অবশেষে সিদ্ধান্ত , লকডাউনে খোলা থাকছে ব্যাংক

প্রকাশিত: ১০:৫০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৩, ২০২১

অবশেষে সিদ্ধান্ত , লকডাউনে খোলা থাকছে ব্যাংক

অবশেষে লকডাউনে খোলা থাকছে ব্যাংক। তবে পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে আগামীকাল বুধবার ব্যাংক বন্ধ থাকবে। বৃহস্পতিবার থেকে ব্যাংকে সব ধরনের লেনদেন সকাল ১০ থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে। আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক আদেশে এ কথা বলা হয়েছে।

বিশেষ প্রয়োজনে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার সুবিধার্থে আগামী ১৫ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত শুধু সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত খোলা থাকবে। এর মধ্যে লেনদেন চলবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত। সীমিত জনবল দ্বারা বাংলাদেশ ব্যাংকের অফিসগুলোর ব্যাংকিং যথা ডিএবি, পিএডি এবং ক্যাশ কাউন্টার ও ভল্ট খোলা রাখতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিতকরণে প্রধান কার্যালয়ের অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড বাজেটিং ডিপার্টমেন্ট, ফরেক্স রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট, পেমেন্ট সিস্টেমস ডিপার্টমেন্ট, ইনফরমেশন সিস্টেমন ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড সাপোর্ট ডিপার্টমেন্ট, আইসিটি ইনফ্রাস্ট্রাকচার মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট ডিপার্টমেন্ট, কমন সার্ভিসেস ডিপার্টমেন্ট-১ এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখা এবং ডেস্কসমূহে প্রয়োজনীয় সংখ্যক জনবল দ্বারা চালু রাখতে হবে।

এ ছাড়া, উপরের বর্ণিত নির্দেশনা ব্যতীত বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় এবং অফিসসমূহের অন্যান্য বিভাগের কার্যক্রম উল্লেখিত সময়ে সাধারণভাবে বন্ধ থাকবে। এ সময়কালে বাংলাদেশ ব্যাংকের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে আবশ্যিকভাবে নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করতে হবে।

এর আগে গতকাল সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউনের লক্ষ্যে সব ধরনের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়। ওই নির্দেশনার পর গতকালই সব তফসিলি ব্যাংক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে এটিএম ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং সেবা চালু থাকবে বলে জানায়।

ওই নির্দেশনার পর সর্বাত্মক লকডাউনে ব্যাংকিং সেবা নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে অনুরোধ করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। তারা বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে একটি চিঠি দিয়ে ব্যাংক সেবা নিশ্চিতের অনুরোধ জানায়। ওই অনুরোধের পর নতুন করে ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।