ফ্রান্সে মহানবীর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে উলামা পরিষদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ৪:২১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০২০

ফ্রান্সে মহানবীর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে মৌলভীবাজারে উলামা পরিষদের বিক্ষোভ

মো. আব্দুল কাইয়ুম,মৌলভীবাজার:
ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদ ও ফ্রান্সের পণ্য জাতীয়ভাবে বয়কটের দাবিতে মৌলভীবাজারে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে জেলার কওমী মাদ্রাসা ভিত্তিক অলেমদের শীর্ষ সংগঠন উলামা পরিষদ।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) সকাল ১১টার দিকে মৌলভীবাজার টাউন ঈদগাহ প্রাঙ্গনে উলামা পরিষদের আয়োজনে শুরু হয় এই প্রতিবাদ সমাবেশ । সমাবেশে জেলা সদর ও আশপাশের সবকটি কওমী মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষকসহ শীর্ষ ওলামারা অংশ নেন।

সমাবেশকে কেন্দ্র করে শাহ মোস্তফা সড়ক জুড়ে হাজারো মানুষের ঢল নামে। এতে করে ওই সড়কে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে যায়।

ওলামা পরিষদের সভাপতি ও জেলার শীর্ষ আলেম শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল বারী ধর্মপুরীর সভাপতিত্বে ও দারুল উলুম মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা মুজাহিদ আহমেদ এর সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, উলামা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও রায়পুর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা গিয়াস উদ্দিন, বরুনা মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা বদরুল আলম হামিদী, আনোয়ারা বেগম মহিলা মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুজিবুর রহমান মুজাহিদ, মুফতি হাবিবুর রহমান কাসেমী,মুফতি হাবিবুর রহমান শামীম, দারুল উলুম মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত প্রিন্সিপাল মূফতি শামসুজ্জোহা,মাওলানা আব্দুল মুগনী ও মাওলানা আহমেদ বিলাল প্রমুখ।

সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে শায়খুল হাদিস আল্লামা আব্দুল বারী বলেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্র্যে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও ইসলামকে কে নিয়ে কটুক্তি ও রাষ্ট্রীয় মদদে মহানবীর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে যে ধৃষ্টতা দেখিয়েছেন, বিশ্বের কোটি কোটি নবী প্রেমিক মুসলমানদের অন্তরে যে ক্ষোভের আগুণ ঢেলে দিয়েছে,তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সেখানে বসবাসরত লাখ লাখ মুসলমানদের উপরও চলছে ফ্রান্স সরকারের রাষ্ট্রীয় মদদে নিপীড়ণ। তিনি বলেন, মুশরিক এবং ইহুদী এ দুই জাতি মুসলমানদের সবচেয়ে বড় দুশমন, শুধু মুসলমান নয় এরা মুসলমানদের নবীরও দুশমন। যার কারনে তারা ইচ্ছাকৃত ভাবে মহানবী (সাঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শন করেছে। ইতিহাসে প্রমান পাওয়া যায়,যে দেশ ও সরকার ইসলাম এবং মুসলমানদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তাদের পতন অনিবার্য। এসময় তিনি ফ্রান্সের সকল পণ্য জাতীয়ভাবে বয়কট করারও দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে দুপুরের দিকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্যে দিয়ে টাউন ঈদগাহ এর সামনে থেকে শুরু হয় বিক্ষোভ মিছিল। মিছিলটি শাহমোস্তফা সড়ক হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে কুসুমবাগ চত্তরে গেয়ে মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হয়। উত্তাল এই মিছিলে নানা প্রতিবাদী শ্লোগান সম্বলিত প্লেকার্ড বহন করতে দেখা যায় প্রতিবাদকারীদের।