শিরোনামঃ-


» শপথ নিলেন প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরা ও পূর্ণমন্ত্রী ইমরান

প্রকাশিত: ১৪. জুলাই. ২০১৯ | রবিবার

শপথ নিলেন প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা ও পূর্ণমন্ত্রী ইমরান আহমদ।
নতুন প্রতিমন্ত্রী ইন্দিরাকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আর পদোন্নতি পেয়ে মন্ত্রী হওয়া প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমদকে আগের মন্ত্রণালয়েই রয়ে গেলেন ।

রুলস অব বিজনেসের ক্ষমতাবলে প্রধানমন্ত্রী এদের দপ্তর বণ্টন করেছেন বলে শনিবার রাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক আদেশে জানানো হয়েছে।

এর আগে সন্ধ্যায় বঙ্গভবনের দরবার হলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ইমরানকে মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ইন্দিরাকে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ পড়ান।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল বিজয়ের পর গত ৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে টানা তৃতীয় মেয়াদে শপথ নেন শেখ হাসিনা। ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপমন্ত্রীকে নিয়ে নতুন সরকারের মন্ত্রিসভা সাজান তিনি।

পাঁচ মাসের মাথায় মন্ত্রিসভায় প্রথম পরিবর্তন এলেও সে সময় নতুন কাউকে নেওয়া হয়নি।

প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে তথ্যে বদলি করা হয়। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে দায়িত্বরত মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়।

এখন একজনের পদোন্নতি এবং একজনের অন্তর্ভুক্তিতে মন্ত্রিসভায় মন্ত্রীর সংখ্যা বেড়ে হল ২৫ জন। প্রতিমন্ত্রীর সংখ্যাও একজন বেড়ে হল ২০ জন। উপমন্ত্রীর সংখ্যা তিনজনই থাকল।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে এতদিন কোনো মন্ত্রী ছিলেন না। সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে একাই দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন।

দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত ব্যবসায়ী ইমরান ১৯৮৬ সাল থেকে ছয় বার সংসদে প্রতিনিধিত্ব করছেন। তার স্ত্রী অধ্যাপক নাসরিন আহমদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য।

আর মুন্সীগঞ্জের মেয়ে ইন্দিরা ইডেন কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি। তিনি মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। টানা তৃতীয়বার সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য হিসেবে সংসদে রয়েছেন তিনি।

শপথ নেওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ইন্দিরা সাংবাদিকদের বলেন, “রাজনৈতিকভাবে আমি দীর্ঘদিন নারীদের সাথে কাজ করেছি। এত বছর পর মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কাজ করতে পারব। আমি আনন্দিত। আপনারা সহযোগিতা করবেন।

দলের নির্বাচনী ইশতেহারে নারী ও শিশুর উন্নয়নে যা যা বলা হয়েছে সেগুলো বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করব।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৪৬ বার

Share Button

Calendar

November 2020
S M T W T F S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930