আবারো আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের বর্বোরচিত হামলা

প্রকাশিত: ১১:৩৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০১৮

আবারো আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের বর্বোরচিত হামলা

স্টাফ রিপোর্টার
সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আবারো বর্বোরচিত হামলা চালিয়েছে। আজ সোমবার (২রা জুলাই) সকালে তারা আন্দোলনকারীদের বেধড়ক মারধর করে। এতে আন্দোলনকারীদের পূর্ব নির্ধারিত পতাকা মিছিল এবং বিক্ষোভ মিছিল ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আজ সকালে আন্দোলনকারীরা তাদের পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী পতাকা মিছিল এবং বিক্ষোভ মিছিল করার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে জড়ো হচ্ছিল। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগসহ বহিরাগত ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা চড়াও হয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হোসেনকে মারধর করে এবং একপর্যায়ে তারা মোটর সাইকেলে করে তাকে তুলে নিয়ে যায়।
এব্যাপারে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেত্রী ও বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আরেক যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফর নাহার নীলা সাংবাদিকদের জানান, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা চড়াও হয়ে তাদের উপর হামলা করেছে। তারা কাউকে ছাড় দেয়নি। এমনকি মেয়েদেরকেও তারা লাথি ঘুষি মেরেছে। একজন মেয়ের মাথা ফেটে গেছে বলেও জানান নীলা।
উল্লেখ্য গত শনিবার বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সংবাদ সম্মেলন করার কথা ছিল। সেখানে সংবাদ সম্মেলনের ঠিক আগমুহূর্তে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আন্দোলনকারীদের উপর হামলা চালায়। এতে কোটা আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী নুরুল হক নুরসহ সাত শিক্ষার্থী আহত হওয়ার ঘটনা ঘটে।
এরপর গতকাল রবিবার কোটা সংস্কার আন্দোলনের আরেক নেতা রাশেদ খানকে মিরপুর থেকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুুলিশ। রাজধানীর শাহবাগ থানায় এক ছাত্রলীগ নেতার তথ্য প্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে গতকাল সন্ধ্যায় রাজধানীর পরীবাগে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফর নাহার নীলা এবং শফিউল আলম আজকের কর্মসূচির ঘোষণা দেয়।