» বিদায়, হে বিপ্লবী

প্রকাশিত: ০৭. নভেম্বর. ২০১৯ | বৃহস্পতিবার


-লুৎফুল্লাহ হীল মুনীর চৌধুরী

আজ ৭ নভেম্বর। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস। আজকের দিনটি জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের জন্য ঐতিহাসিক। ১৯৭৫ সালে জাসদ এদিন একটি সফল বিপ্লব সংঘটিত করেছিলো। ঐতিহাসিক এই ৭ নভেম্বরেই আজ মৃত্যু বরণ করলেন জাসদের অগ্নিযুগের বিপ্লবী নেতা মুক্তিযোদ্ধা মইনুদ্দিন খান বাদল। ভারতের ব্যাঙ্গালোরে ভোরে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। ইন্না লিল্লাহ হি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন।
যুদ্ধোত্তর স্বাধীন বাংলাদেশে মৃত্যুর দিন পর্যন্ত তিনি অসাম্প্রদায়িক শক্তি ও মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে তার বিপ্লবী চেতনার পরিচয় বহন করে গিয়েছেন। জাতীয় সংসদে তার সরব ভূমিকা ইতিহাসে বিবৃত হবে আগামী প্রজন্মের নেতৃবৃন্দের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক সম্পদ হিসেবে। বিপ্লব প্রসঙ্গে মইনুদ্দিন খান বাদলের সাথে আমার কথা বলার যথেষ্ঠ সুযোগ হয়েছিলো। বিপ্লব বলতে সশস্ত্র বিপ্লবের কথাই ইঙ্গিত করা হলেও তার ব্যাপ্তি সমকালীন রাজনৈতিক বিশ্বে আরো প্রসারিত হয়েছে। মইনুদ্দিন খান বাদল সেই বিপ্লবের মধ্যে দিয়ে গোটা জীবন কাটিয়েছেন। রাজনৈতিক রেফারেন্স ব্যবহারে তিনি অত্যন্ত দক্ষ ছিলেন। সংসদেও তিনি সবসময় সময়োপযোগী কোটেশন ব্যবহার করতেন।

বিগত তিন সংসদে আমার সৌভাগ্য হয়েছে সংসদ প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করার। বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে আমার যোগাযোগের গন্ডি বেশ প্রসারিত। সেই সুবাদে বাদল ভাইয়ের কাছে যাবার সুযোগও ছিলো যথেষ্ঠ। ১৯৭২ সালে তৎকালিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ক্যাপ্টেন মনসুর আলী সাহেবের বাসভবন ঘেরাও কর্মসূচিতে গুলি চালানো হলে রাজপথে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যুবরণ করেছেন বেশ ক’জন কর্মী। সেদিন মইনুদ্দিন খান বাদল ও পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। এজন্য বাকী জীবনে তাকে অনেক ভুগতে হয়েছে। ২০১৮ সালে ধানমন্ডিতে ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন পায়ের পুরোনো ব্যাথা নিয়ে। প্রায়ই সমস্যা হতো তার এজন্য। এর মাঝে দুবছর আগে ব্রেন স্ট্রোক করার কারনে তিনি শারীরিক ভাবে বেশ বিপর্যস্ত হয়ে পরেন । কিন্তু তাকে দেখা যেতো সেই অগ্নিমূর্তিরূপে কি সংসদে, কি রাজপথে বা টেলিভিশন এর টক শোতে । এদেশে প্রতিবাদের বীজ রোপিত হয় ক্ষনে ক্ষনে। একজন মইনুদ্দিন খান বাদল হয়ে থাকুক বাংলাদেশের আগামী প্রজন্মের জন্য কালে কালে এক অনন্য ইতিহাস, উদাহরণ। বাংলাদেশ স্মরণ রাখুক তাকে গভীর ভালোবাসা দিয়ে। বিদায়, হে বিপ্লবী !

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০৪ বার

Share Button

Calendar

November 2019
S M T W T F S
« Oct    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930