের পরিচালনায় স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ২০ দলীয় জোটের অন্যতম নেতা ও জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) এর প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট নওয়াব আলী আব্বাস খান। বক্তব্য রাখেন প্রবীণ বিএনপি নেতা এ্যাডভোকেট সুনীল কুমার দাশ, জেলা বিএনপির সহসভাপতি মৌলভী ওয়ালী সিদ্দিকী, আলহাজ্ব এম মুকিত, আলহাজ্ব মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক,আশিক মোশারফ,আলহাজ্ব আয়াছ আহমদ,জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক শামীম আহমদ,মৌলভীবাজার সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফখরুল ইসলাম,রাজনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি জিতু মিয়া, কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি জয়নাল আবেদীন বাচ্চু, শ্রীমঙ্গল পৌর বিএনপি নেতা সরফরাজ আলী বাবুল, বিএনপি নেতা শফিকুর রহমান প্রমুখ। স্মরণ সভায় দর্শক সারিতে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক এমপি ও মরহুমের জৈষ্ঠ্য পুত্র এম নাসের রহমান ও তাঁর সহর্ধমীনি রেজিয়া নাসেরসহ তাঁর পরিবারের সদস্যরা। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি বদরুল আলম, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মো: হেলু মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক মুহিতুর রহমান হেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক বকশী মিছবাহ উর রহমান, আলহাজ্ব মতিন বক্স , মুজিবুর রহমান মজনু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, প্রচার সম্পাদক এম ইদ্রিস আলী, জেলা যুবদল সভাপতি জাকির হোসেন উজ্জ্বল,সাধারণ সম্পাদক এম এ মুহিত, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি স্বাগত কিশোর দাস চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক জি এম মোক্তাদির রাজু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো: রুবেল মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান, জেলা কৃষক দলের সভাপতি এ্যাডভোকে মামুনুর রশিদ মামুন,জেলা মৎস্যজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক মোছা মিয়া,জেলা তাঁতী দলের সভাপতি আব্দুর রকিব সাবু,মৌলভীবাজার পৌর বিএনপির সভাপতি আব্দুল হক,কুলাউড়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সজল,সাংগঠনিক আবু সুফিয়ান প্রিন্স,রাজনগর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম হাকিম বখশ সুন্দর,জেলা জাসাস সভাপতি মারুফ আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য ২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর মৌলভীবাজারের নিজ বাড়ী বাহারমর্দন থেকে ঢাকায় যাওয়ার সময় ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার ঢাকা- সিলেট মহা সড়কের খড়িয়ালা নামক স্থানে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুবরন করেন তিনি।


একনজরে এম.সাইফুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী:
জন্ম ১৯৩২ খ্রীষ্টাব্দের ৬ অক্টোবর, মৌলভীবাজারের বাহারমর্দনে। তার পিতার মোহাম্মদ আব্দুল বাছির,মাতার তালেবুন নেছা। ৩ ভাইয়ের মধ্যে সভার বড় ছিলেন তিনি, মাত্র ৬ বছর বয়সে তাঁর পিতা মারা যান। সে সময়ে তাঁর অভিভাবকত্ব গ্রহণ করেন চাচা মোহাম্মদ সফি।
শিক্ষাজীবন, গ্রামের মক্তব ও পাঠশালা শেষ করে তিনি ১৯৪০সালে জগৎসী গোপালকৃষ্ণ উচ্চ ইংরেজী বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। এরপর ১৯৪৯সালে কৃতিত্বের সাথে মেট্রিকুলেশনে উর্ত্তীণ হন। সিলেটের এমসি কলেজ থেকে আইকম পাশ করে ১৯৫১ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। ১৯৫৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গ্রাজুয়েশন ডিগ্রী অর্জন করেন। এরপর তিনি ব্যারিস্টারী পড়ার জন্য ব্রিটেনে চলে যান, সেখানে পৌঁছার পর মত পাল্টে যায় তার, ব্যারিষ্টারী পড়ার পরিবর্তে পড়েন র্চাটার্ড একাউন্টেন্সি নিয়ে।১৯৫৩-৫৮ সময়কালে পড়াশোনার পর ১৯৫৯ সালে ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড একাউন্ট্যান্টস ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ফেলোশীপ অর্জন করেন। এছাড়া তিনি আর্থিক ও মুদ্রানীতি এবং উন্নয়ন অর্থনীতিতে বিশেষায়িত শিক্ষা গ্রহণ করেন। বিবাহ ১৯৬০ সালের ১৫ জুলাই বেগম দূররে সামাদ রহমানের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি ৩ পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক। ২০০৩ সালে তার স্ত্রী বেগম দুররে সামাদ রহমান ইন্তেকাল করেন। ২০০৯ সালের ৫ সেপ্টেম্বর তিনি এক মর্মান্তিক সড়ক র্দূঘটনায় নিহত হন। তার শেষ ইচ্ছানুযায়ী নিজ গ্রাম বাহারমর্দনে বাড়ির আঙিনায় তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) র’ প্রতিষ্টা লগ্নে দলটির প্রতিষ্টাতা জিয়াউর রহমান আপন করে ডাকলেন দল গঠনে অংশ নিয়ে দেশও জাতীর কল্যাণে নিবেদীত হতে। তিনি তাই করলেন। রাজনীতিতে এলেন আলোকিত করলেন আলোকিত হলেন। ১৯৯৬ সালে ষষ্ট ও সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৩ আসন ও ২০০১ সালের অষ্টম সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার -৩ ও সিলেট-১ আসন থেকে বিপুল ভোটে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৬ সালের ৮ই জুন তিনি সংসদে দ্বাদশ বাজেট পেশ করে দেশের সংসদীয় ইতিহাসে সর্বাধিক সংখ্যক বাজেট পেশকারী হিসেবে রের্কড গড়েন। তিনি দীর্ঘদিন দেশের অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন ছাড়াও দেশ-বিদেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট প্রতিষ্টানগুলোতেও নানা গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন কৃতিত্বের সাথে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১১৩ বার

Share Button

Calendar

September 2019
S M T W T F S
« Aug    
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930