আমেরিকান পাঠকের কাছে ‘কনটেম্পোরারি বাংলাদেশী পোয়েট্রি’

প্রকাশিত: ৯:২২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৭, ২০১৯

আমেরিকান  পাঠকের কাছে ‘কনটেম্পোরারি বাংলাদেশী পোয়েট্রি’

আমেরিকান পাঠকের কাছে সমকালিন বাংলাদেশী কবিতাকে তুলে দিতে প্রকাশিত হয়েছে ‘কনটেম্পোরারি বাংলাদেশী পোয়েট্রি’। এই বইয়ে স্থান পেয়েছেন ৩৮জন বাংলাদেশের কবি । যাঁদের কবিতা স্থান পেয়েছে, বয়ঃক্রমিক তালিকায় তাঁরা হলেন আহসন হাবীব, শামসুর রাহমান, হাসান হাফিজুর রহমান, সৈয়দ শামসুল হক, আবু হেনা মোস্তফা কামাল, আল মাহমুদ, শহীদ কাদরী, সিকদার আমিনুল হক, রফিক আজাদ, নির্মলেন্দু গুণ, হুমায়ুন আজাদ, হেলাল হাফিজ, আবুল হাসান, হুমায়ুন কবীর, খোন্দকার আশরাফ হোসেন, আবিদ আজাদ, নাসির আহমেদ, রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহ, আবু হাসান শাহরিয়ার, কামাল চৌধুরী, নাসিমা সুলতানা, মারুফ রায়হান, রাজা হাসান, তসলিমা নাসরিন, রুকসানা রূপা, আহমেদ স্বপন মাহমুদ, হাসানআল আব্দুল্লাহ, মতিন রায়হান, বায়তুল্লাহ কাদেরী, টোকন ঠাকুর, রহমান হেনরী, আলফ্রেড খোকন, সৌমিত্র দেব, শামীম রেজা, নাজনীন সীমন, জাহানারা পারভীন, রনি অধিকারী ও জাহিদ সোহাগ। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর এমন একটি সংকলন এর আগে পশ্চিম থেকে প্রকাশিত হয়নি। ২০০ পৃষ্ঠার এই সংকলনে ১৫০টির ওপরে কবিতা রয়েছে। সবগুলো কবিতাই অনুবাদ করেছেন নিউইয়র্কে বসবাসরত নব্বই দশকের উল্লেখযোগ্য কবি হাসানআল আব্দুল্লাহ । তিনি তাঁর প্রতিক্রিয়ায় রেডটাইমসকে জানান,আজ হাতে পেলাম ‘কনটেম্পোরারি বাংলাদেশী পোয়েট্রি’। প্রকাশনার মান দেখে এতো বছরের অপেক্ষা আর শ্রমকে সার্থক মনে হলো। বইটি সম্পাদনা করেছেন প্রফেসর নিকোলাস বার্নস ও প্রফেসর জোন ডিকবি। প্রথমোক্ত জন ভূমিকা ও দ্বিতীয়োক্ত জন লিখেছেন ব্যাক কাভার। অনুবাদের জন্যে নিউইয়র্ক সিটি আর্ট অ্যাফেয়ার্সের গ্রান্ট পেয়েছেন অনুবাদক। যৌথভাবে প্রকাশ করেছে ক্রস-কালচারাল কমিউনিকেশন্স ও নিউ ফেরল প্রেস। প্রচ্ছদ আর্ট পোলিশ শিল্পী ইয়াসেক ওজোয়োস্কি ও ডিজাইন আল নোমান। উৎসর্গ করা হয়েছে ‘৫২ ভাষা আন্দোলনে শহীদদেরকে।
বই সম্পর্কে সাহিত্য সমালোচক আহমাদ মাজহার বলেছেন, সংকলনটি প্রকাশ করেছে যৌথভাবে নিউইয়র্কের দুটি স্মলপ্রেস প্রকাশনা সংস্থা। বইটি প্রকাশিত হয়েছে যথেষ্ট পেশাদারিত্বের সঙ্গে। যুক্তরাষ্ট্রে অনেক ‘স্মলপ্রেস’ প্রকাশনা সংস্থা আছে যারা ঠিক খ্যাতিমান প্রকাশনা সংস্থার মতো অতটা বাণিজ্যিক নয়। এসব সংস্থাও বই প্রকাশ করেন বেশ পেশাদারিত্বের সঙ্গে। সাধারণত গ্রাহকও তাদের হয়ে থাকেন পেশাদার পাঠকগণই। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় বা লাইব্রেরির পক্ষ থেকেই তাদের বই কেনা হয়– সাধারণ সেলফ-পাবলিকেশন হিসেবে প্রকাশিত বইয়ের লেখকদের ভাগ্যে সাধারণত যা জোটে না।
হাসানআলের এই অনুবাদ সংকলনটির কপি-সম্পাদনা করেছেন দুজন সম্পাদক। একজন ড. জোন ডিগবি–যিনি নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড ইউনিভার্সিটির ইংরেজির অধ্যাপক। অপরজন নিউইয়র্ক ইউনিভার্সিটির ইংরেজির অধ্যাপক ড. নিকোলাস বার্নস। দুজনই অনুবাদের টেক্সটের ইংরেজিকে মার্কিন চারিত্র্যানুগ করে সম্পাদনা করেছেন, চেষ্টা করেছেন যেন আমেরিকার পাঠকদের রুচিগত দিক থেকে মানসম্পন্ন হয় বইটি।
সংকলক হিসেবে কবিতার নির্বাচকও অনুবাদক হাসানআল আব্দুল্লাহই। ফলে কবিতা নির্বাচনের যাথার্থ মূল্যায়নের সময় সকল দায়িত্ব বর্তাবে তাঁরই ওপর। বাংলা কবিতার ইংরেজি অনুবাদ নিয়ে কথা বলার যোগ্যতা আমার নেই বলে এ নিয়ে কিছু বললাম না। তবে বাংলা কবিতার নিয়মিত পাঠক হিসেবে এ অনুমান করি যে কবি ও কবিতা নির্বাচন নিয়ে, কিংবা অনূদিত কবিতার সংখ্যা নিরূপণ নিয়ে বিস্তর কথা শুনতে হবে তাঁকে। তাতে কী, কোন সংকলকইবা এ রকম তিরস্কার থেকে পরিত্রাণ পেয়েছেন।
পাঠক হিসেবে এ কথাও আমাকে স্বীকার করতে হবে যে, ‘Contemporary Bangladeshi Poetry’ বইটি অনুবাদক-সংকলকের দীর্ঘনিমগ্ন কবিতা পাঠের ও কবিতা বিচারের নিদর্শন, এটি কোনো নির্বিচার অপরিশীলিত অনুবাদের কবিতাস্তূপ নয়। এটি প্রকাশিত হয়েছে সযত্ন পেশাদারিত্বের সঙ্গে। বইয়ের শেষে কবিদের সংক্ষিপ্ত পরিচয় আছে। একজন বিদেশি হলেও ড. নিকোলাস বার্নস বাংলাদেশের কবিতার সংক্ষিপ্ত পরিচয়ে যথেষ্ট যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখেছেন।
‘Contemporary Bangladeshi Poetry’ এর নিউইয়র্কে প্রকাশনা উৎসব ১২ অক্টোবর। অ্যামাজন ডট কম ও স্মল প্রেস ডিস্টিংশন ডট কমে বইটি পাওয়া যাচ্ছে।

ছড়িয়ে দিন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

October 2021
S M T W T F S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31