» মোহসীন চৌধুরীঃ একটি নক্ষত্র খসে পড়ে গেছে

প্রকাশিত: ৩০. জুন. ২০২০ | মঙ্গলবার

আসাদ মান্নান

আজ সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর কেন জানি মোহসীনের কথা মনে পড়ল। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক মাস ধরে সিএমএইচএ চিকিৎসাধীন আছেন। মাঝখানে একদিন তার মেঝ ভাইয়ের কাছে জানতে পারি ওর অবস্থা খুবই সংকটাপন্ন। মনটা খুব খারাপ হয়ে যায়। এমন নির্মল চিত্তের নির্মোহ মানুষ আজকের দিনে খুব একটা দেখা যায় না। সিভিল সার্ভিসে তার মতো সহজ সরল নিপাট ভদ্রলোক সহজে চোখে পড়ে না। তার দক্ষতা কর্মনিষ্ঠা ও সততা ছিল প্রশ্নাতীত। প্রায় দুবছর আমরা মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে একই কক্ষে বসতাম। প্রাণিসম্পদ সংক্রান্ত উন্নয়ন প্রকল্পসমূহ ছিল তার শাখার আওতায়। তখন দেখেছি তাকে কী নিষ্ঠা ও দক্ষতায় প্রতিটি বিষয় নিয়মানুবর্তিতার সঙ্গে সম্পন্ন করতে। তদবির করতে কাউকে তার পেছনে ছুটতে হয়নি। এত ঠাণ্ডা মাথায় দপ্তরের কাজ সামলাতে আমি কাউকে দেখিনি। তো এ সময়ে আমাকে সে চাকুরিতে অগ্রজ বলে শুধু নয় অন্য কারণে খুবই আপন একজন বলে জানতো। ওর সতত হাসিমাখা মুখ একবার যিনি দেখেছেন কখনও ভুলবেন না জানি। আমারও তাই আজ ঘুম থেকে জেগে উঠতেই প্রথমেই মোহসীনের মুখটা ভেসে উঠল । কেন জানি তার ভাইদের কাউকে ফোন না করে তার শরীরের আপডেট জানতে তারই ব্যাচমেট জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব জনাব ফয়েজ আহম্মদকে ফোন করি সকাল প্রায় সাড়ে ৯ টায়। ফয়েজ যেটা জানালেন তা আমিও জানতাম যে অবস্থা খুবই সংকটাপন্ন। আমরা অভিমত রাখছিলাম ভেনটিলেশনের এতদিন যে রোগি থাকে তাকে ফিরে পাওয়াটা সম্পূর্ণ আল্লার ইচ্ছায়। টেলিফোন রেখে দেবার কিছুক্ষণ পরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একের পর এক শোকবার্তা পেতে থাকি সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী সকাল ৯.৩৫/৯.৪০ মিনিটে ইনতেকাল করেছেন। কান্নায় বুকটা হাহাকার করে উঠল। চোখ দিয়ে অশ্রুপাত হতে থাকে। টুক টাক অনেক স্মৃতি মনে পড়ছে। মনে পড়ল তার শোকার্ত জননী বেগম তাহেরা হোসেনের গর্বিত মুখে বেদনার নির্মম থাবা কী করে সবকিছুকে ঢেকে দিয়েছে। এ শোক তো সইবার নয় খালাম্মা! আপনি তো এক রত্নগর্ভা জননী । আপনি তো সবসময় মোহসীনের কাছেই ছিলেন। আপনার বুকটা খালি কলে আপনার হীরের টুকরো ছেলেটা সব প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে মৃত্যুর সাথে লড়াই করে চলে গেল! আপনার ঘরেই হবার কথা ছিল সপ্তর্ষীমণ্ডল। কিন্তু আঁতুড়ে সেটি আর হয়নি। ড. আবদুল্লাহ আল মামুন চৌধুরী (সাবেক প্রধান বন সংরক্ষক), ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী ( কবি কামাল চৌধুরী, সাবেক মুখ্য সচিব), আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরী(আজকে প্রয়াত সিনিয়র সচিব, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়), ড. আবদুল্লাহ মাসুদ চৌধূরী, (সরকারের যুগ্ম-সচিব), ড. সাইফুল মাহমুদ চৌধূরী (যুক্তরাষ্ট্রে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক) ও ড.মেহেদী মাহমুদ চৌধুরী (যুক্তরাজ্যে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক) – এই ছয় রত্নপুত্র আপনার কোল শুধু নয়, দেশ ও সমাজকে আলোকিত করেছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কয় জন মা এমন বিরল সৌভাগ্যের মুখ দেখেছেন! আপনার আকাশের একটি নক্ষত্র খসে পড়ে গেছে। আপনাকে শোক জানাবার ভাষা হারিয়ে ফেলেছি । আল্লাহ আপনার বুকের ধন মোহসীনকে পৃথিবীতে যেমন সন্মানজনক অবস্থায় রেখেছিলেন পরকালেও তাকে আল্লাহ অনুরূপ মর্যাদার সঙ্গে রাখবেন। এ দুঃসময়ে আপনার সঙ্গে সব পুত্রের একটি বিরল গ্রুপ ছবি (রুবেলের সৌজন্যে পাওয়া) মোহসীনের শোকাহত বন্ধু-সুহৃদদের সঙ্গে শেয়ার করছি। আল্লাহ সবার প্রিয় আবদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরীর শোকাহত আম্মা, স্ত্রী, পুত্র-কন্যা ও সব ভাইকে এ শোক কাটিয়ে ওঠার শক্তি দিন- সবাইকে নিরাপদে রাখুন, দীর্ঘায়ু দান করুন ( আমীন)।

আসাদ মান্নান ঃ কবি ও সদস্য পিএসসি

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৬৫ বার

Share Button

Calendar

October 2020
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031