» বর্ষার গান কামাল আহমেদ ও ভারতীয় দূতাবাস

প্রকাশিত: ১৭. জুন. ২০১৯ | সোমবার

জান্নাতুল ফেরদৌস

আষাঢ়মাখা বর্ষার প্রথম দিন ১৫ই জুন। সময় ছিল সন্ধ্যা। জায়গাটি ছিল বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তন। রবীন্দ্রনাথের বর্ষা ও প্রেমের গান নিয়ে অনুষ্ঠানের শিরোনাম ছিল “বর্ষার ভালোবাসা”। আয়োজক ছিল ভারতীয় দূতাবাস, ঢাকার ইন্দিরাগান্ধি কালচারাল সেন্টার। অনুষ্ঠানের শিল্পী ছিলেন একজন আর তিনি হলেন কামাল আহমেদ। যিনি একজন বিশিষ্ট রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী এবং বাংলাদেশ বেতার, ঢাকার পরিচালক (অনুষ্ঠান)।

আমাদের বর্ষা ও ভালোবাসার বড় ভরসা যে রবীন্দ্রনাথের গান শিল্পী কামাল আহমেদ যেন আবারও দিলেন তার প্রমাণ। একটি আষাঢ়সন্ধ্যাকে স্মরণীয় এবং বরণীয় করে তুললেন তিনি তাঁর আন্তরিক উপস্থাপনায়। মূল অনুষ্ঠানের শুরুতেই খুবই ছোট্টো করে বড়ো কথাটি বলেন ভারতীয় দূতাবাস, ঢাকার ইন্দিরাগান্ধি কালচারাল সেন্টারের সম্মানিত পরিচালক ড. নীপা চৌধুরী। তারপরই শুরু হয়ে যায় গান। আর প্রতিটি গানের আগে শিল্পী কামাল আহমেদের গান প্রাসঙ্গিক উদ্বৃতি ছুঁয়ে যায় দর্শক শ্রোতার প্রাণ। যা অনুষ্ঠানেও যোগ করে আলাদা মাত্রা এবং এতে আমাদের শোনার কানও পায় প্রশান্তির পরশ, পায় রবীন্দ্র সঙ্গীতের ¯িœগ্ধতামাখা মুগ্ধতা। কামাল আহমেদ একে একে চৌদ্দটি গান পরিবেশন করেন। যেখানে বর্ষা ও ভালোবাসা আমাদেরকে শুনিয়েছে রবীন্দ্রনাথের সুরেলা ভাষা এবং মিটিয়েছে মনের আশা।

আরো আশার কথা এই যে, মিলনায়তন ভর্তি ছিল দর্শক, ছিলেন গণমাধ্যম ব্যক্তিবর্গ। অনেকেই আসন সংকটে দাঁড়িয়ে শুনেছেন গান। শিল্পীর গাওয়া প্রথম গানটি ছিল “আবার এসেছে আষাঢ় আকাশ ছেয়ে” এবং শেষ গানটি ছিল “ভরা থাক স্মৃতিসুধায় বিদায়ের পাত্রখানি”। এবং এভাবেই বিদায়ের পাত্রখানি স্মৃতিসুধায় ভরে দিয়েছেন তিনি। সবগুলো গানই যেন প্রাণ পেয়েছে শিল্পীর স্বকীয়তা আর গায়কীতে। সম্পূর্ণ পরিবেশটি ছিল গীতিময় এবং মধুময় সুন্দর আর পরিবেশনা ছিল মনে রাখার মতোই বিশেষ এবং মধুর। রবীন্দ্র সঙ্গীতের যন্ত্র সঙ্গীতও যে কত পরিমিত সুন্দর হতে পারে, তারই প্রমাণ দিয়েছে “বর্ষার ভালোবাসা” নামের এই একক সঙ্গীতানুষ্ঠান।

২০১৭ সালে রবীন্দ্রনাথের গান নিয়ে এবং শিল্পী কামাল আহমেদকে দিয়ে ইন্দিরাগান্ধি কালচারাল সেন্টার প্রথমবার আয়োজন করেছিল অনুষ্ঠান, আর এবার ২০১৯ সালের ১৫ই জুন আয়োজন করলো দ্বিতীয়বার। যতবার হবে এমন আয়োজন, ততবারই রবীন্দ্র সঙ্গীতের মধুর ছোঁয়া পাবে আমাদের মন। আমাদের মনের ভেতরে থাকা দিন রাত মাত করে দেবেন রবীনন্দ্রনাথ। কারণ আমাদের এই রবি’ও যে প্রতিদিনের আরেক সূর্য যার আলো কেবলই ভালোর মুগ্ধতা ছড়ায়।

সংগীত সন্ধ্যায় শিল্পী কামাল আহমেদ বিভিন্ন রাগে ১৪ টি গান পরিবেশন করেন, গানগুলো হলো Ñ মল্লার রাগে “আবার এসেছে আষাঢ়”, সাহানা রাগে “ নিশি না পোহাতে”, মল্লার রাগে “বাদল-দিনের প্রথম কদম ফুল”, ইমন-কল্যাণ রাগে “আসা যাওয়ার পথের ধারে”, ইমন রাগে “আষাঢ়সন্ধ্যা ঘনিয়ে এল”, “এই উদাসী হাওয়ার পথে পথে” মল্লার রাগে
“আজি শ্রাবনঘনগহন মোহে”, রামকেলি রাগে “যদি জানতেম আমার কিসের ব্যথা”, মল্লার রাগে “আজি ঝড়ের রাতে”,
রামকেলি রাগে “আমার জীবনপাত্র উচ্ছলিয়া মাধুরী করেছ দান”, পিলু রাগে “ছায়া ঘনাইছে বনে বনে”, “আমার পরান যাহা চায়”, কেদারা রাগে “বহু যুগের ওপার হতে আষাঢ় এলো” এবং বেহাগ রাগে “ভরা থাক স্মৃতিসুধায়”।

শিল্পী কামাল আহমেদ এর ১৬ টি এ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে, এ্যালবাম গুলো হলো Ñ
০১. সাদা মেঘের ভেলা (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০২. নানা রঙের দিনগুলি (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৩. পথ চাওয়াতেই আনন্দ (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৪. ফাল্গুনের দিনে (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৫. নিঃশব্দ চরণে ( মিক্সড এ্যালবাম-রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৬. গোধূলি (হারানো দিনের গান) ০৭. কান পেতে রই (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৮. বেঁধেছি আমার প্রাণ (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ০৯. ভরা থাক স্মৃতিসুধায় (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ১০. নিদ্রাহারা রাতের গান (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ১১. বালুকা বেলায় (হারানো দিনের গান)
১২. অধরা (আধুনিক গান) ১৩. গানের তরী (তিন কবির গান) ১৪. দূরের বন্ধু (রবীন্দ্রসঙ্গীত) ১৫. মহাকাব্যের কবি (বঙ্গবন্ধু স্মরণে গান) ও ১৬. একুশের স্বরলিপি (মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের গান) (২০১৯)।

সৃষ্টির স্বীকৃতি স্বরূপ তাঁর সফলতার পালকে যুক্ত হয়েছে ৬টি জাতীয় ও আর্ন্তজাতিক পুরস্কার :

০১. সার্ক ক্যালচারাল সোসাইটি এ্যাওয়ার্ড (২০১০)
০২. বঙ্গবন্ধু গবেষণা ফাউন্ডেশন এ্যাওয়ার্ড (২০১৫)
০৩. অদ্বৈত মল্লবর্মণ এ্যাওয়ার্ড, মহারাজা বীর বিক্রম বিশ^বিদ্যালয়, ভারত (২০১৭)
০৪. বীর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত এ্যাওয়ার্ড, আগরতলা, ত্রিপুরা, ভারত (২০১৭)
০৫. ফোবানা এ্যাওয়ার্ড, কানাডা (২০১৭)
০৬. রাজশাহী বেতার শিল্পী সংস্থা সম্মাননা (২০১৮)
০৭. জাতীয় রবীন্দ্র গবেষণা ও চর্চা কেন্দ্র সম্মাননা (২০১৯)

সত্যিই গান হয়ে আছে তাঁর প্রাণ। সঙ্গীতময় জীবনে তিনিও সবার শুভকামনা চান, চান সঙ্গীত – ভরা জীবনের সুন্দর একটা জয়। যে সঙ্গীত সুন্দরের কথা বলে – সেই সঙ্গীত নিশ্চয়ই গড়ে দেবে তাঁর ব্যতিক্রমী জীবনের ভিত। শিল্পী কামাল আহমেদের গাওয়া গানের মন ছুঁয়ে যাওয়া সৌরভ-গৌরব হয়ে ছড়িয়ে পড়–ক সবার মনে ও মননে ॥

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৬৪ বার

Share Button

Calendar

November 2019
S M T W T F S
« Oct    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930