» মে দিবস উদযাপনে মৌলভীবাজারে রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের প্রস্তুতি সভা

প্রকাশিত: ১৫. এপ্রিল. ২০১৮ | রবিবার

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম :
আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস মহান মে দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে মৌলভীবাজার জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন উদ্যোগে এক প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে ।  ১৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির কার্যালয়ে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন শ্রমিকনেতা মোঃ শাহজাহান আলী। কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ খোকন মিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ মৌলভীবাজার জেলা কমিটির সহ-সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল ও জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ সোহেল মিয়া। সভায় বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ দুলাল মিয়া, কোষাধ্যক্ষ মোঃ গিয়াসউদ্দিন, কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, প্রচার সম্পাদক মোঃ মোস্তফা মিয়া, কোষাধ্যক্ষ ইদ্রিস আলী, কোদালীপুল আঞ্চলিক কমিটির সভাপতি মোঃ জসিমউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, মোঃ ইলিয়াস হাওলাদার, মোঃ ইয়াছিন মিয়া, শাহজাহান মিয়া প্রমূখ। সভায় বক্তারা বলেন সাম্প্রতিক সময়ে মহান মে দিবস আসলেই সরকারী প্রশাসনসহ নানা রং বেরংয়ের ‘শ্রমিকদরদী’ দল মহান মে দিবস পালনে মাঠে নেমে পড়েন। তারা মহান মে দিবসের মূল চেতনাকে আড়াল করে মালিক-শ্রমিকের ঐক্যের শ্লোগান তুলে ধরে শ্রমিকদের বিভ্রান্ত করার অপচেষ্ঠা চালায়। এর বিপরীতে বিপ্লবীধারা শ্রমিক সংগঠনসমূহ মহান মে দিবসের সংগ্রাম তথা মজুরি দাসত্ব ব্যবস্থা উচ্ছেদের সংগ্রামের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে মে দিবস পালনকে নিছক আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে আবদ্ধ না রেখে শোষণ মুক্তি সংগ্রামকে অগ্রসর করার প্রত্যয়ে মে দিবস পালন করেন। এই চেতনাকে ধারণ করে ১ মে সকাল ১০ টায় পৌরমিলনায়তনে জমায়েত হয়ে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সাথে লাল পতাকা র‌্যালী, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভার কর্মসূচি সর্বাত্মকভাবে সফল করতে হবে। মে দিবস উপলক্ষ্যে কালেঙ্গা আঞ্চলিক কমিটির উদ্যোগে ১ মে সকাল ৮ টায় জমায়েত হয়ে মিছিল নিয়ে পৌরমিলনায়তনে যোগদান করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভা থেকে বাজারদরের সাথে সঙ্গতি রেখে রিকশা শ্রমিকদের ন্যায্য ভাড়ার তালিকা প্রদান, জুলুম-নির্যাতন বন্ধ, স্থায়ী স্ট্যান্ড স্থাপন ও শ্রমজীবী জনগণের জন্য রেশনিং চালু, চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যে কমানো, দফায় দফায় গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির পরিকল্পনা প্রত্যাহার, গণতান্ত্রিক শ্রমআইন প্রণয়নের দাবি জানানো হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৩০ বার

Share Button