আমার চৈতন্য

প্রকাশিত: ১২:৪৮ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮

আমার চৈতন্য

শিশির বিন্দু

বাষ্পে ভাসে আমার চৈতন্য,ঘুমিয়ে জেগে ওঠা সেই তরুনের অবয়বে,
আজ আমার তোমার গৌরবের স্মৃতি
ঘুরপাক খেয়ে খেয়ে ফিরে আসে, কৃষন গহবরের মুখ থেকে।
চারিদকে রব রব উঠে!
ইতিহাস ধোয়া তুলে একে একে এঁকে দিয়ে যায়
অবক্ষয়ের হিসাবের খতিয়ান,আসে দূর থেকে বহুদূর যাবার ফরমান,বেদুঈন বা চেংিস যাই বা হও,হতে হবে যাযাবর এইবার,
ইতিহাসের ধোয়া তোলা সময়ের কফিনে আজো মৃতদেহ
অরক্ষিত রাখে ভবিতব্যের নাবিকেরা,
ভরা সমুদ্দুরে আজ হৈ হৈ করে আক্রমনে নেই জলদস্যুরা!
হেকে চলে যাযাবরেরা কাধে নিয়ে নিয়তির বোঝা, শুকিয়ে যায় নীল দরিয়া, অধমের গলে মালা পরায় সব প্রগৌতিহাসিকেরা, তবু থামে না, তবু থামে না জমে উঠে সব
খেলায় মাতোয়ারা জীবনের খেলোয়ারেরা,
চারিদিকে রব রব উঠে, ফিরে ফিরে আসে বারে বারে,
ঘুনে খাওয়া আমার খাটে শুয়ো পোকার আক্রমণ তবু ঘুম আমাকে ছাড়ে না, আমি ঘুম কে ছাড়ি না, চলতে থাকে
মনের বলয় সবার মনকে ছাপিয়ে,
বাষ্পে ভাসে আমার চৈতন্য,ঘুমিয়ে জেগে ওঠা সেই তরুনের অবয়বে,
চুপ কোন কথা হবে না,শুধু কান পেতে শুনে যাও, এবার কিন্তু সত্যিকারে জীবনখেলায় বাজি ধরে আমার জেতা নিশ্চিত প্রায়,আমি বাজিকর, আমি ই বাজির পক্ষ বিপক্ষ আবার আমাকেই ধরো বাজি,হে সময়ের আসামী তুমি এ কেমন খেলার অধিপতি? আমি কি নারী বলে সাঁতরাতে সাঁতরাতে পাই না কুলের কিনারা? আমি সাঁতরাতেই জানি না তুমি নামিয়ে দিলে পাড় হতে জীবনের অসীম দরিয়া!
চুপ কোন কথা হবে না,শুধু কান পেতে শুনে যাও আর কি ই বা আছে করার? চুপ কোন কথা হবে না,চুপ কোন কথা হবে না,আর কি ই বা আছে করার?আর কি ই বা আছে করার?