মৌলভীবাজারে অঞ্জনা নামে এক হিজড়ার মৃত্যু – হত্যা না দূর্ঘটনা!

প্রকাশিত: ১২:৫৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০

মৌলভীবাজারে অঞ্জনা নামে এক হিজড়ার মৃত্যু – হত্যা না দূর্ঘটনা!

 

মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী : মৌলভীবাজার শহরের চাঁদনীঘাট ব্রিজের কাছে অঞ্জনা (আলমগীর আহমদ) নামের এক হিজড়া নিহত হয়েছে।

২৮ নভেম্বর শনিবার রাত ১০টা ২০মিনিটের দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে । সরজমিনে গিয়ে জানা যায় প্রায় সময় চাঁদনীঘাট ব্রিজের কাছে সংঘবদ্ধ একটি হিজড়া দল বিয়ের গাড়ী আটকিয়ে চাঁদা আদায় সহ নানা অপরাধ চালিয়ে যেত।

ঘটনার রাতে হিজড়া অঞ্জনা (আলমগীর হোসেন) এবং ঝর্ণা হিজড়া চাদনীঘাট ব্রিজের পাশে একটি দোকানের সামনে দাড়িয়ে থাকা অবস্থায় অঞ্জনার ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।

হিজড়া ঝর্ণা জানায় ঘটনাস্থলের সামনে একটি দোকানের সম্মূ্ুখে হঠাৎ দুজন লোক এসে অঞ্জনার উপর একটি ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে আঘাত করে এবং পরক্ষণে হিজড়া ঝর্ণা চৌহমনার দিকে দৌড় দেয় পুলিশকে খবর দিতে।

এসে দেখে অঞ্জনার লাশ রাস্তায় পরে আছে। এছাড়া ঝর্ণা আরো জানায়, যারা হামলা করেছে তাদের দেখলে চিনতে পারবে। আসলে কেন কি কারনে হিজড়া অঞ্জনার উপর হামলা এবং হত্যা তা এখনো পরিস্কার জানা যায় নি।

এসময় সদর মডেল থানার এস আই জাকির হোসেন জানান, এটা হত্যা নাকি দূর্ঘটনা তা এখনো বুঝা যাচ্ছে না। তদন্তের মাধ্যমে বিষয়টি পরবর্তীতে জানানো যাবে।

স্থানীয় বেশ লোকজন জানান এটি কোন দূর্ঘটনা নয় হত্যা। তবে এব্যাপারে নিশ্চিত করে কেউ কিছু বলতে পারেন নি।

উপস্থিত স্থানীয় কাউন্সিলর এবং বেশ কয়েকজন উক্ত ঘটনাকে খুব জঘন্য এবং নিন্দনীয় উল্লেখ করে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে যে বা যারা হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত তাদের বিচারের দাবী জানান।

নিহত হিজড়া অঞ্জনার (আলমগীর হোসেন) বাড়ি হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শ্রীক্ষরপুর গ্রামে বলে জানা গেছে।

নিহতের বোন এবং আপন ভাই অঞ্জনার মৃত্যু দূর্ঘটনায় নয় হত্যা বলেই ধারণা করছেন । এছাড়া সাথে থাকা হিজড়া ঝর্ণাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আসল তথ্য বেরিয়ে আসবে এবং দোষীদের চিহৃিত করে শাস্তির দাবী জানান।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি ইয়াসিনুল হক জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন তদন্তের মাধ্যমে জানা যাবে এটা হত্যা নাকি দূর্ঘটনা।