» শ্রীমঙ্গলে আলোচিত স্কুল ছাত্র হত্যার ঘটনায় জড়িতদের ২৪ ঘন্টার মধ্যে আটক করলো পুলিশ

প্রকাশিত: ১৬. জানুয়ারি. ২০২০ | বৃহস্পতিবার


পংকজ কুমার নাগ শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: শ্রীমঙ্গলে আলোচিত নবম শ্রেণীর স্কুল ছাত্র মো. ইব্রাহিম মিয়া রকি হত্যাকেন্ডের দুই আসামী সাব্বির মিয়া ও তার সহযোগী ফয়সাল মিয়াকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয় শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ ।

“চড়ের বদলা নিতে বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন” শিরোনামে শ্রীমঙ্গল থানা কর্তৃক প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ হত্যাকাণ্ডের আসামী ও তাদের জবানবন্দি উপস্থাপন করা হয় । 
আনুমানিক ১ মাস পূর্বে দুই বন্ধুর মধ্যে সিনিয়র-জুনিয়র নিয়ে ঝামেলা বাঁধে । এতে তাদের মধ্যে হাতাহাতিরও ঘটনা ঘটে । গত এক মাস তাদের মধ্যে কোন কথাবার্তা বা যোগাযোগ হয়নি । তবে সাব্বির মিয়া প্রতিশোধ নিতে মনে মনে সুযোগ খুঁজতে থাকে ।
১৩ জানুয়ারি আসামী সাব্বির, ইব্রাহিম মিয়া রকিকে হত্যার পরিকল্পনা করে । পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী আসামী সাব্বির তার আরেক বন্ধু মো. ফয়সল মিয়ার সাথে শ্রীমঙ্গল স্টেশন রোডে দেখা করে হত্যার ছক সাজায় । সে মোতাবেক সাব্বির রকিকে ফোন দিলে ইব্রাহিম মিয়া রকি জানায়, সে রেলগেইট এলাকায় আছে । পরে আসামী সাব্বির মিয়া ও ফয়সাল মিয়া শ্রীমঙ্গলের ভানুগাছ রোডের রেলগেইট এলাকায় গিয়ে ইব্রাহিমকে একটি অনুষ্ঠানে নিয়ে যাবার কথা বলে দক্ষিণ ভাড়াউড়া চা বাগানে নিয়ে যায় । আর সেখানেই খুন করা মো. ইব্রাহিম মিয়া রকিকে । জবানবন্দীতে এমনটাই জানায় হত্যাকান্ডে জড়িত সাব্বির মিয়া ও ফয়সল মিয়া । 

এর আগে বুধবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে আসামীদেরকে মৌলভীবাজার চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে তারা হত্যার ঘটনা স্বীকার করে নিয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় । জবানবন্দীতে তারা আরও জানায়, ভাড়াউড়া চা বাগানে নিয়ে সাব্বির মিয়া ইব্রাহিমের মুখে হাত দিয়ে চেপে ধরে মাটিতে শুয়ে দেয়, পরে ফয়সাল মিয়া তার হাতে ধরে এবং সাব্বির মিয়া মুখে স্কচটেপ দিয়ে মুখে ও গলায় পেঁচিয়ে প্রায় ১০ মিনিট গলায় হাত দিয়ে চেপে ধরে বুকের উপরে বসে থাকে । তখন ফয়সাল মিয়া ইব্রাহিমের পা চেপে ধরে রাখে । পরে ইব্রাহিম নিস্তেজ হওয়ার পর তারা দুইজন মিলে ভিকটিমের জ্যাকেটে ধরে টেনে গাছের কাছে আনে এবং একটি কালো রঙের চাদর ও ইব্রাহিমের পরহিত প্যান্টের বেল্ট গলায় সাথে পেঁচিয়ে গাছের সাথে বেঁধে রাখে। পরে তারা দু’ জনে বাড়িতে চলে আসে ।

গত ১৪ জানুয়ারি রাতে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে সনাক্ত করে শ্রীমঙ্গলের সিন্দুরখান রোডস্থ খাসগাঁও এলাকার স্টেশন রোড থেকে সাব্বির মিয়া ও খাসগাঁও এলাকা হতে ফয়সাল মিয়াকে গ্রেপ্তার করে।
উল্লেখ্য গত ১৪ জানুয়ারি সকাল ১১টায় শ্রীমঙ্গলের ফিনলে কোম্পানির ভুড়ভুড়িয়া চা বাগানের একটি গাছের সাথে বাঁধা অবস্থায় মো. ইব্রাহিম মিয়া রকির মরদেহ উদ্ধার করে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ । লাশের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের সনাক্ত করতে মৃতদেহের সাথে থাকা কালো চাদরের ব্যবহারকারী ও তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামীদের সনাক্ত করা হয় ।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬৩৪ বার

Share Button