» সিলেটের ঐতিহ্য রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ নাগরিক সমাজের উদ্যোগ

প্রকাশিত: ২৬. মে. ২০১৯ | রবিবার

শাহাদত বখত

সিলেটের ঐতিহ্য রক্ষায় ঐক্যবদ্ধ নাগরিক সমাজের উদ্যোগে শনিবার পঁচিশ মে রাত দশটায় স্হানীয়একটি রেষ্টুরেন্টের সম্মেলন কক্ষে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়।

ব্যারিষ্টার আরশ আলীর সভাপতিত্বে এবং বাপা সিলেট শাখার সাধারন সম্পাদক আব্দুল করিম কিমের সঞ্চালনায় এই সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেটের রাজনৈতিক,সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ।

শতবছরের ঐতিহ্যের স্মারক ‘আবুসিনা ভবন’ রক্ষার চলমান আন্দোলনে সিলেটে সর্বস্তরের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার উদাত্ত আহ্বান জাননো হয়।

“চৌহাট্টার মতো তীব্র যানজট যুক্ত এলাকায় আর হাসপাতাল নির্মাণ না করে যানজট মুক্ত রোগীবান্ধব এলাকায় এই হাসপাতালটি নির্মাণ করে সকলের জন্য স্বাস্থ্য সেবা নেওয়ার পথ অধিকরতর সহজতর করতে সংশিষ্ট মন্ত্রনালয় (Health Ministry) র প্রতি যথাযথ নির্দেশনা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে ,সভায় অভিমত ব্যক্ত করা হয়”।

উক্ত হাসপাতাল নির্মাণের প্রস্তাবিত স্হানের নাকের ডগায় আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ। যেখানে প্রায়শই ওয়াজ মাহফিল,রাজনৈতিক দলের জনসভা ,নামাজে জানাযা,ঈদের জামাত অনুষ্টিত হয়ে থাকে। হাজার হাজার মানুষ এতে অংশ গ্রহন করে থাকেন। যার ফলে ঘন্টার পর ঘন্টা অত্র এলাকা সীমাহীন যানজোট ও জনদুর্ভোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

হজরত শাহজালাল (র;) বার্ষিক ওরশ মোবারকে দেশের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে হাজার হাজার ভক্ত আসেকানদের সমাগম ঘটে থাকে। ওরশের শিরনী
বিতরনের সময় যে কয়টা গেইট ব্যবহৃত হয়ে থাকে তারও একটি প্রস্তাবিত হাসপাতালের নাকের ডগায় অবস্হিত।

প্রস্তাবিত হাসপাতালের কয়েকশ গজ দুরে সিলেট জেলা ষ্টেডিয়াম। ষ্টেডিয়ামের ফ্লাড লাইটের তীব্র আলোকচ্ছটা আর দর্শকদের হর্ষধ্বনি বহু দুর থকে দেখা ও শুনা যায়।আর প্রস্তাবিত হাসপাতালের স্হানটি তো মাত্র কয়েকশ গজের মধ্যে অবস্থিত যা কোন অবস্হাতই হাসপাতালের মতো একটি প্রতিষ্ঠানের জন্য রোগী বান্ধব পরিবেশ হতে পারে না।

তাছাড়া ও আম্বরখানা পয়েন্টের ভয়াবহ যানজোট ,চৌহাট্টা পয়েন্ট, নয়াসডক পয়েন্টের তীব্র যানজোটে নগরবাসী অতিষ্ঠ । এককথায় যানজোটের আখড়া বলে খ্যাত এই স্হানে আর হাসপাতাল নির্মাণ নেহাতই আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত হিসাবে পরিগনিত হবে।

তাই অনতিবিলম্বে “অস্বাস্হকর “ অযুক্তিক এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে রোগীবান্ধব স্হান নির্বাচন করে নতুন হাসপাতাল নির্মাণ করে শতবছরের ঐতিহ্যে লালিত “আবুসিনা ডবন”পরিপূর্ন এবং যথাযথ ভাবে সংরক্ষন
করতে এই সভায় আরো অভিমত ব্যক্ত করা হয়।”

সভায় আগামী ২৯মে বেলা দুইটায় কোর্ট পয়েন্টে প্রতিবাদ সমাবেশে ও ৩০ মে সকাল এগারটায় জেলা প্রশাসকের নিকট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি প্রধানের কর্মসূচিতে অংশ গ্রহন করতে সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৮২ বার

Share Button

Calendar

July 2020
S M T W T F S
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031