শিরোনামঃ-

» মৌলভীবাজারে জোড়া খুনের প্রতিবাদে মানবন্ধন

প্রকাশিত: ২০. ডিসেম্বর. ২০১৭ | বুধবার

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: সম্প্রতি শান্তিপ্রিয় মৌলভীবাজার শহরের বহুল আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ আলী সাবাব ও ছাত্রলীগ কর্মী এবং সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী নাহিদ হোসেন মাহির হত্যা করা হয়। হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে ১৪ দিন পর এঘটনায় অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২০ডিসেম্বর ) সকাল ১১টার দিকে মৌলভীবাজার শহরের প্রেসক্লাব চত্বরে ক্ষমতাশীন আওয়ামীলীগ, বিএনপি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, নিহত সাবাব ও মাহির পরিবারের সদস্য, সহপাঠিসহ সর্বস্তরের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।

সমাজকর্মী কয়ছর আহমদ এর সঞ্চালনায় ও নাট্য ব্যাক্তিত্ব খালেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে সচেতন মৌলভীবাজারবাসীর ব্যানারে প্রতিবাদী এই মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুর রহমান বাবুল , জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও পৌর মেয়র ফজলুর রহমান , জেলা যুবলীগ সভাপতি নাহিদ আহমদ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল করিম সুমন, জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান মিজান, যুবলীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখ রুমেল আহমদ, জেলা মহিলা সংস্থার সভাপতি সৈয়দা জহুরা আলাউদ্দিন, নিহত ছাত্রলীগ নেতা সাবাব এর পিতা আবু বক্কর সিদ্দিক, মা মিসেস সেলিনা চৌধুরী, ভাই উসমান গনি শাকিল , মামা  ক্রীড়া সংঘঠক শাম্মির হাবিব চৌধুরী রবিন, মাহির মামা ইমরান আলী প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় নির্মম এই জোড়া খুনের ঘটনার ১৪দিন পার হয়ে গেলেও চিহ্নিত খুনিদের গ্রেফতারে বিষয়ে পুলিশের ভুমিকায় হতাশা প্রকাশ করে তাদের দ্রুত গ্রেফতারে ৭দিনের আল্টিমেটাম প্রদান করেন এবং নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আলোচিত এই হত্যাকান্ডের আসামীদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে সচেতন মৌলভীবাজারবাসীকে সাথে নিয়ে পরবর্তি সময়ে কর্মসূচী গ্রহন করা হবে। সমাবেশে নিহত সাবাব ও মাহির স্বজনেরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়লে আশে পাশের পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে। এ সময় ঐ দুই পরিবারের স্বজনেরা তাদের সন্তানদের বিচার দাবি করে আর যেন কোন মায়ের কোল খালি না হয় তা নিশ্চিত করতে সরকারের কাছে আহ্বান জানান।
উল্লেখ্যঃ গত ৬ ডিসেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে শহরের সাইফুর রহমান অডিটোরিয়ামের  পেছনের নির্জন জায়গায় ছাত্রলীগের অভ্যান্তরিন কোন্দলের শিকার হয়ে সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ও শহরের ২৯ পুরাতন হাসপাতাল সড়কের বাসিন্দা , সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিকের কনিষ্ঠ পূত্র মোহাম্মদ আলী সাবাব (২২) ও দূর্লভপুর গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে এবং মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের এস.এস.সি পরিক্ষার্থী নাহিদ আহমদ মাহির (১৭) কে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে কুপিয়ে নৃশংস কায়দায় হত্যা করা হয় ।

734 total views, 0 views today

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭২৬ বার

Share Button

Calendar

February 2018
S M T W T F S
« Jan    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728