» ‘শিবির’ বলে মধুতে ছাত্রলীগ কর্মীদের উপর হামলা

প্রকাশিত: ১৪. মে. ২০১৯ | মঙ্গলবার


সাদ্দাম হোসেন, ঢাবি প্রতিনিধি

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে পদবঞ্চিতরা গতকাল (১৩ই মে) সন্ধ্যায় মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করতে গেলে নতুন কমিটিতে পদপ্রাপ্তরা তাদেরকে শিবির অ্যাখ্যা দিয়ে বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। হামলার শিকার ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের অভিযোগ নতুন কমিটিতে পদপ্রাপ্তদের অনেকেই বিবাহিত, অযোগ্য ও ভিন্ন ধারার রাজনীতির সাথে ইতোপূর্বে জড়িত ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র থেকে জানা যায়, গতকাল ছাত্রলীগের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি ঘোষণার পরপরই নতুন কমিটিতে পদবঞ্চিত হওয়া ছাত্রলীগের একাংশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করতে যায়। পরে সেখানে ছাত্রলীগের নতুন কমিটিতে পদ পাওয়া নেতাকর্মীরা এসে সংবাদ সম্মেলন করতে বাধা দেয় ও তাদের শিবির অ্যাখ্যা দিয়ে স্লোগান দেয় এবং উভয়পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডারর ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ে পদপ্রাপ্ত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পদবঞ্চিতদের উপর হামলা চালায়। তারা চেয়ার দিয়ে রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও ডাকসুর ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক বিএম লিপি অাক্তার, কুয়েত মৈত্রী হলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শ্রাবণী শায়লা, কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক উপসম্পাদক তিলোত্তমা শিকদার এবং ডাকসুর সদস্য তানভীর শাকিলসহ আরো অনেককে পিটিয়ে রক্তাত্ব করে। এ ঘটনায় আহতদের সবাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে বলে জানা গেছে।

এদিকে নতুন কমিটিতে সহ-সভাপতি পদপ্রাপ্ত সোহানী তিথি, ইশাত কাশফিয়া ইরা ও সাদিক খান, সাংস্কৃতিক বিষয়ক উপসম্পাদক পদপ্রাপ্ত আফরিন সুলতানা লাবণী ও রুশী চৌধুরী এবং সহসম্পাদক পদপ্রাপ্ত আনজুমান আরা আনু ও সামিহা সরকার সুইটি বিবাহিত বলে একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে। ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ৫ এর গ ধারা অনুযায়ী বিবাহিতরা ছাত্রলীগে পদ পাবে না বলে বিধান রয়েছে। যা এই কমিটি দেয়ার ক্ষেত্রে লঙ্ঘন করেছেন ছাত্রলীগ সভাপতি রেজোয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

এব্যাপারে জানার জন্য ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও তারা ফোন তোলেননি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫১ বার

Share Button

Calendar

May 2019
S M T W T F S
« Apr    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031