» শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ০৪. ফেব্রুয়ারি. ২০১৮ | রবিবার

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে বাংলাদেশ মুমিনুল হক ও লিটন দাসের দৃঢ়তায় উইকেটশূন্য প্রথম সেশনে ১০৬ রান যোগ করেছে । অন্যদিকে পঞ্চম ও শেষ দিনের লাঞ্চে যাওয়ার আগে ২৮.১ ওভার বোলিং করে কোনো সাফল্য পায়নি শ্রীলঙ্কা।

প্রথম সেশন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৮৭ রান। মুমিনুল ৭০ ও লিটন ৪৭ রানে অপরাজিত। স্বাগতিকরা এখনও ১৩ রানে পিছিয়ে।

প্রথম আধ ঘণ্টায় উইকেট থেকে কিছুটা সুবিধা পেয়েছেন স্পিনাররা। সেই সময়টা ভুগিয়েছে লিটনকে। প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে ফেরা উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান তখন উইকেট পড়েছিলেন মাটি কামড়ে।

কঠিন সময়টা পার করে দিয়ে নিজের সব শট খেলেছেন লিটন। কিছু রিভার্স সুইপও করেছেন তিনি।

স্পিন খুব একটা ভোগাতে পারেনি মুমিনুলকে। ক্রিজ ব্যবহার করে খেলছেন বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। এক টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান করা মুমিনুলের সামনে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে দুই ইনিংসে সেঞ্চুরির হাতছানি।

মুমিনুল হক ও লিটন দাসের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে চট্টগ্রাম টেস্টে লড়ছে বাংলাদেশ। তাদের ব্যাটে দ্বিতীয় ইনিংসে নিজেদের প্রথম শতরানের জুটি পেয়েছে স্বাগতিকরা।

১৫৯ বলে তিন অঙ্কে যায় চতুর্থ উইকেট জুটির রান। এতে দুই ব্যাটসম্যানেরই অবদান সমান- ৪৭ করে। বাকি ছয় রান আসে অতিরিক্ত থেকে।

৫৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৮২/৩। মুমিনুল ৬৫ ও লিটন ৪৭ রানে ব্যাট করছেন।

এক টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন মুমিনুল হক। বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান পেছনে ফেলেছেন তামিম ইকবালকে।

২০১৫ সালে খুলনায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ২৩১ রান করেছিলেন তামিম। প্রথম ইনিংসে ২৫ রান করা বাঁহাতি ওপেনার দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ২০৬ রান। তার দারুণ ব্যাটিংয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট বাঁচায় বাংলাদেশ।

চট্টগ্রাম টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে মুমিনুল করেন ১৭৬ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে ফিফটি পাওয়া ব্যাটসম্যান ছাড়িয়ে যান তামিমকে।

৬১ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৭২/৩। মুমিনুলের রান তখন ৬১। সব মিলিয়ে প্রথম টেস্টে এখন পর্যন্ত বাঁহাতি টপ অর্ডার তুলেছেন ২৩৭ রান।

প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করা মুমিনুল হক দ্বিতীয় ইনিংসে তুলে নিয়েছেন ফিফটি। তার ক্যারিয়ারের ত্রয়োদশ।

দিলরুয়ান পেরেরার বল মিডউইকেটে দিয়ে খেলে ৩ রান নিয়ে পঞ্চাশে যান মুমিনুল। ৭৮ বলে ফিফটি পেতে হাঁকান দুটি চার ও একটি ছক্কা।

৪৩ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৫০/৩। মুমিনুল ৫০ ও লিটন দাস ৩৩ রানে ব্যাট করছেন। স্বাগতিকরা এখনও পিছিয়ে ৫০ রানে।

উইকেটশূন্য প্রথম ঘণ্টায় ৬৫ রান

ইতিবাচক ব্যাটিংয়ে কোনো উইকেট না হারিয়ে প্রথম ঘণ্টা কাটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। ১৫.১ ওভারে মুমিনুল হক ও লিটন দাস তুলে নিয়েছেন ৬৫ রান।

মুমিনুল ডিফেন্সের পাশাপাশি শট খেলছেন বেরিয়ে এসে। শুরুর কঠিন সময়টা কাটিয়ে উইকেটে জমে গেছেন লিটন দাস। বাজে তুলে নিচ্ছেন বাউন্ডারি।

৪২ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৪৭/৩। মুমিনুল ৪৮ ও লিটন ৩২ রানে ব্যাট করছেন। বাংলাদেশ এখনও ৫৩ রানে পিছিয়ে।

প্রথম ইনিংসে দুই জনের জুটি টিকেছিল মাত্র এক বল। শূন্য রানে ভেঙেছিল জুটি। দ্বিতীয় ইনিংসে প্রতিরোধ গড়েছেন দুই জনে। অচ্ছিন্ন চতুর্থ উইকেটে ৮০ বলে পঞ্চাশ ছুঁয়েছে মুমিনুল হক ও লিটন দাসের রান।

প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান মুমনিুল হক খেলছেন দারুণ। শুরুর কঠিন সময়টা পার করে দেওয়া লিটন দাস খেলছেন নিজের মতো করে।

৪১ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৩৮/৩। মুমিনুল ৪৬ ও লিটন ২৬ রানে ব্যাট করছেন। স্বাগতিকরা এখনও পিছিয়ে ৬২ রানে।

পঞ্চম ও শেষ দিনের সকালে উইকেট থেকে সহায়তা পাচ্ছেন স্পিনাররা। বল টার্ন করছে, খানিকটা বাউন্সও করছে। দুই স্পিনার নিয়ে আক্রমণ শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা।

আস্থার সঙ্গে খেলছেন মুমিনুল হক। রঙ্গনা হেরাথকে বেরিয়ে এসে মাথার ওপর দিয়ে হাঁকিয়েছেন ছক্কা। প্রথম ইনিংসে গোল্ডেন ডাকের স্বাদ পাওয়া লিটন দাস সঙ্গ দিয়ে যাচ্ছেন মুমিনুলকে। তাদের ব্যাটে একশ পেরিয়েছে বাংলাদেশের সংগ্রহ।

৩২ ওভার শেষে স্বাগতিকদের স্কোর ১০৩/৩। মুমিনুল ৩৩ ও লিটন ৪ রানে ব্যাট করছেন। বাংলাদেশ এখনও পিছিয়ে ৯৭ রানে।

পঞ্চম দিনের উইকেটে ব্যাটিং সব সময়ই কঠিন। ৭ উইকেট নিয়ে সেই দিনটি কাটিয়ে দেওয়া আরও বড় চ্যালেঞ্জ। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে তেমন সমীকরণের সামনে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানদের ওপর আস্থা রেখে তাইজুল ইসলাম মনে করেন, ম্যাচ বাঁচাতে পারবেন তারা।

চতুর্থ দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৮১ রান। স্বাগতিকরা এখনও পিছিয়ে ১১৯ রানে।

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে রোববার পঞ্চম ও শেষ দিনের খেলা শুরু হবে সকাল সাড়ে নয়টায়।

উইকেটে স্পিনারদের জন্য এখনও খুব বেশি সহায়তা নেই। তবে রঙ্গনা হেরাথ, দিলরুয়ান পেরেরা ও লাকশান সান্দাকানের ওপর আস্থা রেখে জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী নিরোশান ডিকভেলা।

বোলিং ফুটমার্কে বল পড়লে বেশ টার্ন করছে। এক জায়গায় টানা বল করে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের চাপে রেখে উইকেট তুলে নিতে চায় অতিথিরা।

চতুর্থ দিন শেষে স্কোর:

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস: ২৬.৫ ওভারে ৮১/৩ (তামিম ৪১, ইমরুল ১৯, মুমিনুল ১৮*, মুশফিক ২; হেরাথ ১/২২, লাকমল ০/১৬, ধনঞ্জয়া ০/২০, দিলরুয়ান ১/২০, সান্দকান ১/৩)

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ৭১৩/৯, ইনিংস ঘোষণা

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৫১৩

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭২ বার

Share Button