» যানজট দূরীকরণে স্থায়ী ব্যবস্থায় পুলিশের স্বল্পতা আছে : পুলিশ সুপার

প্রকাশিত: ১৮. নভেম্বর. ২০১৯ | সোমবার


মো: আব্দুল কাইয়ুম ,মৌলভীবাজার:
মৌলভীবাজার শহরের যানজট দূরীকরণে পুলিশের সল্পতা আছে বলে মন্তব্য করেছেন পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার)। তিনি বলেন জেলায় যোগদান করার পর ভিন্নধর্মী কিছু করার জন্য চেয়েছি। সেই বিভিন্ন উদ্যেগের একটা অংশ ছিল শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে যানজট দূরিকরনে একটা স্থায়ী ব্যবস্থা করা। সেই স্থায়ী ব্যবস্থা করতে গেলে আমাদের পুলিশের সল্পতা আছে, সেজন্য আমি চেয়েছিলাম জনগণের অংশিদারিত্বের ভিত্তিতে কাজটা করতে। সেই বিষয় পরিকল্পনা করতে আমাদের সময় লেগে গেলো। যে পদ্ধতিটা আমরা নিয়েছি সেই পদ্ধতিটা যদি সফল হয় তাহলে এই মৌলভীবাজার জেলায় যতগুলি ক্রিটিক্যাল পয়েন্ট আছে, প্রত্যেকেটি পয়েন্টে আমরা স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করবো। কারন পুলিশ দিয়ে এভাবে আইন প্রয়োগ করতে গেলে বিভিন্ন কারনে ভুলবুঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। এখন ট্রাফিক স্ট্যান্ডে যদি ট্রাফিক স্ট্যান্ডের লোক থাকে তারাই যদি শৃঙ্খলাটা নিয়ে আসে তাহলে আমাদের আর আইন প্রয়োগ করতে হচ্ছেনা। তাহলে যে ভুলবুঝাবুঝি থেকে আইনশৃঙ্খলার অবনতি পর্যন্ত ঘটে থাকে সেই বিষয়টাও এখান থেকে আমরা পরিহার করতে পারবো।

সোমবার (১৮নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে মৌলভীবাজার শহরের এসআর প্লাজার সামনের ট্রাফিক বক্সে কার্যকর হওয়া নতুন সড়ক আইন নিয়ে ব্যপক প্রচার প্রচারণা , গাড়ি চালকদের মাঝে লিফলেট বিতরণ ও ট্রাফিক স্বেচ্ছাসেবকদের পোষাক বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধনকালে প্রধান অথিতির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক সালাউদ্দিন মোহাম্মদ কাজল এর সঞ্চালনায় স্বেচ্ছাসেবকদের পোষাক বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম উমেদ আলী, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সালেহ এলাহী কুটি প্রমুখ। বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিক ছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন, ওসি তদন্ত পরিমল চন্দ্র দেব, ট্রাফিক পরিদর্শক (প্রশাসন) মোহাম্মদ উল্লাহ ও ট্রাফিক পুলিশের টিএসআই (প্রশাসন) মো: আবুল কালামসহ ট্রাফিক পুলিশের দ্বায়িত্বরত কর্মকর্তারা।

নতুন কার্যকর হওয়া সড়ক আইন নিয়ে পুলিশ সুপার বলেন , নতুন সড়ক পরিবহন আইন নিয়ে আজকের শ্লোগান আমরা নির্ধারণ করেছি ’’জরিমানা বা শাস্তির ভয়নয়, আপনাদের নিজেদের নিরাপত্তার স্বার্থে আইনটি মেনে চলুন’’ সেজন্য আমরা নতুন এই আইনের ব্যাপক প্রচার প্রচারণার জন্য জনসচেতনতার লক্ষে আজকের এই আয়োজন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৮৮ বার

Share Button