» বাংলাদেশ বর্তমানে নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত : মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত: ০৩. জুন. ২০১৯ | সোমবার


মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার : বাংলাদেশ বর্তমানে স্বাধীন নয়, নতজানু দেশে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রোববার (২জুন) এক অনুষ্ঠানে দেশের বর্তমান অবস্থা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, দেশে একটা দুঃসময়, একটা সংকটকাল চলছে। এই সংকট হচ্ছে জাতির। এখন বাংলাদেশ জাতি তার সমস্ত অর্জনগুলোকে হারিয়ে ফেলেছে।
মির্জা ফখরুল বলেন, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে স্বাধীনতা অর্জন করেছিলো। এখন কি আমরা বাংলাদেশকে স্বাধীন বলতে পারব? পারি না। কারণ বাংলাদেশ এখন নতজানু হয়ে গেছে। গণতন্ত্র অর্জন করেছিলাম, ১৯৭৫ সালে আবার নতুন করে সেই গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে, একেবারেই বিলীন করে দেয়া হয়েছে, মূল্যবোধগুলোকেও ধবংস করে ফেলা হয়েছে। স্বাধীন বিচার বিভাগ কোথায়? কিচ্ছু নেই। বিচার বিভাগও দলীয়করণ হয়েছে।
অতীতের আওয়ামী শাসনের কথা তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের শাসনামল আমরা দেখেছি। এই দলটার (আওয়ামী লীগ) নেতা বড় বড় কথা বলে। এমন এমন কথা বলে, এখন তো সুবিধা একাই কথা বলে আর কথা বলার সুযোগ নাই। যত অপকর্ম এদেশে সমস্ত তাদের দ্বারা হয়েছে। দুর্ভিক্ষ হয়েছে, চরম দুর্নীতি হয়েছে এবং গণতন্ত্রকে গলা টিপে হত্যা করে মেরে ফেলেছে। এই সংবিধানকে কেটে-ছিঁড়েছে কে? এই আওয়ামী লীগ।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে আবার তার পুনরাবৃত্তি ঘটছে। আজকে দেখুন একইভাবে ভিন্ন আঙিকে ওই একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চেপে বসেছে এবং গণতন্ত্রের সমস্ত স্তম্ভগুলোকে ভেঙে দিয়েছে। রাষ্ট্রকে পুরোপুরি দলীয়করণ করে ফেলেছে, বিচার ব্যবস্থা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, প্রশাসন, নির্বাচন কমিশন এমনকি এখন মিডিয়া যেটা গণতন্ত্রের প্রধান স্তম্ভ তাকে তারা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করে রেখেছে।
ওই একদলীয় শাসন ব্যবস্থা থেকে দেশে ‘বহুদলীয় গণতন্ত্র’ প্রতিষ্ঠা করে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার পদক্ষেপগুলো তুলে ধরেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ইজ জিয়াউর রহমান। তিনি ছিলেন সততার প্রতীক। এখন তার সততা নিয়েও ওরা কটাক্ষ করে।আর এখন আমরা শুনি বিদেশে স্তুপ জমা হচ্ছে পাহাড়ের মতো করে বৃত্তের,অর্থের সম্পদের। অনেকের ৪/৫টা করে বাড়ি-ঘর হচ্ছে এই ঢাকা শহরে। দুর্ণীতির পাহাড় গড়েছে, একেক জন পকেট ভারী করেছে। আমি বলব, আমাদের জিয়াউর রহমানকে আদর্শ ও দর্শনকে অনুসরণ করতে হবে। বিএনপিকে টিকিয়ে রাখা, বাংলাদেশ জাতিকে টিকিয়ে রাখার মূল মন্ত্র হচ্ছে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ। সুতরাং বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের বাইরে অন্য কিছু চিন্তা করা আমাদের জন্য সুইসাইডেল হবে।
মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্রের জন্য জিয়াউর রহমানের উত্তসুরী দেশনেত্রী আজকে কারাগারে আছেন। আমাদের দায়িত্ব হবে- যারা জিয়াউর রহমানকে ভালোবাসেন, তার রাজনীতিকে ভালোবাসেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দর্শনে বিশ্বাস করেন, আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে আন্দোলনের মধ্য েিদ্য় জনগনকে সম্পৃক্ত করে দেশনেত্রীকে কারাগার থেকে মুক্ত করা। আসুন আগামী দিনগুলোতে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়্উার রহমানের আদর্শ দীক্ষিত হয়ে দেশনেত্রীকে মুক্ত করবার জন্য আমরা শরিক হই এবং সেখানে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত থাকি।
সরকারের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, স্পষ্ট করে দখলদার সরকারকে বলতে চাই, অবিলম্বে এই নির্বাচন বাতিল করুন, বাতিল করে নিরেপক্ষ সরকারের অধীনে নতুন একটি নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। অন্যথায় জনগন তাদের যে ন্যায্য দাবি সেই ন্যায্য দাবি তারা আদায় করে নেবে।
নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ন্যাশনালিস্ট রিসার্চ সেন্টারের (এনআরসি) উদ্যোগে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে ‘আঁধারের সাথে দ্বন্ধ’ শীর্ষক স্মৃতি স্মারক ও দেয়ালিকা প্রদর্শনীর এই অনুষ্ঠান হয়। এই প্রদশর্নীতে স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমানের কর্মকান্ডের ৬০টি আলোকচিত্র স্থান পায়। সংগঠনের সভাপতি বাবুল তালুকদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য টিএস আইয়ুব, এনআরসির আল-আমীন বক্তব্য রাখেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২১৩ বার

Share Button

Calendar

September 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930