» সৌরভ গাঙ্গুলিই হবেন পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ?

প্রকাশিত: ০২. মে. ২০১৮ | বুধবার

সৌরভ গাঙ্গুলিই হবেন পশ্চিম বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। এমনই ভবিষ্যদ্বাণী সৌরভের সাবেক সতীর্থ বীরেন্দর শেবাগের। শুধু তাই নয়, বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবার আগে ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা বোর্ড অব কনট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সভাপতিও হবেন বলে বিশ্বাস শেবাগের। ব্যাটসম্যান হিসেবেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথচলা শুরু হয় সৌরভ গাঙ্গুলির। পরবর্তী সময়ে বল হাতেও ঝলক দেখিয়েছেন তিনি। আর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচতায়। ভারতীয় ক্রিকেটের আধুনিক যুগের পথিকৃৎও বলা হয়ে থাকে তাকে।

ব্যাট-প্যাড খুলে রেখেছেন অনেক আগেই। বর্তমানে ক্রিকেট প্রশাসন নিয়েই বেশি সময় কাটাচ্ছেন সৌরভ। কলকতা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (সিএবি) প্রধান হিসেবে দায়িত্বরত। এর মাঝেই নিজের আত্মজীবনী ‘আ সেঞ্চুরি ইজ নট এনাফ’ লিখেছেন সৌরভ।

দিল্লিতে অনুষ্ঠিত আত্মজীবনীটির প্রোমোশনাল ইভেন্টে গতকাল উপস্থিত ছিলেন শেবাগ ও যুবরাজ সিং। সেখানেই শেবাগকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, বোর্ডের সর্বোচ্চ পদে সৌরভকে দেখা যেতে পারে কি না। এই প্রশ্নের জবাবেই ‘প্রিন্স অব ক্যালকাটাকে’ প্রশংসায় ভাসান ভারতের সাবেক এই ওপেনার।

শেবাগের ভাষ্য, ‘মিলিয়ে নেবেন, দাদা একদিন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবে। কিন্তু তারও আগে বোর্ডের সভাপতি হবেন তিনি।’

মাঠের বাইরের স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে যুবরাজ বলেন, ‘ম্যাচের পরেই দাদা প্রেস কনফারেন্স করতে ছুটত। আমাদের দায়িত্ব ছিল ওর কিট ব্যাগ গুছিয়ে দেওয়ার।’ যুবরাজের এ কথা শুনে হাসিতে ফেটে পড়েন দর্শকরা।

জবাবে সৌরভ বলেন, ‘এটা মোটেও ঠিক নয়। আসলে আমি তাড়াহুড়ো করে সাংবাদিক সম্মেলনে ছুটতাম। আর যুবরাজ নাইট-আউটের জন্য তৈরি হতো। যাতে দেরি না হয়ে যায়, সেজন্য যুবরাজই ব্যাগ গুছিয়ে রাখত।’

ওই অনুষ্ঠানে বেশ কিছুক্ষণ নিজেদের পুরানো স্মৃতি হাতরে বেড়ান সৌরভ-যুবরাজ-শেবাগরা।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৩৪ বার

Share Button