» মুজিব বর্ষ উদযাপনে বাংলাদেশে আসছে নেপালী প্রতিনিধি দল

প্রকাশিত: ১৫. জানুয়ারি. ২০২০ | বুধবার


মুজিব বর্ষ উদযাপন ও বেসরকারি উদ্যোগে যুব অভিজ্ঞতা বিনিময় কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আগামী বাংলাদেশে আসছে ৩৪
সদস্যের নেপালী শিক্ষার্থী দল। ১৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় হিমালয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে তারা ঢাকা এসে
পৌঁছাবেন। ১৫ জানুয়ারি থেকে ছয় দিনের সফরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন,
জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন-সহ একাধিক সেমিনারে অংশ নেবে তারা।
বাংলাদেশের ইযু ফর ডেমোμেসি এন্ড ডেভেলপমেন্ট (ওয়াই.ডি.ডি.) এবং নেপালের কাঠমান্ডু বার্নহার্ট কলেজ ও
বেসরকারি সংস্থা ফোরে ইন্টারন্যাশনালের যৌথ আয়োজনে ‘নেপাল-বাংলাদেশ সেকেন্ড ট্রান্সন্যাশনাল সোশ্যাল ওয়ার্ক ক্যাম্প
মার্কিং বার্থ সেন্টেনারি অব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’ শিরোনামে এই সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দ্বিপাক্ষিক সফর বিনিময়ের
অংশ হিসেবে আগামী এপ্রিলে নেপালে যাবে বাংলাদেশের ৩৪ জন ছাত্র-শিক্ষক।
বাংলাদেশ সফরে নেপালী প্রতিনিধি দলটি ১৬ জানুয়ারি সকালে ধানম-িতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে
তাদের বাংলাদেশ পর্ব শুরু করবে। পরে তারা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করবে। ওইদিন বিকাল ৩টায় ঢাকা
বিশ^বিদ্যালয়ে সেন্টার ফর অ্যাডভান্স রিসার্চ ইন আর্টস এন্ড সোশ্যাল সায়েন্স (কারাস) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে
বাংলাদেশ-নেপাল ইয়ু এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রাম। এ অনুষ্ঠানে দুই দেশের প্রেক্ষিতে স্থিতিশীল উনড়বয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং
ব্ল্যাক/ডার্ক ট্যুরিজম বিষয়ে দুটি পৃক সেমিনার এবং দুই দেশের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি
হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। বিশেষ অতিথি থাকবেন সম্প্রীতি বাংলাদেশ-এর
সদস্য সচিব অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপড়বীল। সভাপতিত্ব করবেন ওয়াই.ডি.ডি’র সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর
রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক জয়নাব বিনতে হোসেন শান্তু। এ অনুষ্ঠানে নেপালের ৩৪ ছাত্রশিক্ষে
কর পাশাপাশি বাংলাদেশের ৬৬ জন তরুণ পেশাজীবী ও শিক্ষার্থী উপস্থিত থাকবেন। এদিন সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়
কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নেতৃবৃন্দের সাথে আরেকটি মতবিনিময় সভায় অংশ নেবেন তারা।
১৭ জানুয়ারি সকালে নেপালী শিক্ষার্থী দল কামরাঙ্গীর চর এলাকা পরিদর্শন করবেন। গত এক দশকে রাজধানীর প্রান্তিক
উপ-শহুরে এলাকার উনড়বয়ন ও বদলে যাওয়ার কর্মপদ্ধতি পরিদর্শনের অংশ হিসেবে কামরাঙ্গীর চর এলাকা বেছে নেওয়া
হয়েছে। এ সময় তারা স্থানীয় ঢাকা-২ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলামের সাথে
মতবিনিময় করবেন।
এদিকে নেপালী প্রতিনিধি দলটি ঢাকায় আসার প্রাক্কালে গত ১০ জানুয়ারি শুμবার কাঠমান্ডুতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে
এক সৌজন্য সাক্ষাতে মিলিত হয়। নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
তিনি বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উনড়বয়ন চিত্র এবং শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পর্কে প্রতিনিধি দলের সদস্যদের সম্যক
ধারণা দেন। এ সময় নেপালী প্রতিনিধি দলের দলনেতা রুকিশ ঘিমিরি, প্রগতি খাড়কা, সুদীপ লামা, রাম পুকার মাহারা,
নীরু কারকি-সহ বাংলাদেশে সফরে প্রস্তুত নেপালী দলের সবাই উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া ছয় দিনের সফরে তারা বেসরকারি উনড়বয়ন সংস্থা ব্র্যাক এর সদরদপ্তর পরিদর্শন ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিমিয়,
ঢাকাস্থ নেপালের রাষ্ট্রদূতের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ, কলেজ শিক্ষকদের সংগঠন ই-থ্রি’র সাথে মতবিনিময় প্রাচীন বাংলার
রাজধানী সোনারগাঁও, পানাম নগর ও লোকশিল্প জাদুঘর এবং মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর পরিদর্শন করবে। ২০ জানুয়ারি ঢাকা টিচার্স
ট্রেনিং কলেজে অনুষ্ঠিত হবে সমাপনী অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন টিচার্স ট্রেনিং কলেজের
অধ্যক্ষ অধ্যাপক কানিজ ক্সসয়েদা বেন্তে সাবাহ। ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যায়ই তারা কাঠমান্ডুর উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করবে।
মুজিব বর্ষ উদযাপন এবং যুব অভিজ্ঞতা বিনিময় কার্যμম প্রসঙ্গে বাংলাদেশের আয়োজক ওয়াই.ডি.ডি’র সাধারণ সম্পাদক
বাপ্পাদিত্য বসু বলেন, দক্ষিণ এশিয়া ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে আমরা নিয়মিতই যুব নেটওয়ার্কিং কার্যμম
পরিচালনা করার মধ্য দিয়ে এ বাংলাদেশের তরুণদের সামনে এগিয়ে যাবার পথ খুলে দিতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। শিক্ষার্থী, তরুণ
উদ্যোক্তা, তরুণ পেশাজীবী, পরিবেশকর্মি, উনড়বয়নকর্মিদের শক্তিশালী জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার মধ্য
দিয়ে আমরা যুব ক্ষমতায়নে আগ্রহী। তবে ২০২০ সালে আমাদের সকল কার্যμম পরিচালিত হবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ
মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষকে উৎসর্গ করে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯০ বার

Share Button