আদালতে হাজিরা দিলেন নূর হোসেন

প্রকাশিত: ৭:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০১৬

আদালতে হাজিরা দিলেন নূর হোসেন

এসবিএন ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সেভেন মার্ডার মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেন ও তার ভাতিজা শাহজালাল বাদলকে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কে এম মহিউদ্দিনের আদালতে হাজির করা হয়। স্বল্প সময়ের মধ্যে হাজিরা শেষ হলে নূর হোসেনকে আবার জেল হাজতে পাঠানো হয়।

শাহাজালাল বাদল ও নূর হোসেনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন খোকন সাহা। তিনি নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

আসামিপক্ষের আইনজীবী খোকন সাহা জানান, সকাল সাড়ে ১০টায় নূর হোসেনকে জেল হাজত থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের করা একটি চাঁদাবাজি মামলায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কে এম মহিউদ্দিনের আদালতে হাজির করা হয়। এ মামলায় মোট আসামি ৮জন।

তিনি আরো জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বহিষ্কৃত কাউন্সিলর (৪ নং ওয়ার্ড) শাহজালাল বাদলের স্থায়ী জামিন চাওয়া হয়। পরে বাদীর জিম্মায় তার জামিনের মেয়াদ বর্ধিত করা হয়। তবে নূর হোসেনের পক্ষে কোন জামিন চাওয়া হয়নি।

কোর্ট পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) গোলাম হোসেন জানান, পরবর্তী ধার্য তারিখ পরে জানানো হবে। এছাড়া সাত খুনের দুটি মামলাসহ আরো ৯ টি মামলার শুনানি জেলা ও দায়রা জজ আদালতে চলছে।

উল্লেখ্য, সাইদুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি দু’টি অটোরিকশা ভাড়া দিয়ে সংসার চালাতেন। ২০১৪ সালের ১৫ মার্চ নূর হোসেন তার শিমরাইলের বাসায় সাইদুলকে ডেকে নিয়ে দু’টি রিকশায় ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। সাইদুল চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তার দু’টি রিকশা নিয়ে আটক করে রাখেন নূর হোসেন। এরমধ্যে ১০ হাজার টাকা দিলে একটি রিকশা ছেড়ে দেয়া হয়।

এ ঘটনায় ওই বছরের ১০ জুন সাইদুল ইসলাম বাদী হয়ে আদালতে একটি পিটিশন দায়ের করেন। পরে আদালতের নির্দেশে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ১২ জুন ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করেন। এ মামলায় পুলিশ তদন্ত শেষে ওই বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর নূর হোসেন, তার ছোট ভাই নূর উদ্দিন, তাদের ভাতিজা শাহজালাল বাদল ও সহযোগী লোকমানের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।