» ভারতে ফ্লাইট বন্ধ করছে বিমানসহ দুটি প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত: ১২. মার্চ. ২০২০ | বৃহস্পতিবার

অনলাইন ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশিদের জন্য ভ্রমণ ভিসা স্থগিত করেছে ভারত। শুক্রবার ভারতীয় সময় বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। এ অবস্থায় বাংলাদেশ থেকে ভারতে ফ্লাইট পরিচালনা বন্ধ করতে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। শুক্রবার থেকেই ভারতে ফ্লাইট বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি। এ ছাড়া দুই বেসরকারি বিমান পরিবহন সংস্থা ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ও নভোএয়ারের পক্ষ থেকেও একই ধরনের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে।
বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের উপমহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ভারতের নিষেধাজ্ঞার কারণে শুক্রবার সন্ধ্যার পর ভারতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের আর কোনো ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে না।

এ বিষয়ে ইউএস-বাংলার মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম জানান, শুক্রবার থেকে শুধু ভারতীদের নিয়ে কলকাতা ও চেন্নাই রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। ১৫ মার্চ থেকে চেন্নাই রুটের ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হবে। এরপর ১৬ মার্চ থেকে কলকাতা রুটের ফ্লাইটও বন্ধ করা হবে। ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইউএস বাংলার ভারতের ফ্লাইট বন্ধ থাকবে।

নভোএয়ারের সিনিয়র ম্যানেজার (মার্কেটিং অ্যান্ড সেলস) এ কে এম মাহফুজুল আলম বলেন, ১৪ মার্চ থেকে নভোএয়ারের ঢাকা-কলকাতা ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হবে। তার আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় একটি ফ্লাইট যাত্রী ছাড়াই কলকাতা যাবে এবং সেখান থেকে ফিরতি যাত্রীদের আনা হবে।

উল্লেখ্য, কলকাতায় প্রতিদিন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুটি করে নিয়মিত ফ্লাইট রয়েছে। আর দিল্লিতে রয়েছে একটি করে ফ্লাইট। তবে করোনাভাইরাসের কারণে গত কয়েক দিন ঢাকা-দিল্লি রুটে সপ্তাহে তিনটি করে ফ্লাইট পরিচালনা করা হচ্ছিল। অন্যদিক ইউএস-বাংলার কলকাতা ও চেন্নাই রুটে ফ্লাইট থাকলেও নভোএয়ার শুধ কলকাতা রুটেই ফ্লাইট পরিচালনা করে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) কভিড-১৯-কে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণার পর বুধবার ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো এক বিবৃতিতে জানায়, শুক্রবার ভারতীয় সময় বিকেল ৫টা থেকে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশটিতে সব ধরনের ভ্রমণ ভিসা স্থগিত থাকবে। এতে অন্য কোনো দেশ থেকে ভ্রমণ ভিসা থাকা কোনো ব্যক্তি ভারতে প্রবেশ করতে পারবেন না। তবে কূটনৈতিক, অফিসিয়াল, জাতিসংঘ বা আন্তর্জাতিক সংগঠন এবং পেশাগত ও প্রকল্পের কাজে নিয়োজিতদের ভিসা এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩২ বার

Share Button