অষ্টম ব্যালন ডি’র জয় করলেন মেসি

প্রকাশিত: ৪:৫৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০২৩

অষ্টম ব্যালন ডি’র জয় করলেন মেসি

আন্তর্জাতিক নিউজ ডেস্ক:

ব্যালন ডি’অরের পুরস্কার কার হাতে উঠছে তা অনেকটা অনুমেয় ছিল। গতকাল প্যারিসে আড়ম্বরর্পু অনুষ্ঠানে বিশ^ ফুটবলের প্রত্যাশারই বহি:প্রকাশ ঘটেছে। বিশ^কাপ জয়ী আর্জেন্টাইন তারকা লিওনের মেসি জিতে নিয়েছেন এ বছরের ব্যালন ডি’র ট্রফি। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে এটি ৩৬ বছর বয়সী মেসির অষ্টম ব্যালন ডি’অর ট্রফি। গতবার এ পুরস্কার জিতেছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা করিম বেনজেমা।

গত বছর সব ছাপিয়ে কাতার বিশ^কাপে মেসির দুর্দান্ত পারফরমেন্সই তাকে এই ট্্রফির অন্যতম দাবীদার করে তুলেছিল। তার নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা কাতার বিশ^কাপ জয় করে। আসরে সাত গোল করে টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় মনোনীত হয়েছিলেন মেসি।

এবারের ব্যালন ডি’অর ট্রফি জয়ে মেসি পিছনে ফেলেছেন ম্যানচেস্টার সিটির নরওয়েজিয়ান সেনসেশন আর্লিং হালান্ড ও তৎকালীন পিএসজি সতীর্থ কিলিয়ান এমবাপ্পেকে।

জুনে পিএসজি ছেড়ে মেজর লিগ সকার ক্লাব ইন্টার মিয়ামিতে যোগ দেবার পর কাল প্রথমবারের মত ফরাসি রাজধানীতে এসেছিলেন মেসি। অনুষ্ঠানের তার সাথে স্ত্রী আন্তোনেলা রোকুজ্জু ও তিন সন্তান থিয়াগো, মাতেও ও সিরো ছিল।

ইন্টার মিয়ামির মালিক ডেভিড বেকহ্যামের কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণের পর মেসি অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ‘আমরা বিশ^কাপে যা অর্জন করেছি তার জন্য পুরো আর্জেন্টিনা দলের প্রতি এটি আমার উপহার। সর্বশেষ আমি যখন এই ট্রফি জয় করেছিলাম সেটা ২০২১ সালে আর্জেন্টিনাকে কোপা আমেরিকার শিরোপা উপহার দেবার জন্য। কিন্তু এবারেরটা সত্যিই আমার কাছে বিশেষ কিছু। কারন এটি বিশ^কাপ জেতার কারনে পেয়েছি। এই বিশ^কাপ জয়ের জন্য সবাই মুখিয়ে ছিল, আমরা জন্য, একইসাথে আমার সতীর্থ ও দেশের জন্য সেটা স্বপ্ন সত্যি হবার মত ঘটনা।

২০০৯ সালে প্রথমবারের মত ব্যালন ডি’র জয় করেছিলেন মেসি। ক্যারিয়ারে আরো একটি ব্যালন ডি’র জয় কতটা সম্ভব, এমন প্রশ্নের অবশ্য জোড়ালো কোন জবাব দেননি মেসি। আগামী ২০২৬ বিশ^কাপে মেসি যদি খেলেনও তার বয়স হবে ৩৯ বছর। এ সম্পর্কে মেসি বলেন, ‘এতো দূরের ভবিষ্যত নিয়ে আমি এখনো কিছু চিন্তা করিনি। এই মুহূর্তে প্রতিটি দিন আমি শুধুমাত্র উপভোগ করছি। যুক্তরাষ্ট্রে এরপর আমাদের পরবর্তী মিশন কোপা আমেরিকা। সেখানে এখন আমি আছি। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আমরা মাঠে নামবো। সে কারনে বাড়তি একটি আত্মবিশ^াস আমাদের মধ্যে কাজ করবে। এরপর দেখা যাক কি হয়।

২০২১ সালে বার্সেলোনা থেকে প্যারিসে এসে দুই বছর কাটিয়েছেন মেসি। আর্জেন্টাইন সুপারস্টার বলেন, ‘এই শহরে খেলাটা আমি সবসময়ই উপভোগ করেছি। আমার সন্তানরাও এই শহরটিকে দারুন পছন্দ করেছে। প্যারিস ছেড়ে যাওয়াটা আমার জন্য সহজ ছিলনা। এটা একটি দারুন শহর। প্যারিসে থাকতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি। ফুটবলের দিক থেকে দেখতে হলে হয়তোবা প্রত্যাশানুযায়ী সবকিছু হয়নি। কিন্তু এখানকার ভাল দিকগুলো সবসময়ই মনে থাকবে।

আর্জেন্টাইন প্রয়াত কিংবদন্তী দিয়েগো ম্যারাডোনার প্রতি মেসি তার ব্যালন ডি’অর শিরোপা উৎস্বর্গ করেছেন। সোমবার ছিল ম্যারাডোনার ৬৩তম জন্মবার্ষিকী। এ সময় মেসি বলেন, ‘শুভ জন্মদিন দিয়েগো, এই ট্্রফিটি তোমার জন্য।

পিএসজির হয়ে গত বছর ৪১ গোল করা এমবাপ্পে ছিলেন ক্লাবের সেরা খেলোয়াড়। এমনকি বিশ^কাপেও সর্বোচ্চ ৮ গোল করে গোল্ডেন বুট জয় করেছিলেন। এর মধ্যে ফাইনালে করেছিলেন হ্যাট্রিক। কিন্তু ব্যালন ডি’অরের তালিকায় তিনি শেষ পর্যন্ত তৃতীয় স্থান পেয়েছেন। সিটির হয়ে ৫৩ ম্যাচে ৫২ গোল করা হালান্ড হয়েছেন দ্বিতীয়।বাসস

লাইভ রেডিও

Calendar

February 2024
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
2526272829