অপেক্ষায় আছি সেই সোনালি সকালের

প্রকাশিত: ১১:৩১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০২১

অপেক্ষায় আছি সেই সোনালি সকালের

অপেক্ষায় আছি সেই সোনালি সকালের

 মেরিনা সঈদ

সব পাখি উড়ে গেছে শূন্য করে বন
সব ফুল ঝরে যায় পাপড়ি না মেলে
সব নদী শূন্যঘাট ছুঁয়ে ছুঁয়ে বেদনার
ঢেউ দেয় বয়ে;
এখন করোনার দিন; হাহাকার বুকে নিয়ে
দিগন্তে হারায় হাওয়া!
মানুষের সংসারে এত শোক পৃথিবী কি
দেখেছে কখনো?
সেইসব গাছ; সমুদ্রের তীরঘেষা ঝাউবন
নদীঘেঁষা সোনালুর সারি, শিরীষের পাতার উল্লাস
আজ সব মৃয়মান– নীরব নিথর হয়ে
অপেক্ষায় নতুন দিনের।

এমন দুঃসহ কালদিন কেড়ে নিলো কত যে স্বজন
সহস্র-অযুত মা হারালো সন্তান, কন্যা হারালো পিতা
সহোদরা হারালো হায় আদরের ভাইটিকে তার!

পৃথিবীকে ঘিরে আছে মৃত্যুর বিকট প্রহরী;
মুমূর্ষু ও মৃতের শহর হয়ে নির্জন আঁধারে
যেন ধুঁকে ধুঁকে করছে বিলাপ অসংখ্য নগর
‘ঠাঁই নেই, ঠাঁই নেই ছোট সে তরী’..
ভাষাহীন অক্ষমতা জানাই নিত্য অসহায়
হাসপাতাল, পৃথিবীর চিকিৎসালয়গুলো।

আর কতো প্রলম্বিত হবে বিষাদের দিন;
অপেক্ষায় নদী ও অরণ্যসমূহ
অপেক্ষায় বিপুল পাখি ও প্রজাপতি
অপেক্ষায় ভোরের শহর, চাষিদের মেটেগৃহ
অবারিত ফাঁকা শস্যমাঠ–
অপেক্ষা নিরোগ, সুস্থ এক সাবলীল সোনালি সকালের
অপেক্ষায় দিন গুনি আমরা যারা বেঁচে আছি আজো।
৩০.০৭.২০২১

ছড়িয়ে দিন