বেশ্যা গালি

প্রকাশিত: ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩০, ২০১৮

বেশ্যা গালি


তামান্না জেসমিন

বেশ্যা শব্দটির সাথে বিচ্ছিরি রকম ঘৃণা তাচ্ছিল্য ও অপমান জড়িয়ে আছে ! আমার মনে হয় যাদের সূক্ষ্ম অনুভূতি এবং মানবতাবোধ রয়েছে তাদের এগিয়ে আসা উচিৎ এই শব্দটির বিরুদ্ধে। এটি একটি অত্যন্ত জঘন্য গালি যা কেবল নারীর বেলায় প্রযোজ্য কিন্তু এই বেশ্যাদের কাছে যারা গমন করছে তাদের জন্য কী বাংলা ভাষায় এরকম কোনো গালি প্রচলিত আছে? আমার তো জানা নেই। এই সমাজে বেশ্যা শব্দের সাধারণ মানে হচ্ছে যে নারী অর্থের বিনিময়ে দেহ ব্যবসা করে কিন্তু এই দেহ ক্রয় করবার জন্য বেশ্যার নিকট কারা গমন করছে?

এখন দেখা যাক এই বেশ্যারা ঠিক মানুষের মতন কিনা! হ্যা এদেরও কিন্তু সব মানুষ বা সব নারীদের মতন অর্থাৎ আপনার/ আমার, মা বোনদের মতন মন আছে, দুখ, বেদনা আছে, আবেগ-অনুভূতি আছে, আছে অভিমান, ভয়, রাগ, চাওয়া-পাওয়া, স্বপ্ন। অথচ কেবল এই অর্থাভাবে এমন পেশাকে অবলম্বনের জন্য তাদের সকল দুধে চ্যানা দেওয়া হয়েছে। বেশ্যা হলেই কি সে ১০০% খারাপ হয়ে যায়? বেশ্যাকে কী কোনো অবস্থায়ই মানুষ ভাবা যায়না?

এদেশে বহু দুশ্চরিত্র রাজনৈতিক নেতা আছে.. আছে উগ্র চরিত্রহীন ধার্মিক কিন্তু বেশ্যা শব্দটি উচ্চারণের সাথে সাথে পরিষ্কার অর্থবহ কিছু নারীচরিত্র ভেসে ওঠে আমাদের চোখের তারায়। একজন চোর, প্রতারক, ভন্ডের চাইতে কি বেশ্যারা খারাপ? এই শব্দটি একটি অতি নিকৃষ্ট গালি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছে। একটি সুস্থ স্বাভাবিক, শিক্ষিত এবং স্বচ্ছল মেয়েকেও সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করবার জন্য অনেককেই দেখা যায় এই গালিটির আশ্রয় নিতে তা শহরেই হোক কিংবা অজ পাড়াগায়ে।

আমরা নিজেদের যতই সভ্য মনে করিনা কেনো আসলে বিচার – বিবেচনা, সাধারন জ্ঞান, শিক্ষা পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের অভাব থাকলে সভ্যসমাজের সভ্যমানুষ হিসেবে নিজেদের ভাবা একদম অবান্তর।

নারীদের গালি এবং অপমান করবার জন্য এই
জাতীয় জঘন্য গালিগালাজ মুক্ত সমাজ তৈরী হোক। আমার দাবী, বাংলা শব্দভান্ডার থেকে এই শব্দটির বিলুপ্ত হোক অচিরেই …

তামান্না জেসমিন
২৯ ডিসেম্বর ‘১৮

Calendar

December 2020
S M T W T F S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

http://jugapath.com