» রিমাণ্ডে গেলেন প্রধান নৌ প্রকৌশলী

প্রকাশিত: ১৯. এপ্রিল. ২০১৮ | বৃহস্পতিবার

কামরুজ্জামান হিমু

নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এস এম নাজমুল হককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একদিনের হেফাজতে পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ঘুষ নেওয়ার সময় তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানা গেছে ।

দুদকের সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদের সাত দিনের হেফাজতের আবেদন শুনে বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম মুহম্মদ ফাহ্দ বিন আমিন চৌধুরীর আদালত এই আদেশ দেন।

আদালতে হেফাজতের আবেদনের পক্ষে আইনজীবী মোহাম্মদ আবুল হাসান বক্তব্য দেন। অন্যদিকে নাজমুল হকের পক্ষে রিমান্ড বাতিল চান আইনজীবী গোলাম মোস্তফা খান ও মোসলেহ উদ্দিন জসিম।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, “মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইনসের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামে যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নকশা অনুমোদন এবং নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তিপত্র প্রদানের জন্য নগদ ৫ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণকালে নাজমুল হককে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে দুদক। মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটন ও ঘটনার সঙ্গে অন্য কারো সংশ্লিষ্টতা আছে কি না-তা জানার জন্য জেলহাজতে আটক নাজমুল হককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড প্রয়োজন।”

গত ১২ এপ্রিল বিকালে সেগুনবাগিচার একটি রেস্তোরাঁয় বসে ‘ঘুষের পাঁচ লাখ টাকা’ নেওয়ার সময় নাজমুলকে গ্রেপ্তার করে দুদকের ঢাকা বিভাগের পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি দল।

এর পর গত সোমবার তাকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সরকার।

এর আগে গত বছরের ১৮ জুলাই নিজের কার্যালয়ে বসে ‘ঘুষ নেওয়ার সময়’ নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের তৎকালীন প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম ফখরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছিল দুদক। তিনি এখন জামিনে রয়েছেন।

ফখরুল ইসলাম গ্রেপ্তার হওয়ার পর গত বছরের ২০ অগাস্ট এই পদে চলতি দায়িত্বে আসেন নাজমুল হক।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৮৬ বার

Share Button

Calendar

August 2020
S M T W T F S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031