শিরোনামঃ-


» মৌলভীবাজারে এখন আলোচিত একটি নাম মোঃ জিল্লুর রহমান

প্রকাশিত: ১৭. জুন. ২০২০ | বুধবার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

মৌলভীবাজারে এখন আলোচিত একটি নাম মোঃ জিল্লুর রহমান ।তিনি বিশিষ্ট শিল্পপতি । অলিলা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক । এলাকার উন্নয়নে ব্যপক কাজ করছেন । বিশেষ করে তারাপাশা স্কুল ও কলেজের সভাপতি হিসেবে শিক্ষা বিস্তারে তার কাজ প্রশংসিত হয়েছে । সম্প্রতি একটি ইউনিয়ন পরিষদে ঘটে যাওয়া ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে কয়েকটি অনলাইন মিডিয়ায় সংবাদ প্রচারিত হয়েছে । এর প্রতিবাদে তার ছোট ভাই মোঃ আতাউর রহমান বলেছেন , এ সব সংবাদের কোন ভিত্তি নেই । আতাউর রহমান নিজে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ মৌলভীবাজার জেলা শাখার অর্থ সম্পাদক । তিনি বলেন , আমার পিতা আব্দুল মছব্বির ও বিশিস্ট শিল্পপতি ভাই জিল্লুর রহমানকে নিয়ে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে ।আমার বাবা, ভাই ও আমাদের পরিবারের লোকজন বরাবরই এদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাষী। আমরা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ, লালন করি এবং সে লক্ষ্যে কাজ করি। বাবা কামারচাক ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং এলাকায় মানুষের কল্যাণেকাজ করে গেছেন। কামারচাক ইউনিয়নের মানুষজন ভালোবাসেন। ধর্ম বর্ণ
নির্বিশেষে এই জনগণই আমার পরিবারে আপনজন। একটি মহল আমাদের বিরুদ্ধে নানা ধরণের মিথ্যা অভিযোগ উত্থাপন ক্রমে কুৎসা রটনা করে সমাজে নানা ভাবে হয়রানি ও অপমানিত করার
চেষ্ঠা করছেন। এ উদ্দেশ্যে ৮ নং মনসুরনগর ইউনিয়ন পরিষদের অভ্যন্তরিণ বিরোধকে কাজে লাগিয়ে আমার ও আমার পরিবারের সম্মানহানীর চেষ্টা করছেন। আমি পরিস্কার ভাবে বলতে চাই, আমার বাবা হাজী আব্দুল মছব্বির পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীকে কোন সহযোগিতা করেননি, কিংবা রাজাকারী কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত ছিলেননা। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামী ও মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে আমার পরিবারের অবস্থান ছিল। আমি ও আমার পরিবারের কোন সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী নয় এবং কেহ কোন দিন স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াতেইসলামীর রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত নয়। তাছাড়া, সংবাদের অপর একাংশে লেখাহয়েছে মনসুর নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিলন বখত এর বিরুদ্ধে পরিষদের মহিলা সদস্য যেমামলা দায়ের করেছেন সেই বিষয়টিতে আমার পরিবার কোনোভাবে সম্পৃক্ত নয় ।মিথ্যা তথ্য পরিবেশনকরে উদ্দেশ্যমুলক ভাবে আমাদের পরিবারের জন্য অবমাননাকর ও মর্যাদাহানিকর
এবং মানবাধিকার লঙ্গনের সামিল। উক্ত সংবাদ পাঠ করে আমি ও আমার পরিবারের
লোকজন বিস্মিত, মানষিক ভাবে আহত হয়েছি। ভিত্তিহীন অসত্য তথ্য পরিবেশন করা
হয়েছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৬০৫ বার

Share Button