» নিউইয়র্কের হাসন রাজা সীতেশ ধর

প্রকাশিত: ০৫. মার্চ. ২০১৮ | সোমবার

ইংল্যান্ডের পর  নিউইয়র্কের দর্শকদের মন জয় করে ছিল  ‘হাসন রাজা’। আমেরিকার নিউইয়র্ক এর কুইন্স থিয়েটারে মঞ্চস্থ হয়েছিল  বাংলার কিংবদন্তী জমিদার দেওয়ান হাসন রাজা চৌধুরীর জীবনী নির্ভর নাটক ‘হাসন রাজা’।নাটকে হাসান রাজার ভূমিকায় অভিনয় করেন সীতেশ ধর। তিনি বাংলাদেশে থাকতেই অভিনয় শিল্পী হিসেবে সুনাম কুড়িয়ে ছিলেন । আজ তার জন্মদিন ।

নাটকটি দেখতে কুইন্স থিয়েটারে বাঙালিদের ঢল নামে, পিনপতন নীরবতায় দর্শকরা মুগ্ধ চোখে দেখেন হাসন রাজা’কে। আমেরিকায় বাংলা নাটকের ইতিহাসে যা ছিলো বিরল ঘটনা। নির্ধারিত সময়েই নাটক শুরু হয়ে যায়। দর্শকদের চোখের সামনে ফোটে ওঠে জমিদার দেওয়ান হাসন রাজা চৌধুরীর বর্ণিল জীবনের এক জীবন্ত ক্যানভাস। প্রায় দেড়ঘন্টা ‘হাসন রাজা’য় মগ্ন হয়ে থাকে নিউইয়র্ক এর বিশ্বখ্যাত কুইন্স থিয়েটার। নাটকটি শেষ হওয়ার পরও যেন মুগ্ধতার রেশ কাটেনা। দর্শকদের উচ্ছসিত প্রশংসা আর অভিনন্দনে ভাসতে থাকেন কলাকুশলীরা। ‘হাসন রাজা’ নাটকটি রচনা করেছেন সিলেটের তরুন নাট্যকার মোস্তাক আহমেদ এবং নির্দেশনায় দিয়েছেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত নাট্যনির্দেশক, নাট্যজন ইশরাত নিশাত।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১লা নভেম্বর ‘হাসন রাজা’র সফল মঞ্চায়ন হয় ইংল্যান্ডের বার্মিংহাম ম্যাক থিয়েটার হলে। ‘হাসন রাজা’ নাটক সম্পর্কে নাট্যকার মোস্তাক আহমেদ বলেন, বাংলার লৌকিক সমাজে রামপাশা-লক্ষণশ্রীর জমিদার দেওয়ান হাসন রাজা চৌধুরী কিংবদন্তী হয়ে আছেন যুগ যুগ ধরে। এখনো তাকে ঘিরে নানাধরনের জনশ্রুতি আবহমান বাংলার লোকসমাজে। ভোগবিলাসের খোলস থেকে বেরিয়ে এসে এই সাধক কবি নিজেকে চিনিয়েছেন অন্যরূপে। তার সৃষ্টিকর্ম বাংলা লোকগানের পরিমন্ডলকে দিয়েছে এক নতুন ধারার সন্ধান।

‘হাসন রাজা’ একটি ঐতিহাসিক নাটক। গুণী নির্দেশক ইশরাত নিশাত ভিন্ন ভাবনায় নাটকটি উপস্থাপন করার প্রয়াস চালিয়েছেন। নির্দেশক ইশরাত নিশাত বলেন, দর্শকদের প্রত্যাশা পূরন করতে পেরে আমি আনন্দিত। এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা যাবেনা। আমি সকলের কাছে কৃতজ্ঞ। তিনি আরো বলেন এক ঘণ্টায় হাসন রাজাকে উপস্থাপন করা সম্ভব নয়। তার ভাবনাগুলোকে ভিন্ন ভাবনায় উপস্থাপনা করা হয়েছে। যেখানে ধরিত্রীকে কীভাবে রক্ষা করা যায় এবং অশুভকে কীভাবে মোকাবিলা করা যায় তার বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।
নাটকটির মঞ্চায়ন প্রসঙ্গে ‘হাসন রাজা’র নাট্যকার মোস্তাক আহমদ বলেন, “আমার লেখা নাটকটি যে এত সাড়া ফেলবে তা আমি ভাবিনি। নিউইয়র্কের একটি থিয়েটার হলে হলভর্তি দর্শক আগ্রহ নিয়ে আমার লেখা নাটকটির মঞ্চায়ন দেখেছেন, এতে আমি নির্দেশকসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞ”।
অনুষ্ঠানে হাসন রাজার পরিবারের নাজরিন রাজা বলেন, হাসন রাজাকে আমেরিকায় উপস্থাপন করায় আমরা পারিবারিকভাবে কৃতজ্ঞ। নানা সীমাবদ্ধতার উল্লেখ করে তিনি এ উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন। আগামী ২২শে এপ্রিল শনিবার বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা (বাই) এর বাংলা বর্ষ বরণ উৎসবে গ্রেটার ওয়াশিংটনে নাটকটি পরিবেশিত হবে।

নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন বিপ্লব শেখ,, এজাজ আলম, জান্নাতুল আরা জলি, নজরুল কবীর, রাসেল কবীর, শাম্মী আখতার হেপী, আনোয়ারুল হক লাভলু ও আশীষ রায় প্রমুখ। সংগীতায়োজনে ছিলেন লুসি হাসান, মুক্তা ধর, হামিদ ইকবাল, সুব্রত দত্ত এবং সুতপা চৌধুরী শম্পা।
কোরিওগ্রাফীতে অংশ নেয় বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ পারফর্মিং আর্টস (বিপা)। কোরিওগ্রাফার ছিলেন এনি ফেরদৌস। ‘হাসন রাজা’প্রযোজনা করে জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা।

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৮৩ বার

Share Button