শিরোনামঃ-


» ২৬ নং ওয়ার্ডকে নিরাপদ জোন করবো : হাসিবুর রহমান মানিক

প্রকাশিত: ৩১. জানুয়ারি. ২০২০ | শুক্রবার

মোহাম্মদ অলিদ সিদ্দিকী তালুকদার :

ঘনিয়ে এসেছে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন । শেষ মুহূর্তে গণসংযোগে ব্যস্ত সময় পার করেছেন মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলররা। এদিকে বসে নেই তাদের পরিবারের সদস্যরা ও। তাঁরা ও সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন। স্বজনের জন্য ভোট চাইছেন।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের প্রচারণার শেষ দিন আজ বৃহস্পতিবার রাত ১২ টায়। ডিএনসিসিতে মেয়র প্রার্থী ছয়জন, ডিএসসিসিতে সাতজন।

ডিএসসিসির – ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আজিমপুর, নীলক্ষেত, ও লালবাগের ( একাংশ ) নিয়ে গঠিত । এ ওয়ার্ডে ক্ষমতাসীন দলের সমর্থন পেয়েছেন গত ২০১৫ সালের নির্বাচনে স্বতন্ত্র বিজয়ী প্রার্থী বর্তমান কাউন্সিলর ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ হাসিবুর রহমান মানিক । তিনি রেডিও প্রতীক নিয়ে লড়ছেন । গত নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে স্বতন্ত্র হিসেবে বিজয়ী হওয়ায় এবং এলাকায় সর্বসেরা উন্নয়নে ভূমিকা রাখায় এবার তাঁকেই বেছে নিয়েছেন আওয়ামী লীগের হাইকমান্ড । এলাকার সর্বস্তরের বাসিন্দারা ও তার কর্মী সমর্থকরা এ প্রতিবেদককে বলেন এই নির্বাচনে মানিক দ্বিতীয়বার নির্বাচিত হলে চলমান উন্নয়ন প্রকল্প শেষ করে একটি মডেল ওয়ার্ড গড়তে চান ।

নিরাপদ জোন হিসেবে গড়ে তুলতে চান ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন( ডিএসসিসি) ২৬ ওয়ার্ডে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক। আজ বৃহস্পতিবার একান্ত আলাপকালে এসব কথা জানান তিনি। মানিককে প্রশ্ন করা হয় দ্বিতীয় বারের মতো নির্বাচিত হলে কী কী কাজ করবেন তিনি ।
মানিক বলেন এই বিষয়ে আমি আগেই থেকে ওয়ার্ড পরিক্রমা অনুযায়ী একটি উন্নয়ন মুলক মাষ্টারপ্ল্যান ও কার্যকর পদক্ষেপ তৈরি করে রেখেছি । নির্বাচিত হওয়ার পর সেই গুলো পুরোধমে বাস্তবায় করবো। বিশেষ করে পরিকল্পিত বাসযোগ্য ও নিরাপদ ওয়ার্ড গড়তে কাজ করবেন তিনি । জলাবদ্ধতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা রয়েছে তার। এই এলাকায় ট্রাফিকের চাপ ও মানুষের চলাচল বেশি হওয়ায় বিশুদ্ধ বায়ুর ওপর চাপ পরে। সবুজ বাগান করার মতো খালি জায়গা নেই। তাই তাঁর ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগণকে উৎসাহীত করবেন যাতে তাদের প্রত্যকের বাসার বিল্ডিংয়ের ছাদে বাগান করেন এতে প্রয়োজনীয় হলে তিনি নিজের উদ্যোগ থেকে ও সার্বিক সহযোগিতা করা হবে । ফুটপাত দখলমুক্ত করে পথচারীদের অবাধ চলাচলের ব্যবস্থা করে দেবেন । এতে প্রয়োজনীয় হলে হকারদের জন্য আলাদা জায়গা করে দেবেন ।

মানিক বলেন – রাস্তার ওপর কোনো ময়লা ড্রাম থাকবেনা । সড়কে ময়লা ফেলতে দেওয়া হবে না। ওয়ার্ডের সবার বাড়ি বাড়ি ময়লার গাড়ি যাবে । সেখান থেকে ময়লা নিয়ে যাবে। তাছাড়া শিশুদের জন্য আরও বিনোদনের উপকরণ কেন্দ্র তৈরি করবেন । মানিক বলেন জনগণের কাছ থেকে ব্যাপক হাড়ে সারা পাচ্ছি । বিগত পাঁচ বছর জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী এই ২৬ নম্বর ওয়ার্ডকে উন্নয়নের রুপ ধারণ করতে সক্ষম হয়েছি। ফুটপাত কেন্দ্রীক যে চাঁদাবাজি তা বন্ধ করে এই ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত একটি আধুনিক ওয়ার্ড বানাব। বর্তমানে ওয়ার্ডে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন আছে পর্যায়ক্রমে সমস্ত ওয়ার্ডকে সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় নিয়ে আসবো। ১৮ বছরের যুবক থেকে শুরু করে বয়োবৃদ্ধ পর্যন্ত সকলকে আইডি নাম্বার দেব যার মধ্যে সকল প্রকার তথ্য থাকবে । যাতে কোনো প্রকার অপরাধ সংঘটিত হলে সাথে সাথে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত শনাক্ত করতে পারে। প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে সকল প্রকার অবৈধ ব্যবসা বন্ধ করব। মানিক নিজেকে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একনিষ্ঠ কর্মী দাবি করে তিনি বলেন আমি জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধুকে ভালোবাসি। জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্শীবাদ নিয়ে আমি রাজনীতিতে বড় পরিসরে মানুষের সেবা করতে চাই এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ও সেবামূলক কার্যক্রম গতিশীল করতে চাই । আমি ছাত্র জীবন থেকে আওয়ামী ছাত্রলীগের সাধারণ একজন মাঠ কর্মী থেকে, ওয়ার্ড, থানা, ইউনিটসহ কেন্দ্রীয় ও কমিটিতে নিজের যোগ্যতা নিয়ে প্রাণ প্রিয় সংগঠন ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরে কাজ করেছি। সেই হিসেবে আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ভিত্তিতে আর জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্শীবাদ নিয়ে তাঁর একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই আওয়ামী লীগেই কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ । এখনও আওয়ামী লীগের সকল কর্মকাণ্ডে ও দলের ক্লান্তিলগ্নে সবসময় সামনের সারিতে ছিলাম সেই হিসেবে আমৃত্যু পর্যন্ত থাকব।

হাসিবুর রহমান মানিক তাঁর প্রতীক রেডিও মার্কা বরাদ্দ পাওয়ার পর থেকে ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে অলিতে-গলিতে নিজের ভোট চাওয়ার পাশাপাশি ( ডিএসসিসির ) দলীয় মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নুর তাপস এর নৌকা প্রতীকের জন্য ও তাঁর ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগণ এর নিকট ভোট চেয়ে তাপসকে বিজয়ী করার জন্য ওয়ার্ডবাসীর নিকট জোড়ালো ভাবে আহবান জানিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন মানিক।

মানিক আরও বলেন পুনরুজ্জীবিত পুরান ঢাকা গড়তে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের ঐতিহ্য সংরক্ষণ সৌন্দর্য ও গতিশীলতা বৃদ্ধি এবং সুশাসন ও সমন্বিত উন্নয়নের রপরেখা সুন্দর – সচল- সুশাসিত – উন্নত করার পথে নতুন যাত্রা শুরু করবেন তিনি। মানিক দৃঢ়তারর সঙ্গে বলেন বিজয় গ্রহণের ৯০ দিনের মধ্যেই মৌলিক সব নাগরিক সুযোগ – সুবিধা নিশ্চিত করব ইনশাআল্লাহ ।

ঐতিহ্যের ঢাকাঃ চারশ বছরের পুরনো এ নগরীর ইতিহাস – ঐতিহ্য, প্রত্নতাত্ত্বিক গুরুত্ব ও সাংস্কৃতিক বৈচিত্র তুলে ধরে মানিক বলেন পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী খাবারের স্বাদ অনন্য ; ধর্ম – বর্ণ নিমিশেষে নানা উৎসবসহ রয়েছে স্বকীয় সাংস্কৃতিক ধারা।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৬৫ বার

Share Button