ঢাকা ১৮ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি


উত্তরে আতিক দক্ষিণে তাপস

redtimes.com,bd
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯, ১১:৪৬ অপরাহ্ণ
উত্তরে আতিক দক্ষিণে তাপস

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে উত্তরের মেয়র পদে পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া আতিকুল ইসলাম দলের সভাপতি শেখ হাসিনাসহ মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানোর পাশাপাশি ভোটারদের সহযোগিতা চেয়েছেন।

অন্যদিকে দলের ঐক্য চান দক্ষিণের মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়া সাংসদ শেখ ফজলে নূর তাপস । তিনি বর্তমান মেয়র মো. সাঈদ খোকনের সমর্থনও চেয়েছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের রোববার ধানমণ্ডিতে দলের সভাপতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে মনোনীতদের নাম ঘোষণা করেন। পরে একই জায়গায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন দুই মনোনীত মেয়রপ্রার্থী।

আর আনিসুল হকের মৃত্যুর পর এ বছর ফেব্রুয়ারিতে উপ নির্বাচনে জিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়রের দায়িত্বে আসেন বিজিএমইএ-এর সাবেক সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম। এবারও তাকেই মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

তবে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সিটি করপোরেশনের ব্যর্থতায় সমালোচিত দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন এবার বাদ পড়েছেন। তার বদলে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে শেখ ফজলুল হক মনির ছোট ছেলে তাপসকে, যিনি গত তিন মেয়াদ ধরে ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্যের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তাপস এই মনোনয়নের জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দলের মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান, সেই সঙ্গে স্মরণ করেন বিভক্ত ঢাকার প্রথম নির্বাচনে উত্তরের মেয়র পদে নির্বাচিত আনিসুল হকের কথা।

আনিসুল হকের কাজ থেকে অনুপ্রেরণা পাওয়ার কথা তুলে ধরে তাপস বলেন, “আমি স্মরণ করছি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হককে। যিনি অল্প সময়ে প্রমাণ করেছিলেন- সততা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করলে মানুষের দরজায় কীভাবে পৌঁছানো সম্ভব, সেটাকে পুঁজি করে আমি কাজ করতে চাই।”

নির্বাচিত হলে কী করবেন জানতে চাইলে তাপস বলেন, “জনগণ যদি আমাকে নির্বাচিত করে, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আপামর জনগণের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে আমার পূর্ণ সময় আমি কাজ করে যাব।”

পেশায় আইনজীবী তাপস রাজনীতিতে তার অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে বলেন, “ঢাকা ১০ আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য হিসেবে কাজ করতে গিয়ে আমি উপলব্ধি করেছি, আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নত বাংলাদেশের জন্য কাজ করে চলেছেন। আমাদেরকে রূপকল্প দিয়েছেন একটি উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের। সেই উন্নত বাংলাদেশের জন্য একটি উন্নত রাজধানীর প্রয়োজন। সেই উন্নত রাজধানী গড়ার লক্ষ্যে এই সুযোগটা আমি গ্রহণ করব, জনগণের কাছে যাব।

“ঢাকা দক্ষিণের জনগণ যদি আমাকে নির্বাচিত করে, তাহলে বৃহৎ পরিসরে, ঐতিহ্যবাহী পুরান ঢাকার ঐতিহ্য সংরক্ষণ করে স্বমহিমায় প্রস্ফূটিত করার লক্ষ্যে এবং পুরান ঢাকার অধিবাসীদের দীর্ঘদিনের অবহেলা ঘুচিয়ে তাদের একটি উন্নত রাজধানী, যেখানে সকল নাগরিক সুযোগ সুবিধা থাকবে… আমি সেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।”

রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে রোববার ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে আতিকুল ইসলাম এবং ফজলে নূর তাপসের প্রার্থিতা ঘোষণার পর তাদের হাত উঁচু করে ধরেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ অন্য নেতারা।

রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে রোববার ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে আতিকুল ইসলাম এবং ফজলে নূর তাপসের প্রার্থিতা ঘোষণার পর তাদের হাত উঁচু করে ধরেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ অন্য নেতারা।
বিদায়ী মেয়র সাঈদ খোকনসহ দলীয় নেতাকর্মীরা সবাই এ নির্বাচনে ঐকবদ্ধভাবে কাজ করবেন- এমন আশা প্রকাশ করে তাপস বলেন, “আমি আশা করি, আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ সংগঠন এবং আওয়ামী লীগের সবাই আমার জন্য কাজ করে যাবেন।”

সাঈদ খোকনের সমর্থন প্রত্যাশা করেন কিনা- এ প্রশ্নে তাপস বলেন, “আশা করি উনি আমাকে সমর্থন করবেন।”

পুনরায় মনোনয়ন পাওয়া আতিকুল ইসলাম তার বক্তব্যের শুরুতেই দলের সাভাপতি শেখ হাসিনাসহ মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, “বাই ইলেকশানে নির্বাচন করে নয় মাসে যে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেছি। আপনারা জানেন, যে দিন থেকে দায়িত্ব পেয়েছি সেদিন থেকে একটি দিনও সময় নষ্ট করি নাই।

উত্তরের ভোটারদের সহায়তা চেয়ে বর্তমান মেয়র বলেন, “আসুন আমরা সবাই মিলে একটা সুন্দর ঢাকা শহর গড়ে তুলি। আমরা জানি আমাদের কী চ্যালেঞ্জ রয়েছে, এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে একসাথে সবাই মিলে কাজ করতে হবে।”

মনোনয়ন পাওয়ায় তাপসকে অভিনন্দন জানিয়ে আতিক বলেন, “আমি অত্যন্ত খুশি হয়েছি, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমাদের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন শেখ ফজলে নূর তাপস। আমার পক্ষ থেকে তাপসকে অভিনন্দন জানাই।”

অন্যদের মধ্যে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি, সাধারণ সম্পাদক হুমাযুন কবির, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে সামস পরশ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয় সরকার সিটি নির্বাচন আইন অনুযায়ী, সংসদ সদস্য বা সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে থেকে কেউ মেয়র পদে নতুন নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন না। সে অনুযায়ী রোববারই স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তাপস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

July 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031