আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে; আদালতের সামনে পরীর ক্ষোভ প্রকাশ

প্রকাশিত: ৪:০৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২১

আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে; আদালতের সামনে পরীর ক্ষোভ প্রকাশ

মাদক মামলায় আবারও দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ পাওয়ার পর আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়েন ঢাকাই চলচ্চিত্রের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। আদালত কক্ষ থেকে বের হওয়ার সময় ক্ষোভও প্রকাশ করেন তিনি। পরীমনির দাবি, তাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে।

মাদক মামলায় চার দিনের রিমান্ড শেষে মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মুখ্য মহানগর দায়রা আদালতে তোলা হয় পরীমনিকে। এ সময় তাকে আরও পাঁচ দিন রিমান্ডে পেতে আবেদন করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে পরীমনিকে দুই দিনের রিমান্ড আদেশ দেন হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস।

আদালতে পরীমনির মামলার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মশিউর রহমান, নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভীসহ বেশ কয়েকজন। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন মুখ্য মহানগর দায়রা আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু।

আদেশ শোনার পর আদালত কক্ষেই কান্নায় ভেঙে পড়েন পরীমনি। এরপর আদালত কক্ষ থেকে বের হওয়ার সময় মাস্ক খুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। বলেন, ‘আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে, আপনারা মিডিয়া কী করছেন? সব তাকিয়ে তাকিয়ে দেখছেন।’

এর আগে, দুপুর ১২টার কিছুক্ষণ পর একটি মাইক্রোবাসে করে পরীমনিকে আদালতে নিয়ে আসে সিআইডি। গাড়ি থেকে নামার পরেই তাকে ঘিরে ধরে পুলিশ। গত ৪ আগস্ট গ্রেপ্তারের সময় পরীমনি যে পোশাকে ছিলেন সেই পোশাক ও মাস্কেই আদালতে দেখা যায় তাকে।

আলোচিত এই অভিনেত্রীকে একনজর দেখতে সকাল থেকেই আদালত প্রাঙ্গণে ভিড় জমান শত শত মানুষ। জমায়েত নিয়ন্ত্রণে আদালত চত্বরে মোতায়েন করা হয় বাড়তি পুলিশ। নিরাপত্তার স্বার্থে সংবাদ সংগ্রহে যাওয়া সাংবাদিকদেরও এজলাস থেকে বের করে দেয়া হয়।

৪ আগস্ট বনানীর নিজ বাসা থেকে মাদকসহ র‍্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হন নায়িকা পরীমনি। মাদক মামলায় তাকে চার দিনের রিমান্ডে পাঠায় আদালত।

ছড়িয়ে দিন